২৩১ চিকিৎসক পিএসসির সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েও নিয়োগবঞ্চিত - মেডিকেল - দৈনিকশিক্ষা


২৩১ চিকিৎসক পিএসসির সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েও নিয়োগবঞ্চিত

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েও স্বাস্থ্য ক্যাডারে নিয়োগ পাননি ২৩১ জন চিকিৎসক। বছরের পর বছর এই ডাক্তাররা গেজেটভুক্ত হওয়ার আশায় দিন পার করছেন। দেশে ডাক্তারের সংকট কাটাতে তাদের নিয়োগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন এ চিকিৎসকরা। জানা গেছে, গত ৩২তম বিসিএস থেকে ৩৯তম বিসিএস পর্যন্ত এ ডাক্তাররা লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে পিএসসি তাদের নিয়োগ দিতে সুপারিশ করেছিল। কিন্তু তাদের নিয়োগের জন্য গেজেটভুক্ত করা হয়নি।

এদের মধ্যে ৩২তম বিসিএসে ১১ জন, ৩৩তম বিসিএসে ১১৪ জন, ৩৪তম বিসিএসে ১০ জন, ৩৫তম বিসিএসে ছয়জন, ৩৬তম বিসিএসে পাঁচজন, ৩৭তম বিসিএসে ১৪ জন ও ৩৯তম বিসিএসে ৭১ জন চিকিৎসক রয়েছেন। এ চিকিৎসকরা বলছেন, সরকার সম্প্রতি দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দিয়েছে। আমরা চাই দ্রুত আমাদের নিয়োগ দিয়ে চিকিৎসকের সংকট দূর করা হোক।

৩৭তম বিসিএসে উত্তীর্ণ হয়ে নিয়োগবঞ্চিত এক চিকিৎসক জানান, অনেক চড়াই-উতরাই পার করে বছরের পর বছর পরিশ্রম করে বিসিএসের সব পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হই। কিন্তু আমাদের গেজেটভুক্ত করা হয়নি। ফলে নিয়োগ না পেয়ে সামাজিকভাবে হেয় হওয়ার পাশাপাশি অর্থকষ্টেও রয়েছি আমরা। আমরা চাই দ্রুতই আমাদের নিয়োগের ব্যবস্থা করা হোক।

৩৫তম বিসিএসে উত্তীর্ণ বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত এক চিকিৎসক বলেন, ক্যাডারভুক্ত না হওয়ায় অনেকটা মানবেতর জীবন অতিবাহিত করছি। আমরা চাই দ্রুত আমাদের গেজেটভুক্ত করে পদায়ন করা হোক।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিএস উত্তীর্ণ এক চিকিৎসক জানান, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করলেও বছরের পর বছর দৃশ্যমান কোনো কারণ না দেখিয়ে সমস্যার কোনো সুরাহা করা হয়নি। কারও কারও চাকরির বয়সও পার হয়ে গেছে। তারা বড় সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন।

জানা গেছে, বিসিএসে উত্তীর্ণ হওয়া ও পিএসসির সুপারিশ পাওয়া এ চিকিৎসকদের সম্পর্কে নেতিবাচক প্রতিবেদনের কারণেই তাদের গেজেটভুক্ত করা হয়নি। নিয়োগবঞ্চিত এ চিকিৎসকরা সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী বরাবর এক আবেদন করেন। আবেদনে বলা হয়, নিয়োগবঞ্চিত হয়ে বর্তমানে পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছি। অনেকেই এখনো বেকার রয়ে গেছেন। সুপারিশকৃত হলেও গেজেটভুক্ত না হওয়ায় সামাজিকভাবেও হেয় প্রতিপন্ন হতে হচ্ছে আমাদের। ফলে মানসিকভাবে চরম হতাশার মধ্যে জীবনযাপন করতে হচ্ছে আমাদের। করোনার এ সময়ে ডাক্তাররা সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। স্বাস্থ্য ক্যাডারে গেজেটভুক্ত হয়ে দেশের জন্য লড়াই করতে প্রস্তুত আমরা।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, চিকিৎসকদের এ বিষয়টি নিয়ে আমরা কাজ করছি। এরই মধ্যে অনেককে নিয়োগের নির্দেশও দিয়েছি। তারপরও যাদের প্রজ্ঞাপন হয়নি তাদের সমস্যাটি কীভাবে সমাধান করা যায় তা গুরুত্ব দিয়ে দেখছি।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৩৮১ - dainik shiksha করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২ হাজার ৩৮১ দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে - dainik shiksha দাখিলের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন যেভাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ - dainik shiksha দাখিলে পাস ৮২ দশমিক ৫১ শতাংশ এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ - dainik shiksha এসএসসি ভোকেশনালে পাস ৭২ দশমিক ৭০ শতাংশ ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি - dainik shiksha ১০৪টি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করতে পারেনি এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে - dainik shiksha এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ৭ জুনের মধ্যে এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha এখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না : প্রধানমন্ত্রী ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব - dainik shiksha ৬ জুন থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরুর প্রস্তাব নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ - dainik shiksha নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকা তৈরিতে ৯ নির্দেশ কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha কলেজে ভর্তি : দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত, ৩১ মে থেকে অফিস-আদালত খুলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website