পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একই নিয়মে নিয়োগ পদোন্নতি হবে: শিক্ষামন্ত্রী - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha


পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একই নিয়মে নিয়োগ পদোন্নতি হবে: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন,পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক নিয়োগের একটি অভিন্ন নীতিমালা প্রণয়ন করা হবে। এজন্য সবার মতামত নেয়া হয়েছে। এর ভিত্তিতে চুড়ান্ত নীতিমালা প্রণীত হবে। সব বিশ্ববিদ্যালয়ে একই নিয়মে নিয়োগ ও পদোন্নতি হবে। বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো গড়ে তুলতে হবে। প্রচলিত ধারা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে আস্তে আস্তে বের করে আনতে হবে।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যারয় মঞ্জুরী কমিশনের আয়োজিত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের শিক্ষক নিয়োগ পদোন্নতি বা পদোন্নয়নের অভিন্ন নীতিমালা বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, অভিন্ন শিক্ষক নিয়োগ, পদোন্নতি/পদোন্নয়ন নীতিমালা চুড়ান্ত করা হবে। আলোচনার মাধ্যমে সকলের মতামত যাচাই ও তুলনা করা সম্ভব হয়েছে। উপাচার্যরা অভিজ্ঞতার আলোকে মতামত দিয়েছেন। এর ভিত্তিতে এ বিষয়ে গঠিত কমিটি নীতিমালা চুড়ান্ত করবে। এ নীতিমালা বাস্তবায়িত হলে শিক্ষক নিয়োগে স্বচ্ছতা আরো বৃদ্ধি পাবে এবং যোগ্যতম প্রার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পাবেন। 

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষার্থীরা শিক্ষকদের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে। তাই যুগের সাথে তাল মিলিয়ে শিক্ষকদের মানসিকতার পরিবর্তন করা দরকার। তিনি আরও বলেন, যে শিক্ষা কাজে লাগে না তা অর্থহীন। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গবেষণা, জ্ঞান চর্চা এবং নতুন জ্ঞান সৃষ্টির মাধ্যমে কর্মমুখী শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আবদুল্লাহ আল হাসান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অুনষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান। 

সভাপতির বক্তব্যে অতিরিক্ত সচিব আবদুল্লাহ আল হাসান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের শিক্ষক নিয়োগ পদোন্নতি বা পদোন্নয়নের অভিন্ন নীতিমালাটি পরিমার্জনের জন্য অনেকেই প্রস্তাব দিয়েছেন। নীতিমালাটি পরিমার্জিত হলে প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি সাপেক্ষে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

   

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ইউজিসি চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান বলেন, বিশ্বায়নের যুগে প্রতিযোগিতামূলক বাজারে টিকে থাকতে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সাথে মঞ্জুরী কমিশন এখন আরও সম্পৃক্ত। বাংলাদেশের উচ্চ শিক্ষা বিশ্বমানে পৌঁছে দিতে চাই। তাই বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গবেষণায় বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি এ এস এম মাকসুদ কামাল এবং ইউজিসির সদস্য ড. মো. আখতার হোসেন বক্তব্য দেন। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন এবং এ বিষয়ে তাদের মতামত তুলে ধরেন।  




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
এইচএসসির টেস্ট পরীক্ষার ফল ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকাশের নির্দেশ - dainik shiksha এইচএসসির টেস্ট পরীক্ষার ফল ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকাশের নির্দেশ ১ জুলাই থেকে পাঁচ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট কার্যকরের আদেশ অর্থ মন্ত্রণালয়ের - dainik shiksha ১ জুলাই থেকে পাঁচ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট কার্যকরের আদেশ অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিজয় দিবসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার নির্দেশ - dainik shiksha বিজয় দিবসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার নির্দেশ স্ত্রীর মৃত্যুতে আজীবন পেনশন পাবেন স্বামী - dainik shiksha স্ত্রীর মৃত্যুতে আজীবন পেনশন পাবেন স্বামী বদলে যাচ্ছে বাংলা বর্ষপঞ্জি - dainik shiksha বদলে যাচ্ছে বাংলা বর্ষপঞ্জি ২০ হাজার টাকায় শিক্ষক নিবন্ধন সনদ বিক্রি করতেন তারা - dainik shiksha ২০ হাজার টাকায় শিক্ষক নিবন্ধন সনদ বিক্রি করতেন তারা অকৃতকার্য ছাত্রীকে ফের পরীক্ষায় বসতে দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha অকৃতকার্য ছাত্রীকে ফের পরীক্ষায় বসতে দেয়ার নির্দেশ আইডিয়াল স্কুলে ভর্তি ফরম বিতরণ শুরু - dainik shiksha আইডিয়াল স্কুলে ভর্তি ফরম বিতরণ শুরু নির্বাচনের সঙ্গে পেছাল সরকারি স্কুলের ভর্তি - dainik shiksha নির্বাচনের সঙ্গে পেছাল সরকারি স্কুলের ভর্তি শিক্ষকদের অন্ধকারে রেখে দেড় লাখ কোটি টাকার প্রকল্প! - dainik shiksha শিক্ষকদের অন্ধকারে রেখে দেড় লাখ কোটি টাকার প্রকল্প! দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website