আমাদের সঙ্গে থাকতে দৈনিকশিক্ষাডটকম ফেসবুক পেজে লাইক দিন।


বাণিজ্যিক কোচিং-গাইড বই নিষিদ্ধের দাবিতে মানববন্ধন 

নিজস্ব প্রতিবেদক | আগস্ট ১২, ২০১৭ | সমিতি সংবাদ

সকল বাণিজ্যিক কোচিং বন্ধ এবং পাঠ্যপুস্তকের বাইরের নোট ও গাইড বই নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছে শিক্ষক অধিকার ফোরাম নামের একটি সংগঠন।

শনিবার ( ১২ আগস্ট) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

প্রায় ঘণ্টাব্যাপীর এ মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে বক্তারা বলেন, বর্তমানে শিক্ষার্থীরা ক্লাসে মনোযোগী নয়। তারা রঙ-বেরঙের কোচিংয়ে ছুটছে। কোচিংয়ের পড়ার চাপে তারা স্কুলের পড়া প্রস্তুত করতে সময় পায় না। পিইসি এবং জেএসসি পরীক্ষার তিন মাস আগে থেকে স্কুলগুলোতে উপস্থিতি কমে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন বাণিজ্যিক কোচিংয়ে মডেল টেস্ট দিতে ব্যস্ত। ফলে শিক্ষার মান কমে যাচ্ছে।

তারা বলেন, সরকার নোট, গাইড নিষিদ্ধ করছে। তারপরও বাজারে প্রকাশ্যে গাইড বিক্রি হচ্ছে। শিক্ষক গাইড পড়ালে তার জেল-জরিমানার বিধান রয়েছে। কিন্তু গাইড কোম্পানির বিরুদ্ধে সরকারের কোনো নজরদারি নেই।

ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় শিক্ষকদের হয়রানি করা হচ্ছে অভিযোগ করে মানববন্ধন থেকে বলা হয়, কয়েকদিন ধরে শিক্ষকদের বাসা-বাড়িতে গিয়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। তারা কোচিং করছে কি না সে তথ্য নেয়া হচ্ছে। অথচ বিভিন্ন কোম্পানি কোচিং বাণিজ্য করছে, প্রশ্ন ফাঁস করছে। তাদের বিরুদ্ধে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না।

মানববন্ধনের বক্তারা আরও বলেন, সরকার শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি করলেও, সে অর্থ বাড়িওয়ালাদের পকেটে চলে যাচ্ছে। শিক্ষকরা কোনো মতে জীবন নির্বাহ করছে। বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন কার্যকর করা হচ্ছে না। অথচ শিক্ষা আইন পাস করার আগেই শিক্ষকদের হয়রানি করা হচ্ছে। শিক্ষা আইন পাস করার আগে বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন কার্যকর করতে হবে।

শিক্ষক অধিকার ফোরামের আহ্বায়ক মো. রাসেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- রফিকুল ইসলাম জাহিদ, মো. আতিকুর রহমান, মো. শাহ আলম, মো. রাকিবুল হাসান, মো. ফয়সল শামীম, কামরুল ইসলাম, খন্দকার জুয়েল, কামরুজ্জামান, মো. ফারুক হোসেন প্রমুখ।

মন্তব্যঃ ১৮টি
  1. বিপ্রদাস বিশ্বাস says:

    Well good step. wellcome.

  2. শাহ্‌ আলম (চলনবিল থেকে) says:

    শাসনেরও একটা সীমা আছে। এই সব খালামনির জন্য সারাদেশের শিক্ষকরা চাকরি হারানোর হুমকি নিয়ে শিক্ষকতা করছেন। এদের জন্য বিদ্যালয় থেকে সরকার শাসন তুলে দিয়েছে। আর ফলাফল হল ছাত্র-ছাত্রী আজ মেধাশুন্য বললেই চলে। একটি ছাত্র-ছাত্রী মাসের পর মাস পড়া তৈরি করে আসে না তবু শিক্ষক তার হওয়ার জন্য কোন ব্যবস্থা নিতে পারেন না। আর এই অবস্থার জন্য সীমা ছাড়িয়ে যাওয়া এই খালামনি আর খালুজান শিক্ষকরাই দায়ী।

  3. Nurul islam says:

    Eto taka poysa khoroch kore English,biggan teacher lav ki? kom taka khoroch kore Somaj/Dhorm teacher valo! Ta hole porikkha pasher jonno tention korte hotona.

