একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি: কলেজে কলেজে ভীড়, চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা


একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি: কলেজে কলেজে ভীড়, চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক |

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি শুরু হয়েছে গতকাল রোববার থেকে। শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ কলেজে গিয়ে ভর্তি হচ্ছেন। এই কার্যক্রম চলবে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। এরপর অক্টোবর থেকেই তাদের অনলাইনে ক্লাস শুরু হতে পারে।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিয়াউল হক সাংবাদিকদের বলেন, 'অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে অনলাইনে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে গেলে স্বাভাবিকভাবেই ক্লাস নেওয়া হবে।'

এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে ১৬ লাখ ৯০ হাজার ৫২৩ জন। তাদের মধ্যে প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থী একাদশে ভর্তির আবেদন করে। তবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নম্বরপত্র, প্রশংসাপত্রসহ কোনো প্রকার প্রামাণ্যপত্র গ্রহণ না করতে বলা হয়েছে।

গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন কলেজে কলেজে সশরীরে হাজির হয়ে ভর্তি হন। অনেকে সঙ্গে করে নিয়ে যান মা-বাবাসহ অভিভাবককে। এতে দীর্ঘ প্রায় ৬ মাস পর এসব প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীর পদভারে মুখরিত হয়ে ওঠে।

এই স্তরে স্বাভাবিক ভর্তি কার্যক্রম হয়ে থাকে জুনের শেষের দিকে। আর ক্লাস শুরু হয় ১ জুলাই। সেই হিসাবে ভর্তিতেই বিলম্ব হয়েছে প্রায় তিন মাস। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে অনলাইনে ক্লাস শুরুর চিন্তা আছে সরকারের। সে লক্ষ্যে ১ অক্টোবর বাজারে বিক্রির জন্য ছাড়া হবে পাঠ্যবই।

নির্ধারিত সময়ের প্রায় তিন মাস পর ভর্তি হতে পেরেও খুশি ছাত্রছাত্রীরা। ঢাকা সিটি কলেজে ভর্তি হতে আসা হাবিবা বলেন, এসএসসি পরীক্ষা দেয়ার পর আমরা ঘরবন্দি হয়ে পড়ি। এতদিন পর ভর্তির প্রয়োজনে বাসা থেকে বের হতে পেরে খুব ভালো লাগছে।

ঢাকা কলেজে ভর্তি হতে এসেছিলেন অজিয়র রহমান। তিনি জানান, এইচএসসি দুই বছরের হলেও বাস্তবে পাওয়া যায় ১৬ মাস। তাদের পরীক্ষা যদি ২০২২ খ্রিষ্টাব্দের এপ্রিলে হয় এবং অক্টোবরে অনলাইনে যদি ক্লাস নেয়া হয়, তাহলে তারা পাচ্ছে সাকুল্যে ১৬ মাস। এর মধ্যে অন্তত ৫ মাস আছে বিভিন্ন পরীক্ষা। তাই তাদের অনেক পরিশ্রম করতে হবে এবার।

রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে দেখা যায়, ছাত্রছাত্রীরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে লাইন ধরে ভর্তি হচ্ছে। তাদের কারও সঙ্গে বাবা আবার কারও সঙ্গে আছেন মা। শাহানআরা নামে এমন একজন মা বলেন, শুনেছি অনলাইনে ক্লাস শুরু হবে। এটা ভালো পদক্ষেপ। তবে সরাসরি ক্লাসের ব্যবস্থা করলেও সেটা খারাপ হয় না। এক্ষেত্রে পরিকল্পিত পদক্ষেপ নেয়া যায়।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি - dainik shiksha প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের - dainik shiksha ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? - dainik shiksha শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন - dainik shiksha ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না - dainik shiksha চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক - dainik shiksha হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প - dainik shiksha শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প please click here to view dainikshiksha website