প্রভাষকের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলার নির্দেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক |

দ্বৈত চাকরি ও তথ্য গোপন করে সরকারিকরণে নাম অন্তর্ভুক্ত করার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় রাউজান সরকারি কলেজের প্রভাষক সুজন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়েরের নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিষয়ের প্রভাষক সুজন বিশ্বাস রাঙ্গামাটি জেলার আসাম বস্তি এলাকার বিশ্বরঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে।

  

জানা যায়, ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পদ সৃজন-সংক্রান্ত মূল কাগজপত্র যাচাই-বাছাই কমিটির কাছে সুজন বিশ্বাসের নিয়োগ নম্বরপত্রে ডিজি প্রতিনিধির স্বাক্ষর জাল-জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়েছিল। সে সময় বিষয়টি মন্তব্য আকারে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে অবহিত করা হয়। ২০২২ খ্রিষ্টাব্দের শুরুতে নিয়োগ ও যোগদান-সংশ্লিষ্ট এক অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অধীনে অধ্যক্ষ স্থানীয় তদন্ত, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দের ২১ ডিসেম্বর মাউশি চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক ও সহকারী পরিচালকের (কলেজ) দ্বারা অবৈধ নিয়োগের তদন্ত এবং তিন বছর পর কলেজে যোগদান সম্পর্কিত আরো দুটি অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন হয়। সবশেষ ২০২৩ খ্রিষ্টাব্দে নিয়োগ ও যোগদানে অনিয়ম, কোচিং বাণিজ্য, মার্কশিট জালিয়াতি, মিথ্যা প্রত্যয়ন এবং দ্বৈত চাকরি করার অভিযোগটি তদন্ত করার জন্য শিক্ষা অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। তদন্তে নিয়োগ নম্বরপত্রে ডিজি প্রতিনিধির স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে নিয়োগ নম্বরপত্র সৃজন, তিন বছর পর কলেজে যোগদান এবং একসঙ্গে দুই কলেজে চাকরি করার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়েরের নির্দেশ দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

গত ২ জুন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের উপসচিব মো. শাহীনুর ইসলাম স্বাক্ষরিত এক আদেশের মাধ্যমে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে ফৌজদারি মামলার নির্দেশনা দেয়া হয়।

সূত্রমতে, কলেজের সদ্য বিদায়ি অধ্যক্ষ মো. নুরুল ইসলাম চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের দুজন কর্মকর্তা সরজমিন এসব অভিযোগ তদন্ত করেন। তাদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সুজন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে বলে জানা গেছে। তদন্ত কমিটির এক সদস্য জানান, হিসাব বিজ্ঞান বিষয়ের প্রভাষক সুজন বিশ্বাসের নিয়োগ-যোগদান ২০১৩ খ্রিষ্টাব্দে দেখানো হলেও মূলত তিনি তিনি যোগদান করেছিলেন ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দে।

মামলার অগ্রগতির বিষয়ে জানার জন্য রাউজান কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সেলিম নাওয়াজ চৌধুরীকে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
যেসব চাকরির পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha যেসব চাকরির পরীক্ষা স্থগিত কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসছে সরকার - dainik shiksha কোটা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসছে সরকার উত্তরায় গুলিতে ২ শিক্ষার্থী নিহত - dainik shiksha উত্তরায় গুলিতে ২ শিক্ষার্থী নিহত ছাত্রলীগ আক্রমণ করেনি, গণমাধ্যমে ভুল শিরোনাম হয়েছে - dainik shiksha ছাত্রলীগ আক্রমণ করেনি, গণমাধ্যমে ভুল শিরোনাম হয়েছে সহিংসতার দায় নেবে না বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন - dainik shiksha সহিংসতার দায় নেবে না বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন জবিতে আজীবনের জন্য ছাত্র রাজনীতি বন্ধের আশ্বাস প্রশাসনের - dainik shiksha জবিতে আজীবনের জন্য ছাত্র রাজনীতি বন্ধের আশ্বাস প্রশাসনের মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধের কারণ জানালেন পলক - dainik shiksha মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধের কারণ জানালেন পলক দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0024797916412354