পরীক্ষার্থীর অ্যাডমিট কার্ডে অমিতাভ বচ্চনের ছবি! - বিবিধ - Dainikshiksha


পরীক্ষার্থীর অ্যাডমিট কার্ডে অমিতাভ বচ্চনের ছবি!

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ডে এক পরীক্ষার্থীর নিজের ছবির পরিবর্তে বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের ছবি দিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অদ্ভুত এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের ফৈজাবাদ জেলায়। সেখানকার ড. রাম মনোহর লোহিয়া অবধ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে এই গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে। 

ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন রাজ্যটির গোন্ডা জেলায় অবস্থিত রবীন্দ্র সিং স্মারক মহাবিদ্যালয়ের বি. এড (ব্যাচেলর অব এডুকেশন)-এর শিক্ষার্থী অমিত দ্বিবেদী জানান, ‘দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষার জন্য আমি আমার নিজের ছবি দিয়েই অ্যাডমিট কার্ডের ফর্ম পূরণ করেছিলাম। কিন্তু অ্যাডমিট কার্ডে আমার ছবির পরিবর্তে অমিতাভ বচ্চনের ছবি লাগানো হয়েছে। এরপর আরও কিছু নথি জমা দেওয়ার পর আমাকে পরীক্ষায় বসার অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু আমার কাছে এখন সবচেয়ে বড় চিন্তার বিষয় হল- আমার রেজাল্টেও আমরা ছবির বদলে তাঁর (অমিতাভ) ছবি না লাগিয়ে দেয়!’
 
যদিও রবীন্দ্র সিং স্মারক কলেজ কর্তৃপক্ষ এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি। কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সম্ভবত ওই শিক্ষার্থী সাইবার ক্যাফে থেকে ফর্ম ফিলাপ করেছিল, তাই হয়তো সেখানেই কোনো ভুল হয়ে থাকতে পারে।


  
ওই কলেজের সিনিয়র কর্মকর্তা গুরপ্রেন্দ্রা মিশ্র জানান, ‘অমিত আমাদের কলেজের নিয়মিত শিক্ষার্থী। পরীক্ষার জন্য সে সব নিয়মই পালন করেছে। সাইবার ক্যাফে থেকেই কোন গন্ডগোল হয়ে থাকতে পারে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে কোন ভুল হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে যে কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে, সেখানকার প্রিন্সিপালকে আমরা সম্পূর্ণ বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছি। পাশাপাশি ওই শিক্ষার্থী যাতে নির্ভুল রেজাল্ট হাতে পায়, সেটা নিশ্চিত করার জন্যও আমাদের পক্ষে চেষ্টার কোন ত্রুটি করা হবে না।’ 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
আলিমের নম্বর বণ্টন প্রকাশ - dainik shiksha আলিমের নম্বর বণ্টন প্রকাশ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ৯০৯ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ৯০৯ শিক্ষক সরকারি হল আরও ৪৩ প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha সরকারি হল আরও ৪৩ প্রতিষ্ঠান পদোন্নতি পাচ্ছেন সরকারি হাইস্কুলের সাড়ে পাঁচ হাজার শিক্ষক - dainik shiksha পদোন্নতি পাচ্ছেন সরকারি হাইস্কুলের সাড়ে পাঁচ হাজার শিক্ষক বিশেষ মঞ্জুরীর টাকার আবেদন করা যাবে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha বিশেষ মঞ্জুরীর টাকার আবেদন করা যাবে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত টেস্টে ফেল করলে পাবলিক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না - dainik shiksha টেস্টে ফেল করলে পাবলিক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না শূন্যপদের চাহিদা পাঠানোর সময় ফের বাড়ল - dainik shiksha শূন্যপদের চাহিদা পাঠানোর সময় ফের বাড়ল দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website