বাদপড়া ৪ হাজারের বেশি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণের দাবি - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা


বাদপড়া ৪ হাজারের বেশি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বাদপড়া ৪ হাজারের বেশি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণের দাবি জানিয়েছেন শিক্ষকরা। এ দাবি জানিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলার জেলা প্রশাসকদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। একইসাথে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সরকারিকরণের প্রস্তাব পাঠাতে নিরুৎসাহিত করে জারি করা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তির প্রতিবাদ জানিয়েছেন তারা। রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলায় জেলায় মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসকদের মাধ্যমে এ স্মারকলিপি দেয়া হয়।

সংগঠনটির সভাপতি মামুনুর রশিদ খোকন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, পরিসংখ্যানের ভুলের কারণে চার হাজার ১৫৯টি বিদ্যালয় সরকারিকরণের তালিকা থেকে বাদ পড়ে। গত ৬ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, এরই মধ্যে নির্বাচিত ২৬ হাজার ১৯৩টি বিদ্যালয়ের বাইরে আর কোনো বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হবে না। আর কোন স্কুল সরকারিকরণের প্রস্তাব না পাঠাতেও বলা হয় ওই বিজ্ঞপ্তিতে। সংগঠনের পক্ষ থেকে ওই বিজ্ঞপ্তির প্রতিবাদ জানানো হয়েছে স্মারকলিপিতে। একই সাথে বাদপড়া ৪ হাজার ১৫৯টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণের দাবি জানিয়েছি স্মারকলিপিতে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের স্কুলগুলোর জমি সরকারের নামে জমির দলিল করে দেয়া হয়েছে। এই জমি যেহেতু সরকারের নামে রেজিস্ট্রি করে দেয়া হয়েছে যা আর ফেরত পাওয়া সম্ভব নয়। তাই বাদ পড়া বেসরকারি প্রাইমারি স্কুলগুলো সরকারিকরণের দাবি জানিয়েছি আমরা।

শিক্ষকরা জানান, সরকারি হয়নি এমন চার হাজার ১৫৯টি স্কুল রয়েছে। মাঠ পর্যায় থেকে প্রকৃত তথ্য না দেয়ায় এসব স্কুল সরকারি হয়নি বলে দাবি করেন শিক্ষকরা। শিক্ষকরা জানান, সরকারিকরণের প্রক্রিয়ার সময় রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম স্থগিত করায় তারা বেতন-ভাতা, শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি ও টিফিন থেকেও বঞ্চিত হচ্ছেন। বেতন-ভাতা না পেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন শিক্ষকরা। তারপরেও এসব স্কুলের শিক্ষার্থীরা ২০০৯ খ্রিষ্টাব্দ থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছেন বলে দাবি করেন শিক্ষকরা।

শিক্ষকরা জানান, তাদের অনেকেরই চাকরিতে প্রবেশের বয়স অতিক্রান্ত হয়ে গেছে। অধিকাংশ শিক্ষকের অন্যত্র চাকরির আবেদনের সুযোগ নেই। তাই, বাদপড়া ৪ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি করে শিক্ষকদের দুরাবস্থা থেকে মুক্তি দিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেছেন তারা।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
বার্ষিক পরীক্ষা হবে না প্রমোশন পাবে সব শিক্ষার্থী - dainik shiksha বার্ষিক পরীক্ষা হবে না প্রমোশন পাবে সব শিক্ষার্থী ইবতেদায়ি শিক্ষকদের অনুদানের চেক ছাড় - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের অনুদানের চেক ছাড় বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার পক্ষে মন্ত্রণালয় - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার পক্ষে মন্ত্রণালয় টিউশন ফি আদায়ে স্কুল-কলেজগুলোকে নির্দেশনা দেবে অধিদপ্তর - dainik shiksha টিউশন ফি আদায়ে স্কুল-কলেজগুলোকে নির্দেশনা দেবে অধিদপ্তর জেএসসি পরীক্ষা না হলেও সনদ পাবে পরীক্ষার্থীরা - dainik shiksha জেএসসি পরীক্ষা না হলেও সনদ পাবে পরীক্ষার্থীরা প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের আবেদন করবেন যেভাবে - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের আবেদন করবেন যেভাবে অনার্সের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা ছাড়া ডিগ্রি দেয়া ঠিক হবেনা : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha অনার্সের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা ছাড়া ডিগ্রি দেয়া ঠিক হবেনা : শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষক-শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত ভুয়া অভিভাবকরা - dainik shiksha শিক্ষক-শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত ভুয়া অভিভাবকরা বদরুন্নেছা কলেজে চাাঁদাবাজি: করোনাকালে সব ছাত্রীকে হাজির হওয়ার নির্দেশ - dainik shiksha বদরুন্নেছা কলেজে চাাঁদাবাজি: করোনাকালে সব ছাত্রীকে হাজির হওয়ার নির্দেশ please click here to view dainikshiksha website