বোনাসের চেক দেরিতে ছাড়ায় শিক্ষকদের ক্ষোভ - কলেজ - Dainikshiksha


বোনাসের চেক দেরিতে ছাড়ায় শিক্ষকদের ক্ষোভ

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি |

ঈদুল ফিতরের উৎসব ভাতা ও মে মাসের বেতন-ভাতার চেক দেরিতে ছাড় করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বেসরকারি শিক্ষক নেতারা। তারা আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, শিক্ষক-কর্মচারীদের বোনাস ও বেতন উত্তোলনের শেষ দিন ৩ জুন হওয়ায় ঈদের আগে তা ব্যাংক থেকে পাওয়া যাবে না। জেনেশুনে দেরিতে চেক ছাড় করাকে ‘প্রহসন’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন শিক্ষক নেতারা। কারণ হিসেবে নেতারা বলেছেন ব্যাংকগুলো ৪ জুন থেকে ঈদুল ফিতরের বন্ধ থাকবে। আর অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই শেষ দিনে বেতনবিল ব্যাংকে জমা দেয়। শনিবার (২৫ মে) বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বিটিএ) চট্টগ্রাম আঞ্চলিক শাখার নেতারা এক বর্ধিত সভায় এমন মন্তব্য করেন। 

বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসর ও কল্যাণ তহবিলের জন্য বেতন থেকে অতিরিক্ত ৪ শতাংশ চাঁদা কর্তনের আদেশটি বাতিলের দাবি জানিয়েছেন বিটিএ নেতারা। একই সাথে জাতীয় শিক্ষনীতি ২০১০ এর আলোকে মাধ্যমিক শিক্ষা সরকারিকরণের পদক্ষেপ গ্রহণে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন তাঁরা। শনিবার (২৫ মে) চট্টগ্রাম আন্দরকিল্লাস্থ শিক্ষক ভবনে অনুষ্ঠিত বিটিএর আঞ্চলিক শাখার এক বর্ধিত সভা ও ইফতার মাহফিলে এ দাবি জানানো হয়।

চট্টগ্রাম আঞ্চলিক শাখার সভাপতি সৈয়দ লকিতুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও প্রাবন্ধিক শামসুদ্দীন শিশির, বিটিএর কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি রনজিৎ কুমার নাথ, উপদেষ্টা অসিত কুমার লালা, বাদল চন্দ্র সিকদার, শান্তি রঞ্জন চক্রবর্তী, সহসভাপতি গোলামুর রহমান, মো. আমিরুজ্জামান।

শিক্ষক সংগঠনসমূহের প্রতিনিধিদের সাথে কোনোরূপ আলোচনা ছাড়াই অতিরিক্ত ৪ শতাংশসহ মোট ১০ শতাংশ কর্তনের জন্য মহাপরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরকে লিখিত আদেশ দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আদেশের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির নেতারা আন্দোলন করে আসছেন। 

দৈনিক শিক্ষায় পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তাঁরা আরও বলেন, বেসরকারি এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী বর্তমানে ২৫ শতাংশ ঈদ বোনাস পেয়ে থাকেন। তাই, তাঁরা পরিবার-পরিজন নিয়ে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পারেন না। সভায়, শিক্ষাব্যবস্থা সরকারিকরণের দাবি এবং অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের জন্য ১০ শতাংশ চাঁদা কর্তনের আদেশ বাতিল চান শিক্ষক নেতারা। 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
বরিশাল বোর্ডে কর্মচারীদের দুই গ্রুপের হাতাহাতি - dainik shiksha বরিশাল বোর্ডে কর্মচারীদের দুই গ্রুপের হাতাহাতি রায় অমান্য করে মাছুমকে টাইমস্কেল: বরিশাল বোর্ড কর্মচারীদের বিক্ষোভ - dainik shiksha রায় অমান্য করে মাছুমকে টাইমস্কেল: বরিশাল বোর্ড কর্মচারীদের বিক্ষোভ ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে তুলতে হবে উচ্চ মাধ্যমিকের উপবৃত্তি - dainik shiksha ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে তুলতে হবে উচ্চ মাধ্যমিকের উপবৃত্তি প্রকল্পের ৬৩ কর্মচারীকে রাজস্বখাতে পদায়ন - dainik shiksha প্রকল্পের ৬৩ কর্মচারীকে রাজস্বখাতে পদায়ন প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায়ও থাকছে না জিপিএ ৫ - dainik shiksha প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায়ও থাকছে না জিপিএ ৫ এমপিওভুক্তিতে মহিলা কোটার পদ নির্ধারণে শাখাভিত্তিক আলাদা হিসাব নয় - dainik shiksha এমপিওভুক্তিতে মহিলা কোটার পদ নির্ধারণে শাখাভিত্তিক আলাদা হিসাব নয় শিক্ষকের বেতের আঘাতে চোখ হারাল মাদরাসাছাত্র - dainik shiksha শিক্ষকের বেতের আঘাতে চোখ হারাল মাদরাসাছাত্র জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ভর্তির যোগ্যতা নির্ধারণ - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ভর্তির যোগ্যতা নির্ধারণ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website