চীনে ছাত্রীকে বাঁচিয়ে প্রশংসিত ব্রিটিশ কূটনীতিক - ভিডিও এ্যালবাম - দৈনিকশিক্ষা


চীনে ছাত্রীকে বাঁচিয়ে প্রশংসিত ব্রিটিশ কূটনীতিক

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

চীনে নদীতে ডুবন্ত ছাত্রীকে বাঁচিয়ে বীর হিসেবে প্রশংসিত হচ্ছেন এক ব্রিটিশ কূটনীতিক। চীনের চংকিং অঞ্চলের ব্রিটিশ কনসাল জেনারেল স্টিফেন এলিসন (৬১) গত শনিবার পাশের একটি গ্রামে নদীর ধারে হাঁটছিলেন। ঠিক তখনই ২৪ বছর বয়সী ওই শিক্ষার্থী পিছলে পানিতে পড়ে যান।

এই ঘটনার ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই শিক্ষার্থী তরুণী একটি ফুটব্রিজের নিচে ডুবুডুবু অবস্থায় স্রোতের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। স্টিফেন এলিসন তাঁর জুতা খুলে শিক্ষার্থীকে বাঁচাতে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তখন উপর থেকে একজন তাঁকে একটি ভেসে থাকা যায় এমন বস্তু ছুড়ে মারেন। এর মাধ্যমে তরুণীকে টেনে পাড়ে তুলতে সক্ষম হন প্রবীণ ওই কূটনীতিক।

ভিডিও সৌজন্যে : New China TV

স্টিফেন এলিসন বিবিসিকে বলেন, ‘তিনি (ছাত্রী) অজ্ঞান ছিলেন এবং শ্বাস নিতে পারছিলেন না এবং অল্প সময়ের মধ্যেই আমরা সবচেয়ে খারাপ কিছুর আশঙ্কা করছিলাম। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই তিনি আবার শ্বাস নিতে শুরু করলেন। ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠলেন।’ এ ঘটনায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে পরের সপ্তাহে স্টিফেন এলিসনকে তাঁর পরিবারের সঙ্গে ডিনারের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন উহানের বাসিন্দা এবং চংকিং বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই শিক্ষার্থী। তবে তাঁর নাম প্রকাশ করা হয়নি।

এ ঘটনায় যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লিউ জিয়াওমিং ব্রিটিশ কূটনীতিকের প্রশংসা করে বলেছেন, ‘চংকিংয়ে ব্রিটিশদের নতুন কনসাল জেনারেল স্টিফেন এলিসনকে স্যালুট। তাঁর নাম শুধু চংকিং অঞ্চল নয় চীন জুড়ে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তাঁর বীরত্ব ও উদারতা চীন-যুক্তরাজ্যের বন্ধুত্বের বহুল আলোচিত ও সুদূরপ্রসারী গল্প হবে।’

স্টিফেন এলিসন যুক্তরাজ্যের নিউক্যাসেলের বাসিন্দা। চংকিংয়ে ব্রিটিশ কূটনৈতিক মিশনের প্রধান স্টিফেনের মূল দায়িত্ব হলো চীনের সঙ্গে ব্রিটেনের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্পর্কের ক্ষেত্রে সহায়তা করা।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু - dainik shiksha ৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! - dainik shiksha এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ - dainik shiksha বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! - dainik shiksha ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি - dainik shiksha নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ - dainik shiksha উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ please click here to view dainikshiksha website