শিক্ষক নেতার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা-রাজনীতিবিদদের যত অভিযোগ - সমিতি সংবাদ - দৈনিকশিক্ষা


শিক্ষক নেতার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা-রাজনীতিবিদদের যত অভিযোগ

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি |

শিক্ষক নেতা আবুল কাসেম। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক। ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার চাঁনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক পরিচয় নিয়ে মিথ্যাচারের অভিযোগ তুলেছেন ময়মনসিংহের মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামীলীগ কতিপয় নেতা। কাসেম আওয়ামী রাজনীতির সাথে যুক্ত আছেন বলে মিথ্যাচার করছেন।

 

আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ তুলেছেন ময়মনসিংহেরর ফুলপুর উপজেলা পরিষদেরর ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল মিয়া সরকার এবং বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ফুলপুর উপজেলার কমান্ডার মো আব্দুল হাকিম সরকার। 

ফুলপুর উপজেলা পরিষদেরর ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান তার বিষয়ে এক লিখিত প্রত্যয়নে বলেন, শিক্ষক আবুল কাসেম ছাত্রদলের একজন সক্রিয় কর্মী ছিলেন। তার বাবা মো. আজিজুর রহমান বর্তমানে ফুলপুর উপজেলার ৭ নং রহিমগঞ্জ ইউনিয়ন বিএনপির নির্বাচিত সভাপতি। তার পরিবারের সবাই বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত। 

তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল মিয়া সরকার এক লিখিত প্রত্যয়নে বলেন, শিক্ষক আবুল কাসেমকে আমি ব্যক্তিগতভাবে চিনি। ১৯৮৩ থেকে ১৯৮৭ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত আমি ফুলপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। সে ছাত্রদলের একজন সক্রিয় সদস্য। বাবা মো. আজিজুর রহমান বর্তমানে ফুলপুর উপজেলার ৭ নং রহিমগঞ্জ ইউনিয়ন বিএনপির নির্বাচিত সভাপতি। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক পরিচয় দিয়ে আবুল কাসেম বিভিন্ন সভা সমাবেশে আওয়ামীলীগার হিসেবে নিজের পরিচয় দেন। 

এদিকে এক লিখিত প্রত্যয়নে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ফুলপুর উপজেলার কমান্ডার মো আব্দুল হাকিম সরকার বলেছেন, শিক্ষক আবুল কাসেম ছাত্র জীবন থেকেই ছাত্রদলের একজন নেতৃস্থানীয় কর্মী।  তার বাবা মো. আজিজুর রহমান বর্তমানে ফুলপুর উপজেলার ৭ নং রহিমগঞ্জ ইউনিয়ন বিএনপির নির্বাচিত সভাপতি। আবুল কাসেম মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি বা আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত বলে যে দাবি করছেন তার তীব্র প্রতিবাদ জানাই। 

কাশেমের বিরুদ্ধে রাজধানীর উইলস লিটল ফ্রাওয়ার স্কুলের খণ্ডকালীন শিক্ষক ও সাবেক শিবির নেতা সায়েদু্জ্জামানের সঙ্গে সিন্ডিকেট করে নোট-গাইড বাণিজ্য ফেসবুকে লাইভে গণশিক্ষা সচিবকে আনার কথা বলে টাকা কামিয়েছেন। কিন্তু কাশেমের ওই ফেসবুক লাইভে গণশিক্ষা সচিব মো: আকরাম আল হোসেন যোগদান করেননি। ওইসব ফেসবুক লাইভ থেকে সরকারবিরোধী প্রচারণার অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে শিক্ষক নেতা আবুল কাসেমের মতামত জানার চেষ্টা করা হলেও তা সম্ভব হয়নি। 

এদিকে প্রাথমিকের অনেক শিক্ষক নেতার বিরুদ্ধেই জামাত বিএনপি সংশ্লিষ্টতা ও এখন নিজেদের আওয়ামীলীগ কর্মী বলে পরিচয় দেয়া অভিযোগ ও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
আসছে বছর থেকেই পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং - dainik shiksha আসছে বছর থেকেই পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন - dainik shiksha ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন এসএসসির ৭৫ শতাংশ ও জেএসসির ২৫ শতাংশে এইচএসসির ফল - dainik shiksha এসএসসির ৭৫ শতাংশ ও জেএসসির ২৫ শতাংশে এইচএসসির ফল ইবতেদায়ি ও দাখিল শিক্ষার্থীদের পঞ্চম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ - dainik shiksha ইবতেদায়ি ও দাখিল শিক্ষার্থীদের পