৪ শতাংশ কর্তন আদেশ বাতিল না হলে ২ মে থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লাগাতার ধর্মঘট - কলেজ - Dainikshiksha


৪ শতাংশ কর্তন আদেশ বাতিল না হলে ২ মে থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লাগাতার ধর্মঘট

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বেসরকারি স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসর সুবিধা ও কল্যাণ তহবিলে অতিরিক্ত ৪ শতাংশ কর্তনের সরকারি আদেশ ৩০ এপ্রিলের মধ্যে বাতিল না হলে আগামী ২ মে থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লাগাতার ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) রাজধানীর মীরপুর সিদ্ধান্ত হাইস্কুলে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (নজরুল) ও এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরামের যৌথসভায় এ কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম রনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় শিক্ষক নেতারা বলেন, একটি অশুভ চক্রের কারণে শিক্ষক-কর্মচারীদের অতিরিক্ত ৪ শতাংশ কর্তন হবে বর্তমান সরকারের জন্য আত্মঘাতীমূলক। তারা আরও বলেন, শিক্ষকদের সাথে কোনো আলোচনা ছাড়াই অতিরিক্ত ৪ শতাংশ কর্তন করা হলে শিক্ষকরা আর ঘরে বসে থাকবে না। অবিলম্বে অতিরিক্ত কর্তনের প্রজ্ঞাপন বাতিলে প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন শিক্ষক নেতারা।

সভায় বক্তব্য দেন সমিতির মহাসচিব মো. মেসবাহুল ইসলাম প্রিন্স, সিনিয়র সহ সভাপতি গাজী মামুন আল জাকীর, অতিরিক্ত মহাসচিব কামরুল খান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব মো. আবুল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম, সহকারী মহাসচিব মো. মঈনুল ইসলাম, সহ সভাপতি মো. মিজানুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যক্ষ মুস্তফা জামান রানা, সহ সভাপতি ড.ফারহানা খানম, লিয়াজোঁ ফোরামের উপদেষ্টা মো. ফিরুজ মিয়া, বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. মঞ্জুরুল আমিন শেখর, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (ঢাকা মহানগর) দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জনাব মো. ইব্রাহিম শিকারী, কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি  মো. আমির হোসেন, প্রেসিডিয়াম সদস্য সুব্রত কুমার ভট্টাচার্য্য, কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্মচারী ফেডারেশনের সম্পাদক মো. বেলায়েত হোসেনসহ প্রমুখ।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
এমপিওভুক্তির দাবিতে ফের রাজপথে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু - dainik shiksha এমপিওভুক্তির দাবিতে ফের রাজপথে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন - dainik shiksha মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? - dainik shiksha কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন - dainik shiksha ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website