একীভূত বাংলাদেশ চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যশিক্ষা বোর্ড - মতামত - Dainikshiksha


একীভূত বাংলাদেশ চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যশিক্ষা বোর্ড

প্রকৌশলী রিপন কুমার দাস |

ডিপ্লোমা স্তরের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য শিক্ষাক্রম বর্তমান বিশ্বের একটি পেশাভিত্তিক গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা ব্যবস্থা। দেশে মধ্যম মানের দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে ডিপ্লোমা স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা প্রযুক্তি শিক্ষার বিকল্প নেই। আমাদের দেশে ডিপ্লোমা স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা প্রযুক্তি শিক্ষাটি পরিচালনা ভার বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড, দি স্টেট মেডিকেল ফ্যাকাল্টি অফ বাংলাদেশ (প্যারামেডিক কোর্স-এর সনদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান), বাংলাদেশ নার্সিং কাউন্সিল, বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিল, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি শিক্ষা বোর্ড, বাংলাদেশ আয়ুর্বেদী ও ইউনানী শিক্ষা বোর্ড, বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিলসহ আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের ওপর ন্যস্ত।

এছাড়া বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে প্রায় ৩০টি শিক্ষাক্রম পরিচালিত হয়, কিন্তু এতগুলো কার্যক্রম তাদের পক্ষে ঠিকমত পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না। অনেকগুলো প্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা প্রযুক্তি বিষয়ে মধ্যম মানের জনবল তৈরির প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করার ফলে শিক্ষার মানের অবনতিসহ নানা সমস্যা হচ্ছে। এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য বাংলাদেশে ডিপ্লোমা পর্যায়ের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা প্রযুক্তি দক্ষ জনবল তৈরির জন্য সকল প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বাংলাদেশ চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য শিক্ষা বোর্ড গঠন করা প্রয়োজন। উক্ত শিক্ষা বোর্ডে ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইন মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি, ডিপ্লোমা ইন হেলথ টেকনোলজি ও ডিপ্লোমা ইন নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারি, ডিপ্লোমা ইন লাইফ সায়েন্স কারিকুলাম পরিচালিত হবে।  

ডিপ্লোমা ইন মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি কারিকুলামে যে সকল বিভাগ থাকবে তা হলো : ডিপ্লোমা ইন মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি (অ্যালোপ্যাথি/ হোমিওপ্যাথি/আয়ুর্বেদী/ইউনানি/আকুপাংচার (ইন্ট্রিগ্রেটেড মেডিসিন)/ ডেন্টাল/অপটোমেট্রি (চক্ষু বিজ্ঞান)/আয়ুস)। উল্লিখিত বিভাগ গুলোতে প্রথমে ডিপ্লোমা ইন মেডিসিন ও সার্জারি বসবে এবং প্রথম বন্ধনীর মধ্যে বিভাগ বসবে অর্থাৎ ডিপ্লোমা ইন মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি (হোমিওপ্যাথি)। এসব কোর্সগুলোতে সরকারি বেসরকারি ম্যাটস, হোমিওপ্যাথিক কলেজ, ইউনানী কলেজ, আর্য়ুবেদী কলেজ, ডেন্টাল ইন্সটিটিউটে পরিচালিত হবে।

