চীনে উচ্চশিক্ষায় বৃত্তির সুযোগ - বিবিধ - Dainikshiksha


চীনে উচ্চশিক্ষায় বৃত্তির সুযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

চীন হতে পারে পড়াশোনার জন্য উন্নত একটি দেশ। যে কেউ চাইলে সহজেই চীনে বৃত্তির সুযোগ করে নিতে পারে। প্রকৌশল বিষয়ে যারা বৃত্তির জন্য ভাবছেন তাদের জন্য নিচে কিছু তথ্য দেয়া হলো- 

সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং : ঝেজিয়াং ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, হারবিন ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি, বেইজিং ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি, জিয়াংসু ইউনিভার্সিটি, টংজি ইউনিভার্সিটি।

মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং : শ্যাংডং ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, বেইজিং ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, হারবিন ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, সেন্ট্রাল সাউথ ইউনিভার্সিটি, হুয়াঝং ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি।

কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং : চংগিং ইউনিভার্সিটি অব পোস্টস অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন্স, জিয়ান ইউনিভার্সিটি অব ইলেকট্রনিক সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি, হারবিন ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ঝেজিয়াং ইউনিভার্সিটি।

ভিসার আবেদন : আপনি চীনে পৌঁছার আনুমানিক তারিখের এক মাস আগে ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। কাউন্সিলর অফিস থেকে আপনাকে ভিসার আবেদন ফরমের সঙ্গে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিতে বলা হবে। যেসব কাগজপত্র আপনার যোগ্যতা প্রমাণ করবে। আবেদন ফরম অবশ্যই যথাযথভাবে পূরণ করতে হবে। ঘষামাজা করা যাবে না।

প্রার্থীর বয়স ১৮ বছরের কম হলে তার পিতা/মাতা তার পক্ষে স্বাক্ষর করতে পারেন। আবেদন ফর্ম অবশ্যই সশরীরে প্রার্থীর নিজ দেশের চীনা এম্বাসি অথবা নিকটস্থ কনস্যুলেট জেনারেলের অফিসে জমা দিতে হবে। কোনোভাবেই ডাকযোগে আবেদনপত্র জমা নেওয়া হবে না। প্রার্থী কোনো কারণে অসমর্থ হলে তার পক্ষে অন্য কেউ সশরীরে গিয়ে জমা দিতে হবে।

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস
 
-মূল পাসপোর্ট (ন্যূনতম ছয় মাস মেয়াদ থাকতে হবে)।

-পূরণকৃত ভিসা অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম।

-১ কপি সাম্প্রতিক তোলা পাসপোর্ট সাইজের ফটো।

-শারীরিক যোগ্যতার প্রমাণপত্র।

-যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবেন সেখান থেকে ইস্যুকৃত Letter of Admission-এর একটি মূলকপি ও একটি ফটোকপি।

-এর বাইরে আরও কিছু কাগজপত্রের প্রয়োজন হতে পারে। 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না - dainik shiksha ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ - dainik shiksha পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে - dainik shiksha ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা - dainik shiksha প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা - dainik shiksha কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website