আন্দোলনরত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ - সমিতি সংবাদ - দৈনিকশিক্ষা


আন্দোলনরত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বেতন বৈষম্য নিরসন প্রক্রিয়াধীন থাকা সত্ত্বেও ক্লাস বর্জন কর্মসূচি দেয়ায় শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন বাস্তবায়নের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করছেন শিক্ষকরা। সর্বশেষ গত জুলাইতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সহকারী শিক্ষকদের ১২তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডের প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠালেও তা প্রত্যাখ্যাত হয়েছে। সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন বাস্তবায়নের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছেন শিক্ষকরা।

কর্মবিরতি পালন করছেন শিক্ষকরা

প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের ব্যানারে আজ সোমবার (১৪ অক্টোবর) থেকে কর্মবিরতি পালন করছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা। আজ ১৪ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে ১২টা ২ ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করছেন তারা। আগামীকাল ১৫ অক্টোবর ৩ ঘণ্টা, ১৬ অক্টোবর অর্ধদিবস এবং ১৭ অক্টোবর নিজ বিদ্যালয়ে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করবেন তাঁরা। আগামী ২৩ অক্টোবর মহাসমাবেশ করবেন শিক্ষকরা। আর প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের ব্যানারে কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করা শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। অধিদপ্তর থেকে কর্মসূচিতে অংশ নেয়া শিক্ষকদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে বিভাগীয় উপপরিচালকদের। সোমবার (১৪ অক্টোবর) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির বিষয়টি নিয়ে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে বিবেচনাধীন রয়েছে। এ অবস্থায় কোনো ধরনের দাবি আদায়ের কর্মসূচি পালিত হলে তা সরকারের সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রক্রিয়ায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। আর সরকারি কর্মচারীদের দ্বারা এ ধরনের কর্মসূচি ঘোষণা বা অংশগ্রহণ করা সরকারি শৃঙ্খলা ও আপিল বিধিমালা-২০১৮ এর পরিপন্থি। তাই এ ধরনের কর্মসূচির সাথে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। গতকাল ১৩ অক্টোবর এ নির্দেশনা দিয়ে অতিরিক্ত মহাপরিচালক সোহেল আহমেদ স্বাক্ষরিত চিঠি বিভাগীয় উপপরিচালকদের পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি জেলা ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদেরও জানানো হয়েছে। 

এদিকে বেতন বৈষম্য নিরসন তথা সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন বাস্তবায়নের দাবিতে আজ সোমবার (১৪ অক্টোবর) প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের ব্যানারে কর্মবিরতি পালন করেছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা।আগামীকাল ১৫ অক্টোবর ৩ ঘণ্টা, ১৬ অক্টোবর অর্ধদিবস এবং ১৭ অক্টোবর নিজ বিদ্যালয়ে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করবেন তাঁরা। আগামী ২৩ অক্টোবর মহাসমাবেশ করবেন শিক্ষকরা। মহাসমাবেশ থেকে লাগাতার কর্মসূচির ঘোষণা আসতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের নেতারা।   

ঐক্য পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা আনোয়ারুল ইসলাম তোতা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, সারাদেশের শিক্ষকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ নিজ বিদ্যালয়ে কর্মবিরতি পালন করছেন। আগামীকালও কর্মবিরতি পালন করা হবে। ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষকরা কর্মবিরতি পালন করবেন। ২৩ অক্টোবর মহাসমাবেশে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। 

শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে তিনি দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, আগেও শিক্ষকদের আন্দোলন প্রতিহত করতে এ ধরনের চিঠি আগেও ইস্যু হয়েছে। তবে, ন্যায্য দাবিতে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনের জন্য শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হলে প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের পক্ষ থেকে আরও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।   

ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব মোহাম্মদ শামছুদ্দীন মাসুদ দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, সারাদেশের শিক্ষকরা ন্যায্য দাবিতে অন্দোলন করছেন। কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হলে পৌনে চার লাখ শিক্ষকের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নিতে হবে। সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন বাস্তবায়নের দাবি আজ মেনে নেয়া হলে কাল থেকেই আমরা আন্দোলন কর্মসূচি প্রত্যাহার করবো। এসময় তিনি জানান, সারাদেশের শিক্ষকরা আজ শন্তিপূর্ণভাবে দুই ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করবেন।

 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
এক কলেজেই জাল সনদধারী আট শিক্ষকের চাকরি! - dainik shiksha এক কলেজেই জাল সনদধারী আট শিক্ষকের চাকরি! শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষক সমাবেশ ৫ অক্টোবর - dainik shiksha শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষক সমাবেশ ৫ অক্টোবর নিবন্ধন সনদধারী শিক্ষকদের তথ্য সংগ্রহ করছে এনটিআরসিএ - dainik shiksha নিবন্ধন সনদধারী শিক্ষকদের তথ্য সংগ্রহ করছে এনটিআরসিএ করোনার টিকাকে বৈশ্বিক সম্পদ হিসেবে বিবেচনার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর - dainik shiksha করোনার টিকাকে বৈশ্বিক সম্পদ হিসেবে বিবেচনার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর একাদশে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন শুরু - dainik shiksha একাদশে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন শুরু করোনা ঝুঁকি থাকাকালিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সুযোগ নেই - dainik shiksha করোনা ঝুঁকি থাকাকালিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সুযোগ নেই এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণ : আরেক আসামি অর্জুন গ্রেফতার - dainik shiksha এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণ : আরেক আসামি অর্জুন গ্রেফতার এমসি কলেজে গণধর্ষণের ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন, ২ গার্ড সাসপেন্ড - dainik shiksha এমসি কলেজে গণধর্ষণের ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন, ২ গার্ড সাসপেন্ড বরখাস্ত অধ্যক্ষের অভিনব প্রতারণা - dainik shiksha বরখাস্ত অধ্যক্ষের অভিনব প্রতারণা please click here to view dainikshiksha website