প্রেমপত্র লেখায় ২ শিশুকে হাত-পা বেঁধে শাস্তি দিলেন শিক্ষক - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা


প্রেমপত্র লেখায় ২ শিশুকে হাত-পা বেঁধে শাস্তি দিলেন শিক্ষক

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

শ্রেণিকক্ষে প্রেমপত্র লেখায় দুই শিশুকে দড়ি দিয়ে হাত-পা বেঁধে শাস্তি দিয়েছে এক নারী প্রধান শিক্ষক! এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানাজানি হওয়ার পর ওই শিক্ষকের শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৯ নভেম্বর) এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের অনন্তপুর জেলার কাদিরি শহরে। আনন্দবাজার পত্রিকার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়। 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শাস্তি পাওয়া ওই দুই ছাত্রের এক জন তৃতীয় ও অন্যজন পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে।

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ক্লাসের পড়াশোনায় নাকি মনযোগ ছিল না তাদের। তাই তাদের হাত-পা দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখা হয় বেঞ্চের পায়ার সঙ্গে।

এদিকে এ ঘটনার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে শাস্তির দাবিও তুলেছেন অনেকেই। 

তবে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার অভিযোগ, এক ছাত্র ক্লাসে বসেই প্রেমপত্র লিখছিল। অন্যজন তার সহপাঠীর জিনিস কেড়ে নিয়েছিল।

তার দাবি, আমি ওদেরকে বেঁধে রাখিনি। ওদের মায়েরা ওদেরকে বেঁধে রেখেছিল। কিন্তু স্কুলের মধ্যে কী করে দু’জন ছাত্রকে বেঁধে রাখতে দেয়া হল? এই প্রশ্নের কোনো জবাব দিতে পারেননি ওই শিক্ষিকা।

এদিকে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের শিশু অধিকার রক্ষা কমিশন।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে টেকনিক্যাল কমিটি কাজ করছে - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে টেকনিক্যাল কমিটি কাজ করছে ইবির নতুন উপাচার্য শেখ আব্দুস সালাম - dainik shiksha ইবির নতুন উপাচার্য শেখ আব্দুস সালাম শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) - dainik shiksha আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব জাল নিবন্ধন সনদে এমপিওভুক্তি : প্রভাষক-অধ্যক্ষের বেতন বন্ধ - dainik shiksha জাল নিবন্ধন সনদে এমপিওভুক্তি : প্রভাষক-অধ্যক্ষের বেতন বন্ধ মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি - dainik shiksha মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত - dainik shiksha ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! - dainik shiksha জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি - dainik shiksha কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি please click here to view dainikshiksha website