মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

Gobinda Mazumder, ১০ মে, ২০১৯
বদলি নিয়ে অতটা মাথা ব্যথা নেই। আমরা ৪ বছর ধরে যে টাইম স্কেল বা উচ্চতর গ্রেডে বেতন পাচ্ছিনা তার কি হবে। ১ বছর হল ২০১৮-এর নীতিমালা হয়েছে। কিন্তু তার বস্তবায়ন এখনও হলনা। এভাবে নীতিমালার দোহাই দিয়ে আর কত দিন নাটক চালিয়ে যাবেন। পারেনতো যত দ্রুত সম্ভব উচ্চতর গ্রেডে বেতন দিন। খুব মানবেতর জীবন যাপন করছি। দয়া করে এই সব নীতিমালার দোহাই আর দিয়েননা।
Md Azadul Islam, ০১ মে, ২০১৯
বদলির কথা শুনে আনন্দ পেয়েছিলাম কিন্তু নিতীমালা দেখে হরিসে বিশাদ হওয়ার অবস্থ। ভাবতে ইচছা করে বেসরকারি শিক্ষকরা কি পালের গাদা ? এদের নিয়ে এত পরিহাস কেনো৷? তারপরও দেশের আশি শতাংশ শিক্ষার্থীদের শিক্ষক তারাই। এত উপহাস নাকরে তাদের মেরেফেলা ভালো। আর যেনো লিখতে মন চাচ্ছে না। আপনারা ভালো থাকুন এ কামনা করে শেষ করছি।
Md Ibrahim Pathan, ১৯ এপ্রিল, ২০১৯
বদলি নীতি মালা সরকারির আদলে হলে ভালো হবে। মহৎ উদ্দেশ্যে শিক্ষা ব্যবস্থা ভাল করা। ডিজিটাল যুগ ভালোর যুগ। ইনশাআল্লাহ
md.nuruzzaman, ০৩ এপ্রিল, ২০১৯
বদলিরর কথা জেনে শিক্ষক সমাজ খুবই আনন্দিত। কিন্তু যে সমস্যার কারণে বদলি হতে চায় , সে সমস্যা আরো বেশি ঘনিভূত হবে। নিয়োগ ও বদলি যদি কমিটির হাতে থাকে, তাহল কমিটি শিক্ষকদের উপর বিভিন্ন ভাবে প্রভাব বিস্তার করবে । আর এই প্রভাব থেকে নিজেকে নিরাপদ রাখতে শিক্ষকরা বিদ্যালয়ের দায়িত্ব পালন বাদ দিয়ে কমিটির তুষ্ট রাখার চেষ্টা করবে।এর পাশাপাশি ঐ শিক্ষক বিষেশ সুবিধা ভোগ করবে।এমন শিক্ষক প্রতিটা বিদ্যালয়ে ২/৩ জন থাকল, সারা দেশের শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়ন বিদ্বেশিদের মনের মত হবে। বর্তমানে এমন ২/৩ জন শিক্ষক থাকলে ও কিছুটা জবাবদিহিতা আছে।শিক্ষা ব্যবস্থাপনার কেন্দ্রে যারা আছেন ,তারা যদি সত্যিকারে উন্নয়ন চান , তাহলে সরাসরি সেই লক্ষে কাজ করেন । অকারণে পরিবেশ ঘোলাটে করবেননা।তাতে সময় ও অর্থের অপচয় কমবে, উন্নয়ন হবে দ্রুত।
Md.Rabiul Haque, ০২ এপ্রিল, ২০১৯
মোঃরবিউল হক। সহকারী শিক্ষক ষোলদাগ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ভেড়ামারা,কুষ্টিয়া।
Md.Rabiul Haque, ০২ এপ্রিল, ২০১৯
