বখাটের উৎপাতে ছাত্রীর স্কুলে যাওয়া বন্ধ, মামলা - বিবিধ - Dainikshiksha


বখাটের উৎপাতে ছাত্রীর স্কুলে যাওয়া বন্ধ, মামলা

সখীপুর ( টাঙ্গাইল ) প্রতিনিধি |

টাঙ্গাইলের সখীপুরে আসাদুল ইসলাম নামে এক বখাটের উপদ্রবে দশম শ্রেণির এক আদিবাসী ছাত্রী ১৫ দিন ধরে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। উপজেলার ঘাটেশ্বরী এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত বখাটে আসাদুল ইসলাম সে এলাকার শবদুল মিয়ার ছেলে।

গত বৃহস্পতিবার ছাত্রীর মা থানায় অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) আসাদুল ইসলাম নামের ওই যুবকের বিরুদ্ধে সখীপুর থানায় মামলা হয়েছে। স্কুলছাত্রী বলেন, আমি লেখা-পড়া করব। সবার মতো করে স্কুলে যাওয়ার পরিবেশ চাই।
 
পুলিশ জানায়, বহেড়াতৈল গণ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে স্কুলে যাওয়ার পথে আসাদুল ইসলাম নামের এক যুবক উত্ত্যক্ত করে। একা পেয়ে নানা কুপ্রস্তাব দিত। সে রাজি না হওয়ায় ফেসবুকে প্রেমিকা হিসেবে অখ্যা দিয়ে অশ্লীল ছবি পোস্ট করে নানা রকম ভয় দেখাত। এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হওয়ায় আদিবাসী মেয়েটি স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। 

স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাদেকুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি তার বাবা মা আমাকে জানিয়েছেন। আমি ছেলেটাকে শাসন করার চেষ্টা করেছি। ছাত্রীর পরিবার এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছে।

ছাত্রীর মা মিনতি রানী বলেন, আমরা আদিবাসী এবং গরীব। তাই এর উপযুক্ত বিচার পেতে থানায় মামলা করেছি। ছেলেটি নেশাখোর। তাই ভয়ে মেয়েকে স্কুলে পাঠাই না।

সখীপুর থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এসআই) গোলাম রাব্বানী বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। বখাটেকে আটক করতে চেষ্টা চলছে




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি - dainik shiksha নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত - dainik shiksha ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website