ইউএনও যখন কোচিং সেন্টারের সভাপতি - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা


ইউএনও যখন কোচিং সেন্টারের সভাপতি

মনিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি |

পাবলিক পরীক্ষাগুলোকে কেন্দ্র করে সরকার কোচিং সেন্টার বন্ধের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। সরকার যখন এ ধরনের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে তৎপর, তখন মনিরামপুর শহরে অ্যাকাউন্টিং কোচিং সেন্টারে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন ইউএনও আহসান উল্লাহ শরিফী। 

এ বিষয়টি ছবিসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে। মনিরামপুর শহরের দক্ষিণ মাথায় অবস্থিত অ্যাকাউন্টিং কোচিং সেন্টারটি স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে পরিচালিত হয়ে আসছে কয়েক বছর ধরে। আসন্ন এসএসসি পরীক্ষায় এ প্রতিষ্ঠানে কোচিং নেওয়া ৬৩ শিক্ষার্থীর অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। 

কোচিং সেন্টারের অনুষ্ঠান : প্রধান অতিথি ইউএনও

এ উপলক্ষে সোমবার বিকেলে কোচিং সেন্টারটিতে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন ইউএনও আহসান উল্লাহ শরিফী।

এসএসসি পরীক্ষা উপলক্ষে সরকার ২৫ জানুয়ারি থেকে সব কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশ দেয়। কিন্তু অ্যাকাউন্টিং কোচিং সেন্টারে সোমবার পর্যন্ত ক্লাস নেয়া হয়। গত বছর পরীক্ষার সময় এই কোচিং সেন্টারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাইয়েমা হাসান অভিযান চালিয়ে পরিচালক মহিবুল্লাহ মুহিবকে আর্থিক জরিমানার পর সেন্টারটি বন্ধ করে দিয়েছিলেন। 

কোচিং সেন্টারের পরিচালক মুহিবুল্লাহ মুহিব জানান, তার কোচিং সেন্টার থেকে এবার ৬৩ জন এসএসসি পরীক্ষার্থী বিদায় নিয়েছে। বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানে সব মিলিয়ে ২৩৫ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। এ উপলক্ষে সোমবার বিকেলে ৬৩ এসএসসি পরীক্ষার্থীকে বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়। ইউএনওর মতামত নিয়েই তাকে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি করা হয়। 

আরও পড়ুন: আটক ও জরিমানা: কোচিং পরিচালকের হাতে লাঞ্ছিত স্কুলশিক্ষক

ইউএনও আহসান উল্লাহ শরিফী জানান, মূলত কোচিংয়ের ব্যাপারে শিক্ষার্থীদের নিরুৎসাহিত করতেই তিনি কোচিং সেন্টারের বিদায় অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তবে যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ বিস্ময় প্রকাশ করে জানান, কোচিং সেন্টারের বিদায়ী অনুষ্ঠানে ইউএনওর যোগ দেয়া ঠিক হয়নি।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে টেকনিক্যাল কমিটি কাজ করছে - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে টেকনিক্যাল কমিটি কাজ করছে ইবির নতুন উপাচার্য শেখ আব্দুস সালাম - dainik shiksha ইবির নতুন উপাচার্য শেখ আব্দুস সালাম শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) - dainik shiksha আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব জাল নিবন্ধন সনদে এমপিওভুক্তি : প্রভাষক-অধ্যক্ষের বেতন বন্ধ - dainik shiksha জাল নিবন্ধন সনদে এমপিওভুক্তি : প্রভাষক-অধ্যক্ষের বেতন বন্ধ মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি - dainik shiksha মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত - dainik shiksha ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! - dainik shiksha জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি - dainik shiksha কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি please click here to view dainikshiksha website