দ্বিতীয় ধাপে কম্পিউটার শিক্ষক পদে সুপারিশ পেলেন ৪৮৪ প্রার্থী - শিক্ষক নিবন্ধন - Dainikshiksha


দ্বিতীয় ধাপে কম্পিউটার শিক্ষক পদে সুপারিশ পেলেন ৪৮৪ প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

প্রথম চক্রের দ্বিতীয় ধাপে ৪৮৪ প্রার্থীকে আইসিটি বিষয়ে সহকারী শিক্ষক পদে সুপারিশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। গত ৭ মে ৫১৪ জন প্রার্থীকে দ্বিতীয় ধাপের সুপারিশ করা হলেও জেলা, উপজেলা ও বিভাগীয় মেধাতালিকা অনুসরণ না করায় তা স্থগিত করা হয়েছিল। ভুল সংশোধন করে প্রথম চক্রের দ্বিতীয় ধাপে আইসিটি বিষয়ের ৪৮৪টি সহকারী শিক্ষক পদে প্রার্থীদের নিয়োগ সুপারিশ করা হয়েছে। এছাড়া প্রথম চক্রের প্রথম ধাপে স্থগিত রাখা ৪৭টি পদের ১১টিতে প্রার্থী সুপারিশ করা হয়েছে। বুধবার (২৯ মে) এনটিআরসিএর একাধিক কর্মকর্তা দৈনিক শিক্ষাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।  

জানা গেছে, ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দে প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী নিয়োগের সুপারিশ প্রক্রিয়াকে প্রথম চক্র হিসেবে আখ্যায়িত করছে এনটিআরসিএ। আর ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের নিয়োগ সুপারশি প্রক্রিয়াকে বলা হচ্ছে দ্বিতীয় চক্র। প্রথম চক্রের প্রথম ধাপের নিয়োগ সুপারিশ অনুযায়ী কিছু প্রার্থী যদি যোগদান না করায় সেই শূন্য পদে দ্বিতীয় ধাপে নিয়োগ সুপারিশ করা হয়েছে।

এনটিআরসিএর কর্মকর্তারা দৈনিক শিক্ষাকে জানান, ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দে ১ম নিয়োগ চক্রে নেয়া আবেদনের ভিত্তিতে ১০৯৫টি কম্পিউটার বিষয়ে সহকারী শিক্ষকের শূন্য পদে হাইকোর্টের রায়ের নির্দেশনা অনুযায়ী গত ১০ জানুয়ারি প্রার্থীদের নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছিল। পরবর্তীকালে ২য় নিয়োগ চক্রে শিক্ষক নিয়োগের জন্য হাইকোর্টে দায়ের করা ১৬৬টি মামলার একীভূত রায় এবং ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের জনবলকাঠামো ও এমপিও নীতিমালা অনুযায়ী প্রার্থীদের নিয়োগ সুপারিশের তালিকা গত ২৪ জানুয়ারি প্রকাশ করা হয়। কর্মকর্তারা আরও জানান, প্রথম নিয়োগ চক্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ ডিসেম্বর জারি করা পরিপত্র অনুসারে মহিলা কোটার পরিপত্র অনুসরণ করে সুপারিশ প্রক্রিয়াকরণ করা হয়েছে। কিন্তু দ্বিতীয় নিয়োগ চক্রে সম্মিলিত জাতীয় মেধা তালিকা এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে মহিলা কোটার পরিপত্র অনুসরণ করে সুপারিশ প্রক্রিয়াকরণ হয়েছে। গত ২৪ জানুয়ারি ২য় চক্রের নিয়োগ সুপারিশ প্রক্রিয়াকরণের পর গত ৭ মে ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দের প্রথম চক্রের দ্বিতীয় ধাপে কম্পিউটার বিষয়ের সহকারী শিক্ষকের ৫১৪টি শূন্য পদে প্রার্থীদের সুপারিশ করা হয় এবং সুপারিশকৃতদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। এ তালিকায় ভুলে উপজেলা, জেলা বা বিভাগীয় মেধাতালিকা অনুসরণ না করে সম্মিলিত জাতীয় মেধা তালিকা অনুসরণ করা হয়েছিল। ভুল বুঝতে পারার সাথে সাথে কম্পিউটার বিষয়ের সহকারী শিক্ষকের ৫১৪ টি পদে নিয়োগ সুপারিশ স্থগিত করা হয়েছে। ভুল হওয়ায় সে সুপারিশটি বাতিল করা হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানান, ভুল সংশোধন করে কম্পিউটার বিষয়ের সহকারী শিক্ষকের ৫১০টি শূন্য পদের প্রেক্ষিতে ৪৮৪ জন প্রার্থীকে নিয়োগ সুপারিশ করা হয়েছে। সুপারিশ পাওয়া প্রার্থীদের তালিকা (http://ngi.teletalk.com.bd) ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। প্রার্থীরা তাদের ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে সুপারিশ দেখে নিতে পারবেন। এছাড়া প্রার্থীদের যোগদানে কোনো প্রকার বাধা দেয়া হলে সংশ্লিষ্ট জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানাতে বলা হয়েছে।    




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না - dainik shiksha ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ - dainik shiksha পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে - dainik shiksha ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা - dainik shiksha প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা - dainik shiksha কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website