তিন শিক্ষককে ২৪ ঘন্টার নোটিসে বরখাস্ত - বিবিধ - Dainikshiksha


তিন শিক্ষককে ২৪ ঘন্টার নোটিসে বরখাস্ত

বাগেরহাট প্রতিনিধি |

পছন্দের শিক্ষককে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ দিতে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকসহ ৩ শিক্ষককে নিয়ম বহির্ভুতভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বাগেরহাট সদর উপজেলার সুন্দরঘোনা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে। ওই বিদ্যালয়ের সভাপতি কাজী মতিনুর রহমান ২৪ ঘন্টার নোটিসে তিন শিক্ষককে বরখাস্ত করেন। এরপর অন্য একজনকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে ব্যাংক থেকে আড়াই লাখ  টাকা তুলে নেন তিনি। 

বুধবার (১৩ জুন) সভাপতির এসব অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারীতা বন্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছেন  বরখাস্ত হওয়া তিন শিক্ষক। 

বরখাস্তকৃত শিক্ষকরা হলেন, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শেখ শামীম হাসান, সহকারী শিক্ষক (শরীর চর্চা) শেখ মোঃ আবদুল ওয়াহাব ও সহকারী শিক্ষক (কম্পিউটার) মোসাঃ কামরুন্নাহার।

তারা অভিযোগ করেন সভাপতির অনিয়ম, দুর্নীতি ও নিয়ম বহির্ভুতভাবে পছন্দের শিক্ষক নিয়োগের বিরুদ্ধে কথা বলায় তাদের বিরুদ্ধে এ ধরণের শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

বরখাস্ত হওয়া শিক্ষকরা জানান, শিক্ষক ও অভিভাবকদের সালাম ও সম্মান প্রদর্শন না করা, রমজানে অতিরিক্ত ক্লাস না নেওয়াসহ কয়েকটি অভিযোগ এনে আমাদের বিরুদ্ধে গত ৪ জুন কারণ দর্শানো নোটিস করেন বিদ্যালয়ের সভাপতি কাজী মতিনুর রহমান অভিযোগ। ডাকযোগে পাঠানো ওই নোটিস আমরা ১০ জুন হাতে পাই। পরের দিন নোটিসের জবাব দেই। অথচ ওইদিনই আমাদের নামে বরখাস্তের আদেশ দেয়া হয়। সাথে সাথে সহকারি শিক্ষক মোঃ শহিদুল্লাহ সরদারকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে আড়াই লাখ  টাকা তুলে নেন সভাপতি।
 
তিন শিক্ষককে বরখাস্ত প্রসঙ্গে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান বলেন, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এটা অস্বাভাবিক। এক সাথে ৩ জন শিক্ষককে বরখাস্ত করা বিধি বহির্ভুত। 

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি কাজী মতিনুর রহমান দৈনিকশিক্ষা ডটকমকে বলেন, বরখাস্তকৃত শিক্ষকরা বিএনপি-জামাতপন্থী। ১৫ আগস্ট এরা খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালন করেন। একাধিকবার তাদের সতর্ক করা হয়েছে। তারা কমিটির সদস্যদের সম্মান দিতে জানে না। তাদের সামনে চেয়ারে পা তুলে দিয়ে মোবাইলে কথা বলেন। ঠিকমত ক্লাস নেন না। কারও কথা শোনে না,কারও কথা মানে না।

তিন শিক্ষককে একসঙ্গে বরখাস্ত করা বিধিসম্মত কিনা প্রশ্নের জবাবে কাজী মতিনুর রহমান বলেন, এক সঙ্গে নয়, আলাদাভাবে এবং সবার সঙ্গে পরামর্শ করে তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে। আড়াই লাখ টাকা বাংক থেকে তুলে নেয়ার বিষয়ে শিক্ষকদের অভিযোগ সঠিক নয় বলেও তিনি দাবি করেন।



পাঠকের মন্তব্য দেখুন
স্কুল-কলেজে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স ৩৫ বছর - dainik shiksha স্কুল-কলেজে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স ৩৫ বছর এমপিও নীতিমালা ২০১৮ জারি - dainik shiksha এমপিও নীতিমালা ২০১৮ জারি চতুর্দশ শিক্ষক নিবন্ধনের মৌখিক পরীক্ষা ২৪ জুন - dainik shiksha চতুর্দশ শিক্ষক নিবন্ধনের মৌখিক পরীক্ষা ২৪ জুন নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের তথ্য চেয়ে গণবিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের তথ্য চেয়ে গণবিজ্ঞপ্তি দাখিল-২০২০ পরীক্ষার মানবণ্টন প্রকাশ - dainik shiksha দাখিল-২০২০ পরীক্ষার মানবণ্টন প্রকাশ ইবতেদায়ি সমাপনীর মানবণ্টন প্রকাশ - dainik shiksha ইবতেদায়ি সমাপনীর মানবণ্টন প্রকাশ জেএসসির চূড়ান্ত সিলেবাস ও মানবণ্টন প্রকাশ - dainik shiksha জেএসসির চূড়ান্ত সিলেবাস ও মানবণ্টন প্রকাশ জেএসসির বাংলা নমুনা প্রশ্ন প্রকাশ - dainik shiksha জেএসসির বাংলা নমুনা প্রশ্ন প্রকাশ একাদশে ভর্তির আবেদন ও ফল প্রকাশের সময়সূচি - dainik shiksha একাদশে ভর্তির আবেদন ও ফল প্রকাশের সময়সূচি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website