পর্যায়ক্রমে শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ করা হবে : শিক্ষা উপমন্ত্রী - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা


পর্যায়ক্রমে শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ করা হবে : শিক্ষা উপমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

পর্যায়ক্রমে মাদরাসা শিক্ষাসহ পুরো শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। তিনি বলেন, এক সময় আমরা শিক্ষার প্রসারের ওপর গুরুত্ব দিয়েছি এবং সফল হয়েছি। এই মুহুর্তে আমরা শিক্ষার গুণগত মান এবং অবকাঠামো উন্নয়নে জোর দিচ্ছি। এ ক্ষেত্রে যখন সফল হব তখন পর্যায়ক্রমে মাদরাসা শিক্ষাসহ সকল শিক্ষা ব্যাবস্থাকে জাতীয়করণ করব। 

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর বসিলায় ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাদরাসায় উচ্চ শিক্ষা ব্যাবস্থার  উন্নয়ন শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী। 

শিক্ষা উপমন্ত্রী আরও বলেন, এই মুহুর্তে নৈতিকতার অভাব সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। যারা ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে পেশাগত জীবনে এসেছেন, তারা নৈতিক হবেন; দেশ ও সমাজ তাই আশা করে। ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত আলেম সমাজকে সর্বোচ্চ নৈতিক হওয়ার আহ্বান জানান শিক্ষা উপমন্ত্রী।

মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, শারীরিক শাস্তি এক ধরনের ফৌজদারি অপরাধ। শৃঙ্খলা বিধানের নামে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের শারীরিক শাস্তি দেয়া উচিত নয়। তা কোন ভাবেই মেনে নেয়া হবে না।

ইসলামি আরবি  বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মুহাম্মাদ আহসান উল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সফিউদ্দিন আহমদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, নতুন নতুন বিষয়ে অনার্স চালু না করে শিক্ষায় কোয়ালিটির উপর বেশি নজর দিতে হবে। তিনি আরও বলেন, এত সুযোগ সুবিধা থাকা সত্ত্বেও আমরা কোয়ালিটির উপর নজর দিতে পারছি না। প্রধানমনন্ত্রী যে আশা নিয়ে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছেন সে আশা অনুযায়ী মান সম্পন্ন শিক্ষার্থী তৈরি হবে এবং তারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে দেশ ও জাতির উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। তিনি আরও বলেন, ইসলামিক দেশগুলোতে যেসব বিষয়ের চাহিদা রয়েছে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় যেন সেদিকে বিশেষ নজর দেয়।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৯১১ - dainik shiksha করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৯১১ করোনা আক্রান্ত শিক্ষকদের তালিকা চেয়েছে অধিদপ্তর - dainik shiksha করোনা আক্রান্ত শিক্ষকদের তালিকা চেয়েছে অধিদপ্তর ৮ জুনের মধ্যে শিক্ষক-কর্মচারীদের তালিকা চেয়েছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড - dainik shiksha ৮ জুনের মধ্যে শিক্ষক-কর্মচারীদের তালিকা চেয়েছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড নটরডেম-হলিক্রসে ভর্তি ২০ জুনের মধ্যে - dainik shiksha নটরডেম-হলিক্রসে ভর্তি ২০ জুনের মধ্যে উপবৃত্তি নগদায়নে অতিরিক্ত টাকা আদায়: শিওরক্যাশের বিরুদ্ধে অভিভাবকদের ক্ষোভ - dainik shiksha উপবৃত্তি নগদায়নে অতিরিক্ত টাকা আদায়: শিওরক্যাশের বিরুদ্ধে অভিভাবকদের ক্ষোভ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অফিস খোলার আদেশ জারি - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অফিস খোলার আদেশ জারি দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে - dainik shiksha দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে - dainik shiksha এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website