আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি অতিরিক্ত সচিব রবিউল

দৈনিক আমাদের বার্তা প্রতিবেদক |

দৈনিক আমাদের বার্তা প্রতিবেদক : নিয়মিত গভর্নিং বডির কমিটি নির্বাচন করতে না পারায় সপ্তমবারের মতো এডহক কমিটি দিয়ে চলছে রাজধানীর আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মতিঝিল।

পাঁচ সদস্যের কমিটির সভাপতি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (মাধ্যমিক-২) মো. রবিউল ইসলামকে। গত নভেম্বরে গঠিত কমিটির মেয়াদ ছয় মাস। এর মধ্যে গভর্নিং বডির নির্বাচন করে নতুন কমিটির কাছে দায়িত্ব তুলে দেয়ার কথা।  

গত ১৮ নভেম্বর ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড থেকে এডহক কমিটি করে দেয়া চিঠিতে বলা হয়েছে, এই কমিটি ছয় মাস প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকবেন এবং একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করে দেবেন। 

 

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- সিনিয়র শিক্ষক শাহেলী পারভীন, অভিভাবক প্রতিনিধি ড. এ কে এম কুদরত ই হাসান, পোষ্য প্রতিনিধি তাহমিদ হাসান। কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ দায়িত্ব পালন করবেন।

নানা বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের কারণে বিদায়ী গভর্নিং বডি ছিল আলোচিত সমালোচিত। ১৩ জনের পরিচালনা কমিটির সাতটি পদই ছিল শূন্য। এরই মধ্যে স্কুলের একজন ছাত্রীকে বিয়ে করে পদত্যাগ করেন দাতা সদস্য খন্দকার মোশতাক আহমেদ। মেডিকেল পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসে গ্রেফতার হওয়া সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি মাকসুদা আক্তার মালা কারাগারে ছিলেন বহুদিন। অভিভাবক সদস্য (কলেজ) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আশরাফ তালুকদার কারাগারে। তিনি মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি।

আরেকজন অভিভাবক প্রতিনিধি সোহেল আহম্মেদ সিদ্দিকী গত বছরের ৮ মে মারা যান। প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক প্রতিনিধি রোকনুজ্জামান শেখ গত ১২ মার্চ স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর তিনিও নিয়ম অনুযায়ী গভর্নিং বডিতে থাকতে পারেনি। 

দৈনিক আমাদের বার্তার অনুসন্ধানে জানা যায়, ভোটার জটিলতা, দাতা সদস্যের তালিকাসহ নানা জটিলতায় গভর্নিং বডির নির্বাচন করতে দেরি হচ্ছে। 

অপরদিকে, ভবঘুরে অভিভাবকদের সংগঠন আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ অভিভাবক ফোরাম গত ২০ বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটিতে নানা সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়ানো এবং ভর্তি জালিয়াতিতে অভিযুক্ত। ঢাকা জেলার সমাজসেবা অফিস অভিভাবক ফোরামকে নিষিদ্ধ করেছে ২০০৮ খ্রিষ্টাব্দে। এরপরও হিজাব ও স্বরস্বতী পূজা অনুষ্ঠান নিয়ে নানা ষড়যন্ত্র করার দায়ে কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা ও গ্রেফতারও করা হয়। 


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
কওমি মাদরাসা নিয়ে সিদ্দিকুর রহমান খানের অনবদ্য গ্রন্থ - dainik shiksha কওমি মাদরাসা নিয়ে সিদ্দিকুর রহমান খানের অনবদ্য গ্রন্থ পরীক্ষা শুরুর আগেই উত্তরপত্রের ছড়াছড়ি, দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ - dainik shiksha পরীক্ষা শুরুর আগেই উত্তরপত্রের ছড়াছড়ি, দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে ১৫ শতাংশ ট্যাক্স দিতেই হবে: আপিল বিভাগ - dainik shiksha বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে ১৫ শতাংশ ট্যাক্স দিতেই হবে: আপিল বিভাগ বাবার মরদেহ ঘরে রেখে পরীক্ষার কেন্দ্রে মেমেসিং মারমা - dainik shiksha বাবার মরদেহ ঘরে রেখে পরীক্ষার কেন্দ্রে মেমেসিং মারমা সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ - dainik shiksha সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ কেন্দ্র সচিব ও হল সুপারসহ চারজনকে অব্যাহতি - dainik shiksha কেন্দ্র সচিব ও হল সুপারসহ চারজনকে অব্যাহতি দৈনিক শিক্ষাডটকমের ফেসবুক পেজ দেখুন - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষাডটকমের ফেসবুক পেজ দেখুন please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0024120807647705