বদলির নীতিমালা প্রণয়ন এর উদ্দ্যোগ নেওয়াতে সাধুবাদ জানাই।তবে বদলিটা পরিঃ কমিটির হাতে নয়।যাদের দিয়ে স্বচ্ছ ভাবে শিক্ষক নিয়োগ হলো তাদের হাতেই হোক।তানাহলে শিক্ষাকরা নাজেহাল হবে,দুর্নীতিবাজরা ঝেকে বসবে,জাতি পিছিয়ে যাবে,সর্বোপরি সরকারের দোষ হবে।আর একটি কথা বলতে চাই,ইসলাম বলে মাকে ফাঁকি দিয়ে বেহেশত পাবেনা, তেমনি শিক্ষকসম্প্রদায়কে ফাঁকি দিয়ে জাতির উন্নতি হবেনা।
Md.Rabiul Haque, ০২ এপ্রিল, ২০১৯
শিক্ষক মানুষ গড়ার কারিগর, এঁদের কে এত অবজ্ঞা করলে জাতি সামনে যেতে পারবে না।পিছিয়ে যাবে। দুর্নীতিবাজরা ঝেকে বসবে।সরকারের দুর্নাম হবে।এনটি আর সিএর হাতে নিয়োগ হচ্ছে,বদলি হলে দোস কি।
Md.Rabiul Haque, ০২ এপ্রিল, ২০১৯
বদলির নীতিমালা তৈরির সিদ্ধান্ত গৃহীত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ।তবে পরিঃ কমিটির হাতে নয়। এতে শিক্ষকরা নাজেহাল হবে,সরকারের দুরনাম হবে।আমলাতন্ত্র কায়েম হবে,দুর্নীতি বৃদ্ধি হবে।জাতি পিছিয়ে যাবে।মাকে ফাকি দিয়ে যেমন বেহেস্ত পাওয়া যাবেনা তেমনিভাবে শিক্ষকসম্প্রদায় কে ফাকিদিয়ে জাতির উন্নতি হবে না।
আবেদ হোসেন, ০২ এপ্রিল, ২০১৯
যদি বদলির ক্ষমতা কমিটির হাতে দেওয়া হয়, তাহলে নতুন করে আবার দুরনীতি আরম্ব হবে কোন সন্দেহ নাই। আমরা শিক্ষকরা আবার দাসতেতর যুগে পা দিতেছি। আমরা কমিটির কাছে পুতুল আপনারা জানেন তারপর ও কেন কমিটিকে ক্ষমতা দিবেন বদলির জন্য।
আব্দুল্লাহ আল মামুন, ০১ এপ্রিল, ২০১৯
আমার মতে এনটিআরসিএ এর মাধ্যমে অনলাইন ভিত্তিক বিভাগীয়, জেলা, থানা কোঠা অনুসারে বদলি নীতি মালা তৈরি করা দরকার। তাতে শিক্ষদের কোন সমস্যা থাকবে না।
মোহাম্মাদ আরিফুল ইসলাম, ০১ এপ্রিল, ২০১৯
সবার প্রথমে ধন্যবাদ দিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি ও সুখী জীবন কামনা করছি তাদের যেসব মহৎ জন বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি নীতি তৈরির জন্য কাজ করছেন তাদের মূল্যবান সময় দিয়ে।
Partha Sarathi Ray, ৩১ মার্চ, ২০১৯
