আমাদের সঙ্গে থাকতে দৈনিকশিক্ষাডটকম ফেসবুক পেজে লাইক দিন।


জাতীয়করণ: ফের অধিগ্রহণকৃত বিদ্যালয়ের ছক চেয়েছে মন্ত্রণালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক | নভেম্বর ১৫, ২০১৭ | বিবিধ

জাতীয়করণের জন্য ১ম, ২য় ও ৩য় ধাপে অধিগ্রহণকৃত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আত্তীকরণের লক্ষ্যে জেলা ও উপজেলা যাচাই বাছাই কমিটির পূরণকৃত ছক পুনরায় পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

১২ই নভেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব পুলক রঞ্জন সাহা স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ তথ্য জানা যায়। আদেশে বলা হয়, ২০১৩ খ্রিস্টাব্দে প্রস্তুতকৃত ১ম, ২য় ও ৩য় ধাপে অধিগ্রহণকৃত বিদ্যালেয়ের জেলা ও উপজেলা যাচাই বাছাই কমিটি কর্তৃক পূরণকৃত মূল ছক (ক, খ, গ ও ঘ) অথবা মূল ছকের অতিরিক্ত কপি না থাকলে মূল অফিস কপির ছায়ালিপি মন্ত্রণালয়ে পুনরায় প্রেরণ করতে হবে। আগামী পনের কার্য দিবসের মধ্যে জেলা/উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত করে ওই ছক পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

তবে আদেশে বলা হয়, আগে যেভাবে পাঠানো হয়েছিল সেভাবেই ছক পাঠাতে হবে। কোন প্রকার পরিবর্তন, পরিমার্জন বা ঘষামাজা করা যাবে না। এরকম হলে তার জন্য দায়ী থাকবেন সংশ্লিষ্ট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তারা।

যেসব প্রতিষ্ঠানকে ছক প্রেরণ করতে বলা হয়েছে তার ২০ পৃষ্ঠার একটি তালিকাও দিয়েছে মন্ত্রণালয়। তালিকায় থাকা বেশিরভাগ বিদ্যালয়ই ৩য় ধাপে অধিগ্রহণকৃত। এছাড়া শিক্ষকদের আত্তীকরণের লক্ষ্যে তালিকায় বিভিন্ন জেলার এমপিওভুক্ত কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ও রয়েছে। এসব নন-এমপিও শিক্ষকরা ২০০৯ খ্রিস্টাব্দের ৩০শে জুলাইয়ের আগে নিয়োগ পাওয়া।

গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাধিক সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, আগের পাঠানো ছকে সমস্যা ও সন্দেহ থাকায় এসব বিদ্যালয়ের কাছ থেকে নতুন করে ছক চাওয়া হয়েছে। তবে ২০১৩ খ্রিস্টাব্দে যেভাবে পাঠানো হয়েছে ঠিক সেভাবেই পাঠাতে হবে। ঘষামাজা করে কোন ধরনের পরিবর্তন গ্রহণযোগ্য নয়।

তবে, ভিন্নমতও পোষণ করেছেন অভিজ্ঞ শিক্ষক নেতারা। তারা দৈনিকশিক্ষাডটকমকে বলেছেন, নতুন করে তথ্য পাঠানোর সময় দুই নম্বরি হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

বিদ্যালয়ের তালিকাসহ বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

মন্তব্যঃ ৮টি
  1. দেলোয়ার হোসেন says:

    দৈনিক শিক্ষা ডট কম এরকাছে অনুরোধ ১৬০২০/২১/২২-২০১৭ নামে তিনটি রিট হয়েয়ে। যা হাইকোর্ট ৪সপ্তাহের রুল দিয়েছে,১৩তারিখ দয়াকরে নিউজটি দিন।

  2. দেলোয়ার হোসেন says:

    পূনরায় চারছক প্রেরন করতে বলায় তৃতীয় ধাপে জাতীয়করনে জালিয়াতী বেরহয়ে আসবে।আশাকরি প্রকৃত বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলো জাতীয়করন হবে দ্রুত।

    • মোঃ মনোয়ার হোসেন says:

      যে সব প্রাথমিক বিদ্যালয় নতুন করে ঘর করা হচ্ছে বা চেষ্টা করা হচ্ছে তা অবশ্যই বাতিল করে যারা পুরাতন তাদের সুযোগ দিন । বর্তমানে অনেক নতুন প্রাথমিক বিদ্যালয় করা হচ্ছে যাদের কোন কিছু নেয় না আছে ঘর না আছে ছাত্র না আছে চাল। যেমন,ফালডাংগী বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় , ডাকঘরঃ চৌরংগী বাজার, উপজেলাঃ হরিপুর, জেলাঃ ঠাকুরগাঁও। এই রকম অনেক বিদ্যালয় হচ্ছে যা সরকারের দৃষ্টি দেওয়া দরকার বলে মনে হয়। দেশে অনেক প্রাথমিক বিদ্যালয় হয়েছে এখন শুধু দরকার গুনগত মান বাড়ানোর। আশা করি সরকারের শুভ দৃষ্টি থাকবে।

  3. Pikul Biswas (PK), Bamonail , Jhenidah says:

    জেলা ও উপজেলা কর্তৃক যাচাই বাছাই করা ৩য় ধাপে বাদ পড়া বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলো জাতীয়করণ করা হোক।

  4. মোঃ নাজমুল হক ভূঁঞা,সহকারী প্রধান শিক্ষক,পিপলাকান্দি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়,হোসেনপুর। says:

    আপনার মন্তব্য-৩য় ধাপে জাতীয়করণের জন্য জেলা উপজেলা কমিটি কর্তৃক যাচাই-বাছাইকৃত এবং ২০১২ সনের সমাপনী আছে, এসব প্রাঃ বিঃ অন্তর্ভুক্ত ছিল কিন্তু জাতীয়করণ হয়নি তা খতিয়ে দেখা হইক।

  5. আলহাজ্ব আবিয়ার রহমান, সাতক্ষীরা। says:

    সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি হওয়ার পূর্বে এমপিও নন এমপিও প্রতিষ্ঠান ছিল। সরকারি প্রজ্ঞাপনে তা জাতীয়করন করা হয়। একই ভাবে সকল এমপিও ভূক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ধাপে ধাপে সরকারিকরন চাই।

  6. মোঃ সোহাগ হোসেন মাস্টার পটুয়াখালী says:

    দৈনিক শিক্ষা ডটকমকে বিনয়ের সাথে অনুরোধ জানাচ্ছি গত ২৩/০৩ /১৭ইং তাং ৩য় ধাপে ৩০৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করন করা হয়। দয়া করে দৈনিক শিক্ষা ডটকমে এই খবরটি দিবেন কবে নাগাত আমরা এই ৩০৩টি বিদ্যালয়ের গশড়া গেজেট পেতে পারি।

  7. মিঃবাসুদেব says:

    শিক্ষার মান বারবে । শিক্ষা পেশায় ভাল মানের শিক্ষক আসবে।

আপনার মন্তব্য দিন