ডাবল ফার্স্ট ক্লাস রেখে মেধাক্রমে নবম থাকা প্রার্থীকে নিয়োগের সুপারিশ - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha


ঢাবিতে শিক্ষক নিয়োগডাবল ফার্স্ট ক্লাস রেখে মেধাক্রমে নবম থাকা প্রার্থীকে নিয়োগের সুপারিশ

কবির কানন |

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে বিভিন্ন বর্ষের ডাবল ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট স্থান অধিকার করা প্রার্থীদের বাদ দিয়ে মেধাক্রমে নবম স্থানে থাকা এক প্রার্থীকে প্রভাষক হিসেবে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে। এতে মেধা তালিকায় শীর্ষে থাকা প্রার্থীসহ ওই বিভাগের শিক্ষক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

সূত্র জানায়, গত ১৩ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক নাসরীন আহমাদের সভাপতিত্বে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে তিনজন প্রভাষক (স্থায়ী) নিয়োগের জন্য বোর্ড সভা বসে। অন্য বোর্ড সদস্যরা হলেন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক সাদেকা হালিম, বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. নেহাল করিম, অধ্যাপক মনিরুল ইসলাম খান ও অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা।

বোর্ডে ৩৪ জন প্রার্থীর মধ্য থেকে তিনজনকে প্রভাষক হিসেবে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা। সুপারিশকৃতরা হলেন ইশরাত জাহান ইয়ামুন; সিজিপিএ অনার্স ও মাস্টার্স যথাক্রমে ৩.৭৪ ও ৩.৮৮, ওয়াসফিয়া শাম্মা; সিজিপিএ যথাক্রমে ৩.৭২ ও ৩.৮৩ এবং ফাইজুল হক ইশান; সিজিপিএ যথাক্রমে ৩.৫৮ এবং ৩.৭৫ (মেধাক্রম নবম, অনার্স)। এর মধ্যে ফাইজুল হক ইশানকে নিয়োগের সুপারিশ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কারণ, অন্তত ১৫ জন প্রার্থী সিজিপিএতে তার থেকে এগিয়ে ছিলেন। এর মধ্যে তিনজন প্রার্থী ছিলেন যারা অনার্স ও মাস্টার্স উভয় পরীক্ষায় ডাবল ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট। এছাড়া অন্তত দুইজন প্রার্থী ছিলেন যারা উভয় পরীক্ষায় মেধাক্রমে তৃতীয় ছিলেন।

গোপন সূত্রে জানা গেছে, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের বর্তমান ডিন অধ্যাপক সাদেকা হালিম সুপারিশকৃত ইশানের থিসিস সুপারভাইজার ছিলেন। ভাইভাতে তিনি তাকে অধিক নম্বর দিয়েছেন বলে অন্য নিয়োগপ্রার্থীরা অভিযোগ তুলেছেন। এ বিষয়ে অধ্যাপক সাদেকা হালিম বলেন, সিন্ডিকেট সভার পর কথা বলব। আমরা কেবল সুপারিশ করেছি। সিন্ডিকেট চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবে। তিনি সিলেকশন বোর্ড সভা প্রধান অধ্যাপক নাসরীন আহমাদের সঙ্গে কথা বলার জন্য বলেন। আরেকজন বোর্ড সদস্য অধ্যাপক নেহাল করিমও প্রো-উপাচার্যের (শিক্ষা) সঙ্গে কথা বলার জন্য বলেন।

এ বিষয়ে অধ্যাপক নাসরীন আহমাদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সেটা দেখব। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, আমার কাছে না আসলে তো বুঝবো না। ওটা সিলেকশন কমিটির কাছে। উপাচার্যের কাছে আসলে তিনি দেখবেন বলে জানান।

প্রসঙ্গত, বোর্ডে সুপারিশকৃতদের বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় চূড়ান্ত নিয়োগ দেওয়া হয়। আজ সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভা রয়েছে।

 

সৌজন্যে: ইত্তেফাক




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
নতুন স্কেলে কল্যাণের টাকা পেতে আবার আবেদন, শিক্ষকদের ক্ষোভ - dainik shiksha নতুন স্কেলে কল্যাণের টাকা পেতে আবার আবেদন, শিক্ষকদের ক্ষোভ তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত ক্লাস মূল্যায়নে কমিটি গঠন - dainik shiksha তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত ক্লাস মূল্যায়নে কমিটি গঠন ঘুষ লেনদেন ছাড়া প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি হয় না - dainik shiksha ঘুষ লেনদেন ছাড়া প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি হয় না দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও পেতে পারে - dainik shiksha দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও পেতে পারে সাড়ে তিন লাখ সরকারি পদ শূন্য - dainik shiksha সাড়ে তিন লাখ সরকারি পদ শূন্য প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website