"বদলীর আদেশ বাস্তবায়নের দায়িত্ব বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির হাতেই থাকবে" এর অর্থ হল সেচ্ছাচারীদের আরো স্বেচ্ছাচারিতা করার সুযোগ করে দেয়া। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাবা দাদা অথবা টাকার প্রভাবে কিংম্বা প্রতিষ্ঠান প্রধানের কল্যানে ম্যানেজিংকমিটির সদস্য হওয়া যায়। কজেই যোগ্যর চেয়ে অযোগ্য লোকেরই আনাগোনা এখানে বেশী। তাই ম্যানেজিং কমিটির ক্ষমতা রোহিত করা উচিত। আর বদলীর নীতিমালা তৈরীর কমিটিতে অবশ্যই বেসরকারী শিক্ষকদের রখা উচিত। বদলীর নীতিমালা সরকারী ও বেসরকারীদের একই নিয়মে হওয়া উচিত কারন আমরা সবাই একই প্রজাতন্ত্রের নাগরিক। "বদলীর আদেশ বাস্তবায়নের দায়িত্ব বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির জড়িত থাকলে শিক্ষাব্যবস্থার বারোটা বাজতে আর খুব বেশী দেরী হবেনা।
Raton Roy, ৩১ মার্চ, ২০১৯
কমিটির হাতে বদলির ক্ষমতা দিয়ে শিক্ষকদের অার কত হেনস্তা করতে চান তা শিক্ষক সমাজের প্রশ্ন।
Swapan Sarkar, ৩১ মার্চ, ২০১৯
সরকারি নিয়মে বদলি করলে আপনাদের সমস্যা কি? সরকারি নিয়মে বেতন ভাতা তো আর দিতে হচ্ছে না।
Hady, ৩১ মার্চ, ২০১৯
নীতিমালার থসড়াটা আমারকাছে নিত্যান্তই গাজাখড়ি মনে হচ্ছে । মাঝে-মাঝে মনে হয় এদেশে কোন বিবেকবান/বুদ্ধিমান মানুষ নাই ।তাইতো বার-বার ঘুরে আসে ব্রিটিসদের কথা, যে ব্রিটিস যা করেছে তার বাইরে যাওয়ার বুদ্ধি বাংগালিদের নাই। আরে বাবা বদলীর বিধান যদি করতেই হয় তবে অবশ্যই তা সরকারীদের ন্যায় এবং ডিজি অফিস থেকেই করতে হবে। একে কমিটি/ উপজেলা/জেলা শিক্ষা অফিসের হাতে দেয়া মানে এমপিওদের আবার নতুন করে জালার মধ্যে ফেলা ।আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানে আসে বদলী শুধু মাত্র আবেদনের প্রেক্ষিতে-পদ শুন্য থাকা সাপেক্ষে এবং ক্ষেত্র বিশেষ পরস্পরের সম্মতিতে বদলী করার বিধান রেখে ডিজি অফিসের মাধ্যমেই বদলীর নীতিমালা করার অনুরোধ যানাচ্ছি। একইসাথে কতৃপক্ষ যদি কোন কারনে স্ব-প্রনোদিত হয়ে বদলী করে সেখেত্রে নিজ ‍উপ-জেলা/জেলায় বদলী করার বিধান রেখে নীতিমালা করার জন্য কর্তৃপক্ষের সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। তাহলে হয়তো বৃটিষরাই পারে বাংগালিরা পারে না এই অপবাদ থেকে জাতি মুক্তি পেতে পারে।
Sanjib Chandra Somadder, ৩১ মার্চ, ২০১৯
কমিটির হাতে ক্ষ্মতা থাকলে সেই সমস্যাতো রয়েই গেলো। তার চেয়ে এবছর এনটিআরসিএ জেভাবে নতুনদের নিয়োগ দিলো একটি টাকাও লাগলো না। আমরা এমন একটি কর্তৃপক্ষ চাই যেখানে আমরা নিরাপদ হোক সেটা পরীক্ষা পদ্ধতি- ধন্যবাদ।