  4. Nurul islam says:

    Eto taka poysa khoroch kore English,biggan teacher hoye lav ki? kom taka khoroch kore Somaj/Dhorm teacher hole e to valo! Ta hole porikkha pasher jonno kono tention korte hoton a.

  5. Dr. Md. Fazlul Haque Rokon says:

    yes company coaching bondho korun, lokkho lookho chelemeyera oisob coaching centre e gie obivabokder orther opocho korche,
    konovabei sikkhokder bethon bareni, je poriman takar onko bereche, drobbo mullo thik se vabei bereche, oporontho MPO vuktho sikkhok der 5% ar dilo na sarkar , eta bod hoy sikkhok somajer opoman. sikkhok-der opoman korle je lekakha porar man barbe na, etai savabik.

  6. Bipradas shil.Lecturer Ag, BAF Shaheen College,Tangail. says:

    শিক্ষকের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে গাইডবই নিষিদ্ধ করা উচিত।

  7. Ziabul Hoque says:

    চট্টগ্রাম হাটাহাজারি কোচিং জমজমাট

  8. Krishno,Thakurgaon says:

    OK, Teachers should be written in different compositions

  9. G M Rasul says:

    Coaching centre must be stopped immediately

  10. মিজানুর রহমান।। বদরগন্জ ডিগ্রী কলেজ,চুয়াডাঙ্গা। says:

    যারা গাইড ছাপে তাদের ধরুন।গোড়া থেকে বন্ধ করুন।।আর অবকাঠামো ঠিক করে সব বন্ধ করে দিন।।

  11. মোস্তাফিজার রহমান সহঃশিঃ রংপুর। says:

    স্যার,আপনারা তো ক্লাস নেওয়ার সময় পান্না। C.Q ও শি খান না। তাহলে ছাত্ররা কোথায় শিখবে? শিখার জন্য চীন দেশে যাওয়া যায়, কোচিং নয় কেন? কোচিং বন্ধ হলে দেখবেন ফলাফল কোথায় গিয়ে দারায়। কোচিং বন্ধ নয় নীতিমালা কার্যকর করা দরকার।

  12. Shuvo says:

    কোচিং বন্ধ একটা ভালো উদ্দ্যোগ, তবে শুধু শিক্ষকদের কেন ডাক্তার দের টাও হওয়া উচিত। শিক্ষক তো তবুও দৈনিক ১-২ ঘন্টা করে পড়িয়ে মাসে ৩০০-৫০০ টাকা নেয়। আর প্রাইভেটে ডাক্তার রা ৩-৫ মিনিটে ৫০০, ১০০০, ২০০০ টাকা নিচ্ছে। সরকারি হাসপাতালের ডাক্তাররা এখন হাসপাতালে রুগী দেখেনা দেখে চেম্বারে। যত পারছে গরিবের টাকা দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে চুষে নিচ্ছে। এই টেষ্ট সেই টেষ্ট……. এদের দেখার কি কেও নেই!!!! সারাজীবন কি দুর্বলের উপরই অত্যাচার হবে???

  13. Shuvo says:

    কোচিং বন্ধ একটা ভালো উদ্দ্যোগ, তবে শুধু শিক্ষকদের কেন ডাক্তার দের টাও হওয়া উচিত। শিক্ষক তো তবুও দৈনিক ১-২ ঘন্টা করে পড়িয়ে মাসে ৩০০-৫০০ টাকা নেয়। আর প্রাইভেটে ডাক্তার রা ৩-৫ মিনিটে ৫০০, ১০০০, ২০০০ টাকা নিচ্ছে। সরকারি হাসপাতালের ডাক্তাররা এখন হাসপাতালে রুগী দেখেনা দেখে চেম্বারে। যত পারছে গরিবের টাকা দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে চুষে নিচ্ছে। এই টেষ্ট সেই টেষ্ট……. এদের দেখার কি কেও নেই!!!! সারাজীবন কি দুর্বলের উপরই অত্যাচার হবে???

  14. Mr. Paul says:

    Pagol r chagole desta vore gelo. Sob desh e coaching ashe. Students jodi coaching e jai ,tomra atkabar k? Jara students pai na tara andolon korche….

  15. মো: আইয়ুব আলী says:

    সৃজনশীল পদ্ধতি যতদিন থাকবে নোট,গাইড ও কোচিং এর ব্যবসা ততদিন জমজমাট রবে।

  16. sanu says:

    Time scale is stopped. Mpo teachers are deprived because they have no chance to be promoted.

আপনার মন্তব্য দিন