ডিপ্লোমা ইন হেলথ টেকনোলজি কারিকুলামে যেসব বিভাগগুলো থাকেব তা হলো (কার্ডিয়াক কেয়ার টেকনোলজি, রেডিওথেরাপি টেকনোলজি, মেডিকেল ল্যাবরেটরি টেকনোলজি, ল্যাবরেটরি মেডিসিন (প্যাথলজি) টেকনোলজি, বায়ো মেডিকেল ল্যাবরেটরি টেকনোলজি, হিসটোটেকনিশিয়ান, ফিলেবেটোমি টেকনোলজি, রেডিয়েশন থেরাপিস্ট টেকনোলজি, এক্সরে (রেডিওগ্রাফি) টেকনোলজি, ডেন্টাল টেকনোলজি, ইমারজেন্সি মেডিকেল টেকনোলজি, এনেসথেশিয়া টেকনোলজি, অপারেশন থিয়েটার টেকনোলজি, ডায়ালাইসিস টেকনোলজি, ব্লাড ব্যাংক টেকনোলজি, মেন্টাল হেলথ টেকনোলজি, ভিশন টেকনোলজি, হোম হেলথ এইড টেকনোলজি, ডায়েট টেকনিশিয়ান, মেডিকেল রেকর্ড অ্যান্ড হেলথ ইনফরমেশন টেকনোলজি, মেডিকেল ইকুপমেন্ট টেকনোলজি, জেরিয়েট্রিক এইড টেকনোলজি, পেশেন্ট রিলেশন, স্পিস এন্ড অডিওথেরাপি টেকনোলজি, স্যানিটারি সুপারভাইজার ইন্সপেক্টর, ফিজিওথেরাপিস্ট টেকনোলজি, ফ্রন্ট লাইন হেলথ ওয়ার্কার, ডায়াবেটিকস এডুকেয়ার টেকনোলজি, যোগা, স্ক্রিন কেয়ার টেকনোলজি )। উল্লিখিত বিভাগগুলো প্রথমে ডিপ্লোমা ইন হেলথ টেকনোলজি এবং প্রথম বন্ধনীর মধ্যে বিভাগ বসবে অর্থাৎ ডিপ্লোমা ইন হেলথ টেকনোলজি (যোগা)। এ সকল কোর্স সরকারি বেসরকারি হেলথ টেকনোলজি ইন্সটিটিউটে পরিচালিত হবে।

ডিপ্লোমা ইন লাইফ সাইন্স কারিকুলামে যে সকল বিভাগ থাকবে, তা হলো (ফার্মাসিটিক্যাল, বায়ো ফার্মাসিটিকাল, সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং, রিসার্স অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট)। এ সকল কোর্স সরকারি বেসরকারি ফার্মেসি ইন্সটিটিউটে পরিচালিত হবে।

ডিপ্লোমা ইন নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারি কারিকুলামে যেসব বিভাগ থাকবে তা হলো (নার্সিং, মিডওয়াইফারি, কেয়ার গিভিং টেকনলোজি)। এসব কোর্সগুলো সরকারি বেসরকারি নার্সিং ইন্সটিটিউটে পরিচালিত হবে। উল্লিখিত ৪ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা ইন মেডিসিন এন্ড সার্জারি, ডিপ্লোমা ইন হেলথ টেকনোলজি ও ডিপ্লোমা ইন নার্সিং এন্ড মিডওয়াইফারি, ডিপ্লোমা ইন লাইফ সায়েন্স কারিকুলাম চারটি নিয়ে যদি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা শিক্ষা বোর্ড স্থাপন করা যায়, তবে মানসম্পন্ন দক্ষ মধ্যম মানের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য প্রযুক্তিবিদ তৈরি করা সম্ভব।

লেখক :  ট্রেড ইন্সট্রাক্টর, ডোনাভান মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পটুয়াখালী।

 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
নভেম্বরের এমপিওর সাথেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি দেয়া হতে পারে - dainik shiksha নভেম্বরের এমপিওর সাথেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি দেয়া হতে পারে এমপিও বাতিল হচ্ছে ১২ শিক্ষক-কর্মচারীর - dainik shiksha এমপিও বাতিল হচ্ছে ১২ শিক্ষক-কর্মচারীর এমপিওভুক্ত হচ্ছেন কারিগরির ২২৮ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন কারিগরির ২২৮ শিক্ষক বেসরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ - dainik shiksha বেসরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ স্ত্রীর মৃত্যুতে আজীবন পেনশন পাবেন স্বামী - dainik shiksha স্ত্রীর মৃত্যুতে আজীবন পেনশন পাবেন স্বামী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website