সাঁতার না জানলে রাজশাহী পলিটেকনিকের অধ্যক্ষের প্রাণনাশের আশঙ্কা ছিল : তদন্ত কমিটি - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা


সাঁতার না জানলে রাজশাহী পলিটেকনিকের অধ্যক্ষের প্রাণনাশের আশঙ্কা ছিল : তদন্ত কমিটি

রাজশাহী প্রতিনিধি |

সাঁতার না জানলে রাজশাহী পলিটেকনিকের অধ্যক্ষ  প্রকৌশলী ফরিদউদ্দিন আহম্মেদের প্রাণনাশের আশঙ্কা ছিল বলে মন্তব্য করেছে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের তদন্ত কমিটি। অধ্যক্ষকে পানিতে ফেলে দেয়ার ঘটনা তদন্তে কারিগরি অধিদপ্তরের গঠিত কমিটির আহ্বায়ক এস এম ফেরদৌস আলম মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এসব তথ্য জানান।

বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের যুগ্ম সচিব এসএম ফেরদৌস আলম দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, পুকুরের গভীরতা আমরা মেপে দেখেছি ১২ থেকে ১৫ ফিট গভীর। পুকুরের মাঝখানে গভীরতা আরও বেশি। সেখান থেকে বলা যায়, যদি অধ্যক্ষ সাঁতার না জানতেন তাহলে বিপজ্জনক কিছু বা প্রাণনাশের আশঙ্কা ছিল।

জানা গেছে, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে গঠিত তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গত রোববার সন্ধ্যায় পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে পৌঁছায়। পরে তারা ইনস্টিটিউটের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও পুকুরের পানির গভীরতাও পরিমাপ করেছেন। এছাড়া ইনস্টিটিউটের ১১১৯ নম্বর কক্ষে অবস্থিত ছাত্রলীগের টর্চার সেলও পরিদর্শন করেছেন।

দুপুরে তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক আরও বলেন, আমরা কয়েকটি ধাপে তদন্ত করেছি। তদন্তের স্পট পরিদর্শন করেছি, আক্রমণের ম্যানারটা জানার চেষ্টা করেছি, শিক্ষক-কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেছি, ভিকটিমের সাথে কথা বলেছি, রাজনীতিবিদ ও প্রশাসনের লোকদের সাথে কথা বলেছি, তাদের সেন্টিমেন্ট জানার চেষ্টা করেছি। আশা করছি ভালো একটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে পারবো। তারপর মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তর থেকে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

এদিকে, রাজশাহী পলিটেকনিকের অধ্যক্ষকে জোর করে টেনে হিঁচড়ে পুকুরে ফেলার ঘটনার মামলায় এই পর্যন্ত ৯ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে গত রোববার ৫ জনসহ এবং সোমবার আরও ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়।
 
যদিও প্রত্যক্ষভাবে জড়িতদের কেউ এখনও গ্রেফতার হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থীরা। সিসি ক্যামেরায় যাদের চেহারা দেখা গেছে তাদের সবাই গা ঢাকা দিয়েছেন বলে দাবি করেন তারা। ছাত্রলীগের এসব নেতাকর্মী গ্রেফতার না হওয়ায় শঙ্কিত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ৬ হাজার ৪১০ শিক্ষক - dainik shiksha উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ৬ হাজার ৪১০ শিক্ষক সরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা জারি - dainik shiksha সরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা জারি ‘সরকারিকরণের আদেশ জারির দিন থেকে শিক্ষকদের আর্থিক সুবিধা দেয়ার চেষ্টা চলছে’ - dainik shiksha ‘সরকারিকরণের আদেশ জারির দিন থেকে শিক্ষকদের আর্থিক সুবিধা দেয়ার চেষ্টা চলছে’ দুর্নীতিবাজ কর্মচারীরা ফিরে আসছে শিক্ষা ভবনে, মাদরাসা শাখার কাজ কি? - dainik shiksha দুর্নীতিবাজ কর্মচারীরা ফিরে আসছে শিক্ষা ভবনে, মাদরাসা শাখার কাজ কি? রিফাত হত্যা মামলা : মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি, খালাস ৪ - dainik shiksha রিফাত হত্যা মামলা : মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি, খালাস ৪ টাইমস্কেল পাওয়া অধিগ্রহণকৃত স্কুল শিক্ষকদের টাকা ফেরত নেয়ার কাজ শুরু - dainik shiksha টাইমস্কেল পাওয়া অধিগ্রহণকৃত স্কুল শিক্ষকদের টাকা ফেরত নেয়ার কাজ শুরু বিনা প্রয়োজনে কলেজ ক্যাম্পাসে জনসাধারণের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি - dainik shiksha বিনা প্রয়োজনে কলেজ ক্যাম্পাসে জনসাধারণের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি ক্যামব্রিয়ান কলেজের ভ্যাট ফাঁকি, গোয়েন্দাদের অভিযান - dainik shiksha ক্যামব্রিয়ান কলেজের ভ্যাট ফাঁকি, গোয়েন্দাদের অভিযান কোচিং ও পরীক্ষা নিয়ে সাংবাদিকদের যা জানাল মন্ত্রণালয় - dainik shiksha কোচিং ও পরীক্ষা নিয়ে সাংবাদিকদের যা জানাল মন্ত্রণালয় please click here to view dainikshiksha website