মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

Rabindra Nath Tarofder, ২৪ মে, ২০১৯
মির্জাফরদের অবসর ও কল্যান তহবিলের অওতায় রাখা উচিৎ নয়। এরা জাতির জন্য কলঙ্ক এবং পশ্চিম পাকিস্তানের সমতুল্য।
Rabindra Nath Tarofder, ২৩ মে, ২০১৯
মন্তব্য লিখে আর কী লাভ! চোরে না শোনে ধর্মের কাহিনী।
Md.Shahjahan Kabir, ২২ মে, ২০১৯
দ্রুত ১০০% বোনাস,বাড়ি ভাড়া, বদলি ও অন্যান্য সুযোগসুবিধার ব্যবস্থা করতে হবে।এত বৈষম্য থাকলে শিক্ষাব্যবস্থা ধ্বংস হতে বাধ্য।
Palash Adhikary, ১৯ মে, ২০১৯
Before the Eid, demand for full bonuses
Hady, ১৯ মে, ২০১৯
সকল এমপিও শিক্ষক সংগঠনের প্রতি আমার অনুরোধ/পরামর্স আপনারা আপনাদের দাবী গুলো নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে বসুন।তবে বসার আগেই দালালদের বাদ দিয়ে বসার তালিকা ঠিক করুন। প্রধানমন্ত্রী সমীপে ফালতু জিনিস নিয়ে কথা না বলে মূল বিষয় গুলো ঠিক করে শুধু মাত্র ঐ বিষয় গুলো নিয়ে আলোচনা করলে আশা করি এমপিওভূক্ত শিক্ষকদের দাবী সমুহ অবশ্যই আদায় হবে। আমার দৃষ্টিতে মূল দাবী সমুহঃ-(১) আমার মতে কর্তন বৃদ্ধি করা যাবে না। (২) যদি তা করাই হয় তবে- পূর্নাংগ বাড়ি ভাড়া, ইদ ভোনাস, মেডিক্যাল ভাতা দিতে হবে ।(৩) বকেয়াসহ ১০ ও ১৬ বছরের উচ্চতর স্কেল ৩০জুন/১৯ এর মধ্যে দিতে হবে। অন্যান্য চাকুরীর ন্যায় মাধ্যমিক/উচ্চমাধ্যমিকের শিক্ষকদের পদোন্নতির ব্যবস্থা/৬৫%সিনিয়র শিক্ষকের পদ সৃষ্টি করে সাধারণ শিক্ষকদের আপগ্রেড স্কেল দিতে হবে।
md.a alim, ১৯ মে, ২০১৯
কল্যান ট্রাস্টের সচিব মহোদয়েরা যে সমস্থ অনিয়ম করেছেন তার সুষ্ট তদন্ত করে ব্যবস্থা নিলে শিক্ষক দের অতিরিক্ত চাদা কাটতে হবেনা ।এখানে কি দুদুক অন্ধ ?
Partha Sarathi Ray, ১৯ মে, ২০১৯
আন্দোলন ছাড়া কোনো দাবিতে কাজ হবেনা। লোক দেকানো হূমকী বাদ দিন। শিক্ষকগণ আপনাদের ধান্দাবাজী জানে। যত্তসব বেঈমানের দল।
MONNU, ১৯ মে, ২০১৯
১০% বেতন কর্তনের রেশ যেতে না যেতেই আবার টিন বিড়ম্বনা শুরু হয়ে গেছে। ব্যাংকে টিন নাম্বার না দিলে এমপিও ভুক্ত শিক্ষকদের বেতন জমা নিচ্ছেনা ব্যাংকগুলো। আর কত নির্যাতিত হবে বেসরকারি শিক্ষকগণ , এর কি কোন সমাধান নেই। শিক্ষা ডট কম এ মন্তব্য চাই।
এনামুল হক, ১৮ মে, ২০১৯
আমি শিক্ষকদের বলছি,আপনারা পূর্নাঙ্গ উৎসব ভাতা চাইবেন কেন।আমরা পূর্নাঙ্গ উৎসব ভাতার যোগ্য কিনা, যারা অতিরিক্ত 4% কেটেছে তাদের বিবেকের উপর আমরা ছেড়ে দিলাম।
মোঃ ‌আজাদ ‌সরকার, ১৮ মে, ২০১৯
ঈদের আগেই মাননিয় প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করা উচিৎ এবং আমলাদের বেহায়াপনার বিচার দাবি করুন,সেই সঙ্গে শিক্ষা সচিবের অপসারন চাইতে হবে।
Hasan+Anwar, ১৮ মে, ২০১৯
স্যার, আমাদের শিক্ষকদের ভিতর যে দালাল চক্র আছে তাদেরকে উৎখাত না করতে পারলে শিখকদের আন্দোলন সফল হবে না। এই দলালরা শিক্ষক নেতার মুখুষ পরে অবসর বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের শীর্ষ পদ দখল করে বসে আছে শিক্ষকদের দাবিদার প্রচ্ছন্নভাবে বিরোধিতা করার জন্যে। এরা অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক । এরা কখনই চাইবে না যে শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণ হোক। চাকরি জাতীয়করণ হলে তাদের বর্তমান সুযোগ সুবিধর কবর রচিত হবে। তাই এদের চক্রান্তের ব্যাপারে শিক্ষকদের সতর্ক থাকতে হবে।