ABU SAYED, ৩১ মার্চ, ২০১৯
বদলি চাই তবে কমিটির মাধ্যমে নয় ।সরাসরি অনলাইন প্রক্রিয়ায় আপনাদের মাধ্যমে ।
মেঃ নওশের আলী, ৩১ মার্চ, ২০১৯
5::2 প্রথা বাতিল সহ সকলের জন্য বাড়ি ভাড়া চালু করা হোক।
মোঃ আবদুল মান্নান, ৩১ মার্চ, ২০১৯
আমার মনে হয় এনটিআরসিএ কর্তৃক শূন্য পদের চাহিদা সংগ্রহ করে,আবেদনের মাধ্যমে যোগ্যতা ও সিনিয়রিটির মাধ্যমে বদদির ব্যকস্থা করলে ভাল হতো। ম্যানেজিং কমিটি/গভর্ণিং বডির কাছে নেওয়া মা নে শিক্ষদের হয়রানির সুযোগ করে দেওয়া।
Md.Mahabub Alam, ৩০ মার্চ, ২০১৯
বদলীর পূর্বে যেসকল প্রতিষ্ঠানে জনবল কাঠামোর অতিরিক্ত শিক্ষক নিয়োগ আছে এবং এমপিও ভুক্ত হয়ে থাকলে সেসকল প্রতিষ্ঠান থেকে পদ শুন‍্য প্রতিষ্ঠানে আগে বদলি করতে হবে। তাহলে একদিকে যেমন অর্থের অপচয় রোধ হবে, অন‍্যদিকে শুন‍্য পদ কমে আসবে এবং শৃংখলা প্রতষ্ঠিত হবে ।
মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, ৩০ মার্চ, ২০১৯
এ রকম অাজগবি নিয়ম শুধু এমপিও শিক্ষকদের জন্যে , যত ফাউল নিয়মনীতি বেসরকারি শিক্ষকদের বেলায়ই কি প্রযোজ্য? এ রকম বদলি হওয়ার চেয়ে না হওয়াই ভাল, এক দেশে দ্বৈত নীতি
shafi Mahmod, ৩০ মার্চ, ২০১৯
স্যার আপনারা নীতি র্নিধারক। আপনারা তো আর ম্যানেজিং কমিটি বা গর্ভনিং বডির আন্ডারে কাজ করেন না ,। তাই জানেন না এ কমিটি দ্বারা শতকরা 99 ভাগ প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষক র্আথিক ও মানসিক র্নিযাতিত । বদলি চাই তবে কমিটির মাধ্যমে নয় ।সরাসরি অনলাইন প্রক্রিয়ায় আপনাদের মাধ্যমে ।
আতিক বিন মাহবুব, ৩০ মার্চ, ২০১৯
আমার মনে হয়,গভনিংবডির হাতে এসব ক্ষমতা দিয়ে লাভ নাই, কারন যারা গভার্নিং বডিতে নির্বাচিত হয় তাদের মধ্যে অনেক শিক্ষাগত তেমনটা নাই, তারা কিভাবে শিক্ষক পরিচালনা করবে। তারচেয়ে জেলা শিক্ষা অফিসারের হাতে থাকলে কিছুটা কাজ হবে। গভার্নিং বডি থাকে একটা স্কুল বা কলেজের শিক্ষক শিক্ষিকা বা গার্ডিয়ানদের মধ্যে ভাল সম্পর্ক নষ্ট করার মূলে.........
Md Sohel Rana, ৩০ মার্চ, ২০১৯
bodlier maddome teacherder nij jala take onno jalay rransfer korte hobe.barir kaje thakle teacher bad diya alo potol tomato chaas korbe babsa rajniti korbe.
