মেট্রোরেলের জন্য গাছ কেটে ফেলায় ঢাবি ছাত্র ফ্রন্টের ক্ষোভ - ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি - দৈনিকশিক্ষা


মেট্রোরেলের জন্য গাছ কেটে ফেলায় ঢাবি ছাত্র ফ্রন্টের ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

মেট্রোরেলের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে পুষ্টি বিজ্ঞান অনুষদ পর্যন্ত রাস্তার দু’ধারের গাছ কেটে ফেলায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। সোমবার (১৮ মে) সংগঠনটির ঢাবি শাখার সহ সভাপতি সাদেকুল ইসলাম সাদিক এক বিজ্ঞপ্তিতে দৈনিক শিক্ষা ডটকমকে এ তথ্য জানান।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সালমান সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক প্রগতি বর্মন তমা এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে সারা দেশের মানুষ বিপদগ্রস্ত। এ পরিস্থিতিতে বন্ধ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। এই অবস্থার সুযোগ নিয়ে টিএসসি থেকে পুষ্টি বিজ্ঞান অনুষদ পর্যন্ত রাস্তার দু’ধারে অনেক গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষে প্রক্টর গোলাম রাব্বানী গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন ‘মেট্রোরেলের স্টেশন স্থাপন করার জন্য গাছগুলো কাটা হয়েছে।’ তথাকথিত উন্নয়নের জন্য এভাবেই চলে পরিবেশ ধ্বংসের আয়োজন।

তারা বলেন, শুরুতে যখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতর দিয়ে মেট্রোরেলের স্টেশন নিয়ে যাওয়ার প্রস্তাব ছিল তখনই আমরা এর বিরোধিতা করি। কারণ আমরা এ বিষয়ে স্পষ্ট ছিলাম-এর মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ-জনপরিসর ও স্থাপনাসমূহ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ছাত্রদের দাবি ও আন্দোলন অগ্রাহ্য করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতর দিয়ে মেট্রোরেলের রুট নেয়া হলো। উপরন্তু টিএসসি’র পাশে স্থাপন হবে স্টেশন। এ যেন মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা! আমরা বিস্ময়ের সাথে লক্ষ করি, যখনই ক্যাম্পাস বন্ধ থাকে -তখনই এরকম ছাত্রস্বার্থ বিরোধী সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরকম ঘটনা প্রশাসনের চরম অনৈতিক অবস্থানের পরিচায়ক।’

ছাত্র নেতারা আরও বলেন, পৃথিবীর উষ্ণায়ণ বেড়েই চলেছে। ঢাকা শহর দূষণে বিশ্বে শীর্ষে। এই গাছগুলো একদিকে যেমন ছিল সৌন্দর্যের আধার,অন্যদিকে তা পরিবেশের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখতো। সরকারের তথাকথিত উন্নয়ন চলছে নদী, পাহাড়-বন উজাড় করে, পরিবেশ-প্রতিবেশকে সংকটে ফেলে। আর এরই নাম পুঁজিবাদী উন্নয়ন। গাছ কেটে ফেলার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করেছেন, ফেসবুকে নিন্দা জানিয়েছেন। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন এ ঘটনার প্রতিবাদ তো করেইনি, উল্টো সহযোগিতা করেছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এমন অন্যায় কাজের আমরা তীব্র নিন্দা জানাই।

ভবিষ্যতে প্রশাসন যাতে এরকম অন্যায় সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে না পারে সেজন্য শিক্ষার্থী-শিক্ষক-কর্মচারীদের সচেতন থাকার আহ্বান জানান ছাত্র ফ্রন্টের নেতারা।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
করোনায় আরো ৩৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৪২৩ - dainik shiksha করোনায় আরো ৩৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৪২৩ চাষ না করে কৃষি জমি ফেলে রাখলে নিয়ে নেবে সরকার - dainik shiksha চাষ না করে কৃষি জমি ফেলে রাখলে নিয়ে নেবে সরকার পছন্দের শিক্ষকের পাঠদান পাওয়া যাবে মোবাইল ফোনে - dainik shiksha পছন্দের শিক্ষকের পাঠদান পাওয়া যাবে মোবাইল ফোনে লকডাউন উঠানো, না উঠানো নিয়ে যা বললেন এন আই খান (ভিডিও) - dainik shiksha লকডাউন উঠানো, না উঠানো নিয়ে যা বললেন এন আই খান (ভিডিও) শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের তথ্য চেয়েছে মন্ত্রণালয় - dainik shiksha শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের তথ্য চেয়েছে মন্ত্রণালয় নটরডেম কলেজে ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত - dainik shiksha নটরডেম কলেজে ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত জেডিসির রেজিস্ট্রেশনের সময় ফের বাড়ল - dainik shiksha জেডিসির রেজিস্ট্রেশনের সময় ফের বাড়ল কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে ঘরে বসে পাঠদান: শিক্ষকদের জন্য ফ্রি অনলাইন কোর্স - dainik shiksha ঘরে বসে পাঠদান: শিক্ষকদের জন্য ফ্রি অনলাইন কোর্স ৮ জুনের মধ্যে শিক্ষক-কর্মচারীদের তালিকা চেয়েছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড - dainik shiksha ৮ জুনের মধ্যে শিক্ষক-কর্মচারীদের তালিকা চেয়েছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে - dainik shiksha দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে - dainik shiksha এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া উপবৃত্তির টাকা মেরে দেয়ার অভিযোগে মাদরাসার অফিস সহকারীর গলায় জুতার মালা - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা মেরে দেয়ার অভিযোগে মাদরাসার অফিস সহকারীর গলায় জুতার মালা please click here to view dainikshiksha website