৪ শতাংশ কর্তনের আদেশ অবিলম্বে প্রত্যাহার দাবি ১০ শিক্ষক সংগঠনের - সমিতি সংবাদ - Dainikshiksha


৪ শতাংশ কর্তনের আদেশ অবিলম্বে প্রত্যাহার দাবি ১০ শিক্ষক সংগঠনের

নিজস্ব প্রতিবেদক |

১০ টি শিক্ষক-কর্মচারী সংগঠন সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ শিক্ষক-কর্মচারী  সমিতি ফেডারেশনের এক সভায়  অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের অতিরিক্ত  ৪ শতাংশ চাঁদা কর্তনের আদেশ প্রত্যাহার দাবি জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল)  ড: নূর মোহাম্মদ তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ দাবি জানানো হয়। শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে দৈনিকশিক্ষা ডটকমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সভায় শিক্ষক আন্দোলনের সামগ্রিক পরিস্থিতি  নিয়ে বক্তব্য দেন সংগঠনের সমন্বয়কারী অধ্যক্ষ আসাদুল হক। সভায় অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের ৪ শতাংশ কর্তনের আদেশ প্রত্যাহার করে ৬ শতাংশ কর্তন অব্যাহত রাখার আহবান জানান।

সভায় বক্তারা বলেন, ১০ শতাংশ কর্তনের বিষয়ে সদস্য-সচিবরা যেসব বক্তব্য দিয়েছেন তা শিক্ষক সমাজের স্বার্থের পরিপন্থি।  আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে সুনির্দ্দিষ্ট বক্তব্য তুলে ধরে সাংবাদিক সম্মেলন ও অতিরিক্ত ৪  শতাংশ কর্তনের আদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে  চূড়ান্ত কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ শিক্ষক-কর্মচারী সমিতি ফেডারেশনের আহ্বায়ক ও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি সভাপতি অধ্যক্ষ এম এ আউয়াল সিদ্দিকী, ফেডারেশনের আহ্বায়ক ও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ হোসনে আরা বেগম, শিক্ষক নেতা সৈয়দ জুলফিকার আলম চৌধুরী, অধ্যক্ষ মো: ফয়েজ হোসেন, বিলকিস জামান, মো: মহসীন রেজা, মো: আনসার আলী,  অধ্যক্ষ মো: জাহাঙ্গীর, মো: হাবিবুর রহমান হাবিব, মো: ফখরুদ্দীন জিগার, কাজী আব্দুল লতিফ, বাবু রঞ্জিত কুমার সাহা, অধ্যক্ষ মো: আবু বকর চৌধুরী, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, শেখ মো: আফসার উদ্দিন, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী চৌধুরী।

 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
যুবলীগের দায়িত্ব পেলে ভিসি পদ ছাড়বেন জবি উপাচার্য - dainik shiksha যুবলীগের দায়িত্ব পেলে ভিসি পদ ছাড়বেন জবি উপাচার্য মহিলা এমপির বিএ পরীক্ষা দিচ্ছে আট ভাড়াটে ছাত্রী - dainik shiksha মহিলা এমপির বিএ পরীক্ষা দিচ্ছে আট ভাড়াটে ছাত্রী শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শিক্ষিকাদের যৌন হয়রানির অভিযোগ - dainik shiksha শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শিক্ষিকাদের যৌন হয়রানির অভিযোগ কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? - dainik shiksha কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? বিশ্ববিদ্যালয় তদারকিতে কঠোর হতে ইউজিসিকে বললেন প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয় তদারকিতে কঠোর হতে ইউজিসিকে বললেন প্রধানমন্ত্রী ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রস্তুত - dainik shiksha ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রস্তুত ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website