চাঁদাবাজির টাকায় চলে ভুইফোঁড় অভিভাবক সংগঠন - বিবিধ - Dainikshiksha


চাঁদাবাজির টাকায় চলে ভুইফোঁড় অভিভাবক সংগঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক |

কোচিং সেন্টার থেকে চাঁদাবাজির টাকায় চলছে ভুইফোঁড় ও নিবন্ধন বিহীন সংগঠন অভিভাবদের সমিতি’। এছাড়াও সোনালী, জনতা, রুপালী, আল আরাফাহ, ফারমার্স ব্যাংক ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকসহ কয়েকটি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে লাখ লাখ টাকার বিজ্ঞাপন আদায়ের সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে সমিতির বিরুদ্ধে।

জানা যায়, ভুইফোঁড় ও নিবন্ধনবিহীন অভিভাবক সমিতি একটি স্মরনিকা প্রকাশ করেছে ।

ধরা পড়া হারুনের মতে, ফোরামের নামে লোক ভাড়া করে সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দাড়িয়ে জেএসসি ও পিএসসি পরীক্ষা বাতিল এবং কোচিং সেন্টার নিষিদ্ধ করার দাবি করে আবার রাতের আঁধারে ওই কোচিং সেন্টারের কাছ থেকে টাকা আদায় করে সভাপতিসহ কয়েকজন। গত ২৮ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবে অভিভাবদের একটি গোলটেবিল চলাকালে বিতরণ করা একটি স্মরনিকায় বিজ্ঞাপনের নামে কয়েক লাখ টাকার চাঁদা তুলেছে দুলূ ও তার সিন্ডিকেট।

টাকার বিনিময়ে অভিভাবক কর্মসূচিতে লোক সরবরাহকারী হারুন। ছবি: দৈনিক শিক্ষা

জনৈক সাইফুলের প্রতিষ্ঠিত ওই কোচিং সেন্টারের মূল শাখা ২৮৫, উত্তর শাহজাহানপুরে, ঢাকায়। মতিঝিল এজিবি কলোনী ও সিদ্ধেশ্বরী সূধী সমাজের গলিতে রয়েছে দুটি শাখা।

হারুন বলেন, ঘন্টাপ্রতি ১০০ টাকায় অভিভাবক সমিতিরসহ প্রেসক্লাবের সামনে ও ভেতরে অনুষ্ঠিত অনেক কর্মসূচিতেই লোক সরবরাহ করে আসছি দীর্ঘদিন যাবত।

হারুন বলেন, দৈনিকশিক্ষায় সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে হুমকি দিতে গিয়েছিলাম, পরে বুঝেছি মস্ত ভুল হয়েছে।

পোস্টার লাগানোর সময় গত ৯ এপ্রিল সেগুনবাগিচা থেকে হারুনসহ মোট তিনজনকে ধরে শাহবাগ পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

হারুন আরো জানায়, তোপখানা রোডের একটি কম্পিউটার দোকান থেকে দৈনিকশিক্ষার বিরুদ্ধে ইমেইল পাঠিয়েছে বিভিন্ন জনকে।

অভিভাবক ফোরাম ভুইফোঁড় সংগঠন হওয়ায় গত ২৮ মার্চের প্রেসক্লাবে ডাকা  গোলটেবিল বৈঠক বয়কট করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জ্ঞানেন্দ্রসহ বিশিষ্ট শিক্ষাবিদরা।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
এমপিওভুক্তির তালিকায় প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন - dainik shiksha এমপিওভুক্তির তালিকায় প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ - dainik shiksha মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন - dainik shiksha মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? - dainik shiksha কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন - dainik shiksha ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website