পদের নাম বদলে যাওয়ায় শিক্ষক নিয়োগের চাহিদা দিতে পারছেন না প্রধানরা - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা


পদের নাম বদলে যাওয়ায় শিক্ষক নিয়োগের চাহিদা দিতে পারছেন না প্রধানরা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

চতুর্থ ধাপে বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগ দিতে শূন্যপদে তথ্য সংগ্রহ চলছে। তবে, মাদরাসার ইবতেদায়ি মৌলভী ও ইবতেদায়ি শিক্ষক শূন্যপদের চাহিদা দেয়া যাচ্ছে না বলে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে অভিযোগ করেছেন বিভিন্ন মাদরাসার প্রধানরা। অপর দিকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের ব্যবস্থাপনা বিষয়ের প্রভাষক নিয়োগের চাহিদাও দিতে পারছেন না দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছে বেসরকারি কলেজগুলো অধ্যক্ষরা। 

জানা গেছে, ইবতেদায়ি মৌলভী ও ইবতেদায়ি শিক্ষক পদগুলোর নাম আগে জুনিয়র মৌলভী ও জুনিয়র শিক্ষক থাকলেও মাদরাসার এমপিও নীতিমালার সংশোধনীতে তা পরিবর্তন করা হয়। এ পরিস্থিতিতে এসব শূন্যপদের চাহিদা দিতে না পেরে মাদরাসা শিক্ষকরা দুশ্চিন্তায় আছেন। অপরদিকে জুনিয়র মৌলভী ও জুনিয়র শিক্ষক পদে নিবন্ধিত প্রার্থীরাও চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে নিয়োগ পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় আছেন। অপরদিকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের বিভিন্ন বেসরকারি কলেজের অধ্যক্ষরা বলছেন, ব্যবস্থাপনা বিষয়ের প্রভাষক নিয়োগের চাহিদাও দেয়া যাচ্ছে না। এ পদটির নাম ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা করা হয়েছে।

এদিকে এনটিআরসিএর কর্মকর্তারা বলছেন, পদের নাম পরিবর্তন করা হলেও এ বিষয়ে সুস্পষ্ট নির্দেশনা না থাকায় শূন্যপদের তথ্য সংগ্রহের সফটওয়্যারে নতুন পদের নাম এন্ট্রি করা হয়নি। নতুন নামের পদে কোনো প্রার্থী নিবন্ধিতও নেই। তাই ইবতেদায়ি মৌলভী, ইবতেদায়ি শিক্ষক এবং ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ের চাহিদা দেয়ার সুযোগ সার্ভারে এন্ট্রি করা হয়নি। ইবতেদায়ি মৌলভী যে জুনিয়র মৌলভী, ইবতেদায়ি শিক্ষক যে জুনিয়র শিক্ষক আর ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা যে ব্যবস্থাপনার প্রভাষক পদ সে বিষয়ে নির্দেশনা আসেনি। এসব ক্ষেত্রে যে আগের শিক্ষাগত যোগ্যতাই যে এসব পদে বহাল থাকবে সে নির্দেশনাও আসেনি। তাই এসব পদের চাহিদা নেয়া হচ্ছে না। 

তবে, এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের লিখিত নির্দেশনা পেলে আগের জুনিয়র মৌলভী, জুনিয়র শিক্ষক ও ব্যবস্থাপনা প্রভাষক পদের নাম পরিবর্তন করে ইবতেদায়ি মৌলভী, ইবতেদায়ি শিক্ষক ও ব্যবসায় সংগঠন প্রভাষক পদের চাহিদা নেয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন কর্মকর্তারা। এদিকে শূন্যপদের চাহিদা সংগ্রহের সময় ৩১ জুলাই পর্যন্ত থাকলেও তা বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা চলছে বলেও দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছেন তারা। 

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার কৈয়ারচালা পূর্বপাগা বালিকা দাখিল মাদরাসার সুপার মো. আ. হান্নান সরকার দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির ই-রিকুইজিশনে ইবতেদায়ি মৌলভী পদের অপশন নেই। ইবতেদায়ি শিক্ষক পদের অপশনও নেই। আগে এ পদগুলোর নাম জুনিয়র মৌলভী ও জুনিয়র শিক্ষক ছিলো। নতুন পদবি দেয়া হলো এগুলো একই বিষয়ের পদ। এ পদের রিকুইজিশন দিতে না পারলে শিক্ষক নিয়োগ হবে না। যার ফলে শ্রেণি কার্যক্রমে জটিলতা দেখা দেবে। 

এদিকে উচ্চমাধ্যমিক কলেজের ব্যবস্থাপনা প্রভাষক নিয়োগের চাহিদা দেয়া যাচ্ছে না বলেও দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছেন বিভিন্ন বেসরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও নিবন্ধিত প্রার্থীরা। তারা জানিয়েছেন, ব্যবস্থাপনা বিষয়ের পদের নাম পরিবর্তন করে ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা করা হয়েছে। কিন্তু এ ক্যাটাগরির শূন্যপদের চাহিদা দেয়া যাচ্ছে না। 

