জ্বালানি সাশ্রয়ে কুবি পরিবহন সপ্তাহে একদিন বন্ধ থাকবে - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা


জ্বালানি সাশ্রয়ে কুবি পরিবহন সপ্তাহে একদিন বন্ধ থাকবে

কুবি প্রতিনিধি |

জ্বালানি সাশ্রয়ে সপ্তাহে একদিন পরিবহন বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) প্রশাসন। এতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, ২৭ জুলাই কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭২তম অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল সভায় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ে সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক বৃহস্পতিবার কার্যক্রম অনলাইনে করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এতে পরিবহনও বৃহস্পতিবার বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

আনিসুর রহমান নামের এক ব্যক্তি পরিবহন পুলের গ্রুপে কমেন্ট করেন, এটা সবচেয়ে বাজে সিদ্ধান্ত হবে। অনেক শিক্ষার্থীর প্রয়োজন হয় শহরে যাওয়া-আসার। সবগুলো বাস না দিলেও সন্ধ্যায় তিনটা বাস চালু রাখা উচিত। যেখানে শিক্ষার্থীদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ঢাকা থেকে কুমিল্লায় আসে সেখানে সবগুলো আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন বাস বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের সমস্যার দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

ইয়াসিন আরফাত হিমু নামের আরেকজন শিক্ষার্থী বলেন, মানে যত পালতু কথা, জ্বালানি কমানোর জন্য ক্লাস বন্ধ। যে দেশের শিক্ষা এত সস্তা সেই দেশের মানুষ থেকে এর থেকে বেশি কি আশা করা যায়। যাইহোক ২-৩টা বাস চালু করার দাবি জানাচ্ছি।

মো. খাইরুল ইসলাম নামে আরেক শিক্ষার্থী বলেন, অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় গুলো কী এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে? যারা টিউশনি করে তাদের কথা চিন্তা করে হলেও সন্ধ্যার দিকে বাস রাখা উচিত। ব্যবহার সীমিত হউক। বন্ধ নয়।

পরিবহন পুলের সেকশন অফিসার মো. জাহিদুল আলম বলেন, এটাতো আমার সিদ্ধান্ত না, একাডেমি কাউন্সিল মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাস বন্ধ করা হয়েছে। যেহেতু বৃহস্পতিবার ক্লাস অনলাইন হচ্ছে। সেক্ষেত্রে বাস চালু রাখার কোনো যুক্তি নেই। তবে প্রশাসন চাইলে দিতে পারে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান বলেন, দেশের অর্থনীতি সংকটের কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যাতে জ্বালানি সংকট কমানো যায়। যেখানে আমরা করোনার সময় অনলাইন ক্লাসে অভ্যস্ত সেখানে সপ্তাহে একদিন বন্ধ থাকলে তেমন সমস্যা হবে না। এছাড়া একাডেমিক কাউন্সিল মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সবকিছু বৃহস্পতিবার বন্ধ থাকবে। সেক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহনও বন্ধ থাকবে, এতে দেশের অর্থনীতির জন্য ভালো হবে।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা এ বছরের শেষে - dainik shiksha ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা এ বছরের শেষে স্কুল-কলেজে র‌্যাগ ডের নামে ডিজে পার্টি-গুন্ডামি নয় - dainik shiksha স্কুল-কলেজে র‌্যাগ ডের নামে ডিজে পার্টি-গুন্ডামি নয় সরকার সাহসী উদ্যোগ নিয়েছে : জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha সরকার সাহসী উদ্যোগ নিয়েছে : জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী এসএসসির সনদ বিতরণ শুরু ২১ আগস্ট - dainik shiksha এসএসসির সনদ বিতরণ শুরু ২১ আগস্ট হিজাব কাণ্ড : শোকজের জবাব দেয়ার ৭ মিনিট পরই শিক্ষক বরখাস্ত - dainik shiksha হিজাব কাণ্ড : শোকজের জবাব দেয়ার ৭ মিনিট পরই শিক্ষক বরখাস্ত শিক্ষক নিয়োগ : অর্ধলক্ষ শূন্যপদের প্রত্যাশা, আসছে সংশোধনের সুযোগ - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ : অর্ধলক্ষ শূন্যপদের প্রত্যাশা, আসছে সংশোধনের সুযোগ please click here to view dainikshiksha website