SHAHIN, ৩০ মার্চ, ২০১৯
যে নিয়ম করলে বেসরকারি শিক্ষকদের উপকার হয় সেই নিয়ম করেন।
MD. JABED ALI, ৩০ মার্চ, ২০১৯
আমার মনে হয়,গভনিংবডির হাতে ক্ষমতা দেওয়া মানে শিক্ষার মূলে কুঠারাঘাত করা । প্রয়োজনে এন.টি.আর সিএ শূন্য পদের চাহিদা দিয়ে বদলি ইচ্ছুকদের সাক্ষাতকার নিয়ে বদলি করতে পারেন ।
MD. JABED ALI, ৩০ মার্চ, ২০১৯
আমার মনে হয়,গভনিংবডির হাতে ক্ষমতা দেওয়া মানে শিক্ষার মূলে কুঠারাঘাত করা । প্রয়োজনে এন.টি.আর সিএ শূন্য পদের চাহিদা দিয়ে বদলি ইচ্ছুকদের সাক্ষাতকার নিয়ে বদলি করতে পারেন ।
MD. JABED ALI, ৩০ মার্চ, ২০১৯
দয়া করে নীতিমালা চালু করুন ও দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থহা নিন । পরে সমস্যা উদ্ভব হলে সমাধান হবেই ।খবরটি জানানোর জন্য দৈনিক শিক্ষাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ ।
MD. JABED ALI, ৩০ মার্চ, ২০১৯
দয়া করে নীতিমালা চালু করুন ও দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থহা নিন । পরে সমস্যা উদ্ভব হলে সমাধান হবেই ।খবরটি জানানোর জন্য দৈনিক শিক্ষাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ ।
Manik Chandra DAs, ৩০ মার্চ, ২০১৯
শিক্ষামন্ত্রনালয়কে ধন্যবাদ জানাই বদলি নীতিমালা করার উদ্যোগ নেয়ার জন্য। নীতিমালা যাতে সব শিক্ষকের উপকার আসে |
মোঃ মোসলেম উদ্দিন, ৩০ মার্চ, ২০১৯
বদলী হওয়া চাই অনলাইন ভিত্তিক সম্পূর্ণ এনটিআরসিএ/মন্ত্রনালয় কর্তৃক এবং ্স্থানীয়দের স্পর্শহীন। যেখানে সিনিয়রিটির ও শিক্ষকের মানের ( একাডেমিক ফলাফলের) গুরুত্ব থাকতে পারে।
মোঃ শাহিদুল ইসলাম, ৩০ মার্চ, ২০১৯
বিষয় ও পদ ভিত্তিক/ পদ ও বিষয় অনুসারে তালিকা প্রকাশ করে থানা ভিত্তিক /জেলা ভিত্তিক বদলি করা ভালো হবে। তবে শাস্তিমুলক বদলি প্রশাসনের ইচ্ছানুযায়ী (যেমন- খুলনা থেকে খাগড়াছড়ি) হওয়া উচিত।
মোঃ মুঞ্জুর ইলাহী, ৩০ মার্চ, ২০১৯
সনামধন্য অনলাইন পত্রিকা দৈনিকশিক্ষা ডট কমের মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরকে ধন্যবাদ জানায় যুগান্তকারী পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য। তবে, সিদ্ধান্তের কিছুটা পরিবর্তন হওয়া আবশ্যক বলে আমি মনে করছি। তা হলো গভর্ণিং বডি ও প্রতিষ্ঠান প্রধানের হাতে ক্ষমতা দেওয়া হলে শিক্ষাক্ষেত্রে আরো দুর্নীতি বাড়বে কিছুতেই কমবেনা। সিদ্ধান্তটি আর একটু পরিমার্জন করে বদলী পদ্ধতিটি সহজ করার জন্য অনুরোধ করছি।অআপনারা দুর্নীতির উর্ধে, দয়া করে প্রশ্রয় দিবেন না । ধন্যবাদ।
Swapan Sarkar, ৩০ মার্চ, ২০১৯
আমার ফ্যামিলির সবাই থাকে দিনাজপুর, অথচ আমি মানিকগঞ্জের নাগরিক ও এখানেই নিয়োগ প্রাপ্ত । আমি সেখানে বদলি হতে চাই।সে জন্য আমি দিনাজপুরের প্রায় প্রতিটি কলেজে আবেদনও করেছিলাম গত গনবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী। বদলির জন্য এখানে কোন নীতি প্রয়োগ হবে?