অপরদিকে মাদরাসার নবসৃষ্ট সমাজবিজ্ঞান ও ইংরেজি প্রভাষক পদের চাহিদাও সফটওয়্যারে এন্ট্রি করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন মাদরাসার অধ্যক্ষরা। তারা দ্রুত এসব সমস্যার সমাধান চেয়েছেন। 

এসব বিষয়ে জানতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দৈনিক শিক্ষাডটকমের পক্ষ থেকে এনটিআরসিএর কর্মকর্তদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা শূন্যপদের তথ্য না নেয়ার কথা স্বীকার করেন। তবে তারা বলছেন, নতুন নামের পদের নিবন্ধিত প্রার্থী না থাকায় এবং আগের পদ ও নতুন পদের বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সুস্পষ্ট নির্দেশনা না থাকায় চাহিদা নেয়া হচ্ছে না বলে জানান তারা। 

এনটিআরসিএর সচিব ওবায়েদুর রহমান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, ইবতেদায়ি মৌলভী ও ইবতেদায়ি শিক্ষক পদের নাম করার পরেও এ বিষয়ে সুস্পষ্ট নির্দেশনা আসেনি। আগে জুনিয়র মৌলভী ও জুনিয়র শিক্ষক পদ ছিলো। কিন্তু তা পরিবর্তন করা হয়েছে। সেগুলো পরিবর্তন করে যে ইবতেদায়ি মৌলভী ও ইবতেদায়ি শিক্ষক করা হয়েছে বা আগের যোগ্যতাই যে নতুন পদের ক্ষেত্রে বহাল থাকবে সে বিষয়ে কোনো নির্দেশনা আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পাইনি। অপর দিকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের ব্যবস্থাপনা প্রভাষক পদের নাম বদলে ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা করে হলেও সে পদের যোগ্যতা বা ব্যবস্থাপনা প্রভাষক পদের যোগ্যতাই বহাল থাকবে সে বিষয়ে কোনো নির্দেশনা পাইনি। এ ইবতেদায়ি মৌলভী, ইবতেদায়ি শিক্ষক এবং কলেজের ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা প্রভাষক পদে আমাদের নিবন্ধিত প্রার্থীও নেই। আগে জুনিয়র মৌলভী, জুনিয়র শিক্ষক ও ব্যবস্থাপনা প্রভাষক পদে নিবন্ধিত প্রার্থী থাকলেও নতুন নামের পদে নিবন্ধিত প্রার্থী নেই তাই শূন্যপদের চাহিদা নেয়া হচ্ছে না।  

তিনি আরও জানান, বিষয়টি নজরে, এসেছে শিগগিরই এ জটিলতা সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। ইবতেদায়ি মৌলভী যে জুনিয়র মৌলভী, ইবতেদায়ি শিক্ষক যে জুনিয়র শিক্ষক ও ব্যাবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা যে আগের ব্যবস্পনা লেকচারের পদ সে বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। নতুন নামে নিবন্ধিত পদপ্রার্থী নেই। 

তিনি বলেন, এ বিষয়গুলো নিয়ে আমরা শিক্ষা মন্ত্রলণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করবে। আশা করছি শূন্যপদের তথ্য দেয়ার সময় কিছুটা বড়ানো হবে। এর আগে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা পেলে এসব জটিলতা সমাধান করে শূন্যপদের চাহিদা নেয়া হবে। ৩১ জুলাই পর্যন্ত শূন্যপদের তথ্য নেয়া হবে। এরপর সময় কিছুটা বাড়তে পারে।

আর মাদরাসার নবসৃষ্ট সমাজবিজ্ঞান ও ইংরেজি প্রভাষক পদের চাহিদা দেয়ার জটিলতা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন এনটিআরসিএর সচিব ওবায়েদুর রহমান।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE    করতে ক্লিক করুন।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা এ বছরের শেষে - dainik shiksha ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা এ বছরের শেষে স্কুল-কলেজে র‌্যাগ ডের নামে ডিজে পার্টি-গুন্ডামি নয় - dainik shiksha স্কুল-কলেজে র‌্যাগ ডের নামে ডিজে পার্টি-গুন্ডামি নয় সরকার সাহসী উদ্যোগ নিয়েছে : জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha সরকার সাহসী উদ্যোগ নিয়েছে : জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী এসএসসির সনদ বিতরণ শুরু ২১ আগস্ট - dainik shiksha এসএসসির সনদ বিতরণ শুরু ২১ আগস্ট হিজাব কাণ্ড : শোকজের জবাব দেয়ার ৭ মিনিট পরই শিক্ষক বরখাস্ত - dainik shiksha হিজাব কাণ্ড : শোকজের জবাব দেয়ার ৭ মিনিট পরই শিক্ষক বরখাস্ত শিক্ষক নিয়োগ : অর্ধলক্ষ শূন্যপদের প্রত্যাশা, আসছে সংশোধনের সুযোগ - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ : অর্ধলক্ষ শূন্যপদের প্রত্যাশা, আসছে সংশোধনের সুযোগ please click here to view dainikshiksha website