আন্ত:স্কুল ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় সংঘর্ষে আহত ১০ - স্কুল - Dainikshiksha


আন্ত:স্কুল ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় সংঘর্ষে আহত ১০

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি: |

যশোরের অভয়নগরে আন্ত:স্কুল ও মাদরাসা ত্রীড়া প্রতিযোগিতার তৃতীয় দিনের শেষ সেমিফাইনাল ফুটবল খেলা শেষে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়।  আজ  বুধবার ( ৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে স্থানীয় নওয়াপাড়া শংকরপাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত ৪৭তম আন্ত:স্কুল ও মাদরাসা ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় এ ঘটনাটি ঘটে। এসময় হিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক আসাদুল ইসলাম টুটুল ও সহকারী শিক্ষক আজাদ আলী বিশ্বাসসহ ১০ জন শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হন। আহতদের অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা গেছে,  ফুটবল (বালক) সেমিফাইনাল খেলায় অংশ নেয় উপজেলার হিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও নওয়াপাড়ার আল-হেলাল ইসলামী একাডেমি স্কুলের শিক্ষার্থীরা। খেলায় ১-০গোলে হিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় বিজয়ী হয়। খেলা শেষে আল-হেলাল ইসলামী একাডেমির শিক্ষার্থীরা খেলায় হেরে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে বিজয়ী স্কুল হিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের লোহার রড ও লাঠিসোঠা নিয়ে বেদমভাবে পেটাতে শুরু করে। সংঘর্ষ ঠেকাতে গেলে  হিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক আসাদুল ইসলাম টুটুল ও সহকারী শিক্ষক আজাদ আলী বিশ্বাস শিক্ষার্থীদের হাতে আহত হয়। এসময় হিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অন্যান্য আহত খেলোয়াড় ও শিক্ষকরা ভৈরব নদ সাঁতরে পার হন।

সংঘর্ষের কারণে  আধ ঘন্টার জন্য খেয়া পারাপার বন্ধ হয়ে যায়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা পুলিশ খেয়াঘাট এলাকায় পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে খেয়া পারাপার পুনরায় চালু করে। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এমএম মাহমুদুর রহমান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আহত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, এ ঘটনাটি খুবই দু:খজনক। হামলাকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website