মোল্লা মোঃ মেহেদী হাসান রতন, ৩০ মার্চ, ২০১৯
এভাবে বদলি করার চেয়ে না করাই ভালো।নিয়ম যখন করবো তখন সবার সাথে সামজস‍্য রেখে করাই ভালো। তা নাহলে আবার সেই ঘুষ.........
মোঃ মেহেদী হাসান, ৩০ মার্চ, ২০১৯
৬ মাস ট্রেনিং প্রাপ্ত কম্পিউটার শিক্ষকদের কী হবে?
Md. Eunus Ali, ৩০ মার্চ, ২০১৯
বদলী ব্যবস্থা এরকম হলে এতে শিক্ষকরা উপকৃত হবে না এমনকি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও উপকৃত হবে না। ম্যানেজিং কমিটির হাতে ক্ষমতা থাকলে তার সেই ক্ষমতার অপব্যবহার হবেই। এধরনের বদলী না হওয়াই ভালো
D.Md.Enayet Hossain, ৩০ মার্চ, ২০১৯
শিক্ষামন্ত্রনালয়কে ধন্যবাদ জানাই বদলি নীতিমালা করার উদ্যোগ নেয়ার জন্য। আগে নীতিমালা হোক।পরে দেখা যাবে। এনটিআরসিএ প্রথমে উপজেলা ভিত্তিক নিয়োগ দিয়েছিল। পরবর্তীতে তা সংশোধন করতে বাধ্য হয়েছে। আমরা আগে বদলির নীতিমালা চাই।
Md. Noor-E-Alam Siddiky, ৩০ মার্চ, ২০১৯
এরকম বদলী নীতিমালা করার চেয়ে না করাই উত্তম।
Mohammad Nurus Salehin, ৩০ মার্চ, ২০১৯
বেসরকারি শিক্ষক বদলী নীতিমালার বিধান অনলাইনে আবেদন করলে শূন্য পদে কেবল উভয় প্রতিষ্ঠান প্রধানের সম্মতিতে হওয়া দরকার। যদি ম্যনেজিং কমিটি/ গভর্ণিং বডির হাতে ক্ষমতা দেওয়া হয় তবে যে শিক্ষক বদলী হতে চান তার জন্য মরার উপর খরারঘা ছাড়া কিছুই হবেনা। আসলে এ বদলী নীতিমালা শিক্ষাক্ষেত্রে আরো দুর্নীতি বাড়বে কিছুতেই কমবেনা।
Shirin, ২৯ মার্চ, ২০১৯
এ ধরণের নীতিমালায় দেশের শিক্ষার বারোটা বাজবে। কিভাবে দেশের শিক্ষার মান উন্নয়ন হবে? এতে সহজে অনুমেয় দেশের শিক্ষা কোন আলোর মুখ দেখতে পাবে বলে মনে হয় না।
আছমত আলী, ২৯ মার্চ, ২০১৯
পুরনো শিক্ষক যারা দীর্ঘদিন ধরে চাকরি করছেন তাদের বদলী নীতিমালা কি হবে?
MD. AKRAMUL HAQUE, ২৯ মার্চ, ২০১৯
এরকম বদলী নীতিমালা করার চেয়ে না করাই উত্তম।
মোঃ লহির উদ্দিন, ২৯ মার্চ, ২০১৯
শুধু বদলি নয় অবিলম্বে এনটি আরসি এর মাধ্যমে নিয়োগ নীতিমালা তৈরী করুন।
মোঃ ‌আজাদ ‌সরকার, ২৯ মার্চ, ২০১৯
বেসরকারি ‌শিক্ষকগণ ও ‌শিক্ষা ‌ব্যবস্থা ‌কুচক্রীর ‌কবলে,‌‌আরও ‌একটু ‌ওপেন ‌করে ‌বললে,‌বলতে ‌হবে-‌বাদরদের ‌‌বাদরামিতে ‌শিক্ষা ‌ব্যবস্থা,‌ভাল ‌কিছু ‌হোক,‌এই ‌বাদরগণ ‌তা ‌চায় ‌না।