দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালাবে ছাত্রদল - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা


দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালাবে ছাত্রদল

নিজস্ব প্রতিবেদক |

দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। বয়সসীমা নির্ধারণ না করে ধারাবাহিক কমিটির দাবিতে আন্দোলন করছেন তারা। সোমবার বেলা ১১টা ৩০ মিনিট থেকে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে প্রতীকী অনশনে বসেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের একাংশ।

অনশনে অংশ নেয়া ছাত্রদল কর্মীরা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন এবং তাদের দাবি তুলে ধরেন।

আন্দোলনের বিষয়ে জানতে চাইলে সদ্যবিলুপ্ত ঘোষণা করা ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সিনিয়র সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট বলেন, ‘আমরা দীর্ঘ ১৩-১৪ বছর ছাত্ররাজনীতি করছি। আমাদের জীবনটা এই সংগঠনের জন্য উৎসর্গ করে দিয়েছি। দীর্ঘসময় ধারাবাহিক কমিটি না দেয়ায় একটা বড় গ্যাপ তৈরি হয়েছে। সেই গ্যাপটা হঠাৎ পূরণ করতে গিয়ে যদি ধারাবাহিক কমিটি ঘোষণা করা না হয় তবে ছাত্রদল দুর্বল হয়ে পড়বে।

তিনি বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে আমরা বিরোধী দলে। তাই আন্দোলন সংগ্রামের কথা মাথায় রেখে এবং ছাত্রদলকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আমরা ছাত্রদলের ধারাবাহিক কমিটি চাই। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন তিনি।

সদ্যবিলুপ্ত ঘোষণা করা ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আজম সৈকত বলেন, ‘আমরা শহীদ জিয়ার আদর্শের সৈনিক। আজ আমাদের যেখানে সরকারবিরোধী আন্দোলনে রাজপথে থাকার কথা সেখানে আমরা আমাদের দলীয় অধিকার আদায়ের জন্য পার্টি অফিসের সামনে অনশন করছি। এটা আমাদের জন্য খুব কষ্টদায়ক।’

ছাত্রদলের এই নেতা মনে করেন, ছাত্রদলকে দুর্বল করতে এবং সরকারবিরোধী আন্দোলনকে বাধাগ্রস্ত করতে একটি কুচক্রী মহল ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে তামাশা করছে। তিনি বলেন, ছাত্রদলকে নিয়ে যে অবৈধ প্রেস রিলিজ দেয়া হয়েছে তা আমরা মানি না। অবিলম্বে আমরা এই অবৈধ প্রেস রিলিজ প্রত্যাহার ও ধারাবাহিক কমিটির দাবি জানাচ্ছি।

বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বায়েজিদ আরেফিন বলেন, ‘ছাত্রদলকে শক্তিশালী করতে হলে আমাদের দাবি মানতে হবে।’




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
Close --> এক স্কুলের তিন শিক্ষকের ডাবল চাকরি! - dainik shiksha এক স্কুলের তিন শিক্ষকের ডাবল চাকরি! সনদ বিক্রিতে অভিযুক্ত বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখার বৈধতা দেয়ার উদ্যোগ - dainik shiksha সনদ বিক্রিতে অভিযুক্ত বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখার বৈধতা দেয়ার উদ্যোগ বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি অবমাননার অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত - dainik shiksha বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি অবমাননার অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত প্রাথমিকে ১৮ হাজার শিক্ষক নিয়োগের ফল ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে - dainik shiksha প্রাথমিকে ১৮ হাজার শিক্ষক নিয়োগের ফল ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব লাইভে শিক্ষার হাঁড়ির খবর জানুন রাত আটটায় - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব লাইভে শিক্ষার হাঁড়ির খবর জানুন রাত আটটায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেয়াল ঘেঁষে তৈরি করা মার্কেট অপসারণের নির্দেশ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেয়াল ঘেঁষে তৈরি করা মার্কেট অপসারণের নির্দেশ এমপিও পুনর্বিবেচনা কমিটির সভা ১৫ ডিসেম্বর - dainik shiksha এমপিও পুনর্বিবেচনা কমিটির সভা ১৫ ডিসেম্বর জেএসসি-জেডিসির ফল ৩১ ডিসেম্বর - dainik shiksha জেএসসি-জেডিসির ফল ৩১ ডিসেম্বর লিফলেট ছড়িয়ে সরকারি স্কুল শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য, ভর্তির গ্যারান্টি! - dainik shiksha লিফলেট ছড়িয়ে সরকারি স্কুল শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য, ভর্তির গ্যারান্টি! ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনীর ফল বছরের শেষ দিনে - dainik shiksha প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনীর ফল বছরের শেষ দিনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া দৈনিকশিক্ষার ফেসবুক লাইভ দেখতে আমাদের সাথে থাকুন প্রতিদিন রাত সাড়ে ৮ টায় - dainik shiksha দৈনিকশিক্ষার ফেসবুক লাইভ দেখতে আমাদের সাথে থাকুন প্রতিদিন রাত সাড়ে ৮ টায় শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন please click here to view dainikshiksha website