মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

মোঃ শাহিদুল ইসলাম, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
স্যার !আপনার লেখা ভালো লাগে, লেখায় পরিবর্তনও আসে । বর্তমানে সৃজনশীলতার নামে কী চলছে? শিক্ষার্থীরা বই পড়ছে না, শিক্ষকমণ্ডলী সৃজনশীল পাঠদানে ব্যর্থ, অভিভাবকরা সৃজনশীল কবে বুঝবে জানিনা।গাইড ব্যবসায়ীরা সহায়তার হাত বাড়িয়ে ১২ টা যেমন বাজিয়েছে তেমনি সবদিকে হায় হায় অবস্থায় গাইড ব্যবসায়ীদের ব্যবসা ভালো না হয়ে উপায় কী? স্যার! আপনাকে অনুরোধ করি, আপনি বিবেচনায় নিলে লিখবেন- সৃজনশীল বাদ দেয়া দরকার নেই। ২০% থাক কিন্তু প্রশ্ন থাকবে দ্বিগুণ, অর্থাৎ ৪ প্রশ্নের ২ টার উত্তরে ২০ নম্বর।পুর্বের ন্যায় প্রশ্ন করা হোক ৪০%, তাতেও সৃজনশীলতা আনার উপায় আছে, খুজতে হবে । জ্ঞান মূলক/ এক কথায় উত্তর লেখার মত প্রশ্ন রাখা হোক ২০% এবং নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন রাখা হোক ২০% । তাহলে শিক্ষার্থীরা আবার বই মূখী হবে, বই মূখী করা না গেলে জাতি ধ্বংস হতে আর বেশি দিন লাগবেনা। স্যার! শিক্ষার্থীদের বই মূখী করার অনেক পদ্ধতি আপনি জানেন তাও বলুন, আমরাও জানি অনেকে অনেক পদ্ধতি কিন্তু স্যার পরীক্ষার জন্যই সবাই পড়ে। মোঃ শহীদুল ইসলাম - প্রধান শিক্ষক, খালিশপুর মাধ্যমিক বিদ্যালোয়
Chanchal kumar mondal, ০৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
স্যার আপনার পদার্থ বই পরিমার্জন করুন। কিছু সহজ বিষয় আপনি অতিরিক্ত ব্যাখা দিয়ে ৯ ম শ্রেণির কোমল মতি শিক্ষার্থীদের মাথা ব্যাথার কারন হয়ে গেছেন। অপরাধ মার্জনা করবেন।আমিও আপনার একজন ভক্ত।