বিদ্যালয় থেকে জিয়ার নাম মুছে দেওয়ায় ফখরুলের নিন্দা - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা


বিদ্যালয় থেকে জিয়ার নাম মুছে দেওয়ায় ফখরুলের নিন্দা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

রাজধানীর মোগলটুলী এলাকায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে এ নিন্দা জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গত অক্টোবর মাসে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নামে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টির নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিলে তাৎক্ষণিকভাবে বিএনপি এবং এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছিল। আমরা এ ধরনের প্রতিহিংসামূলক পদক্ষেপ থেকে সরে আসার জন্য সিটি কর্পোরেশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলাম। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, সিটি কর্পোরেশন কারো কোনো দাবি, আহ্বানের প্রতি কর্ণপাত না করে ‘শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়’ নাম পরিবর্তন করে ‘পুরান মোগলটুলী উচ্চ বিদ্যালয়’ নামকরণ করেছে।

বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল বলেন, মহান স্বাধীনতার ঘোষণাসহ মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ গৌরবোজ্জ্বল ও সাহসী ভূমিকা এবং পরবর্তীতে আধুনিক ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় যুগান্তকারী নেতৃত্ব ও অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৬ সালে ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের তৎকালীন নির্বাচিত মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকা ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা এবং একই বছর ২৫ মার্চ উদ্বোধন করেছিলেন। কিন্তু বর্তমান সরকারের ইতিহাস বিকৃতি ও প্রতিহিংসার রাজনীতির বশতবর্তী হয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন শহীদ জিয়ার নামে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের ন্যাক্কারজনক সিদ্ধান্ত নিয়ে বাস্তবায়ন করছে। নগরবাসীর নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি না হওয়ায় ঢাকা সিটির মেয়র ও কাউন্সিলররা নগরবাসীর উন্নয়নে ও তাদের উন্নত সেবা প্রদান না করে নাম পরিবর্তনের ন্যাক্কারজনক দলীয় করণে ব্যাস্ত রয়েছেন। নগরবাসীর নির্বাচিত প্রতিনিধি হলে তারা এ ধরনের হিংসাত্মক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকতে পারতেন না।
 
বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক শহীদ জিয়ার নামে প্রতিষ্ঠিত উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের তীব্র প্রতিবাদ, নিন্দা ও ধিক্কার জানিয়ে বলেন, বিগত ১২ বছর শত চেষ্টা করে ফ্যাসিবাদী শাসকগোষ্ঠী জনগনের হৃদয় থেকে শহীদ জিয়ার নাম মুছে ফেলতে পারে নাই, কখনও পারবে না।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়িয়ে আদেশ জারি - dainik shiksha ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়িয়ে আদেশ জারি শিশুদের স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির আহ্বান গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর - dainik shiksha শিশুদের স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির আহ্বান গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর কারিগরি শিক্ষায় ভাত-কাপড়ের অভাব হয় না : প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha কারিগরি শিক্ষায় ভাত-কাপড়ের অভাব হয় না : প্রতিমন্ত্রী ‘চলতি বছরে আরো ৫ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হবে আইসিটি খাতে’ - dainik shiksha ‘চলতি বছরে আরো ৫ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হবে আইসিটি খাতে’ ওয়েটিং লিস্ট থেকে সরকারি স্কুলে ভর্তি শুরু ২১ জানুয়ারি - dainik shiksha ওয়েটিং লিস্ট থেকে সরকারি স্কুলে ভর্তি শুরু ২১ জানুয়ারি ‘আরবি পারদর্শী প্রার্থী ছাড়া মাদরাসার লাইব্রেরিয়ান নিয়োগ হতে পারে না' - dainik shiksha ‘আরবি পারদর্শী প্রার্থী ছাড়া মাদরাসার লাইব্রেরিয়ান নিয়োগ হতে পারে না' ২০ জানুয়ারির মধ্যে সরকারি স্কুলে লটারিতে চান্স পাওয়া শিক্ষার্থীদের ভর্তি - dainik shiksha ২০ জানুয়ারির মধ্যে সরকারি স্কুলে লটারিতে চান্স পাওয়া শিক্ষার্থীদের ভর্তি please click here to view dainikshiksha website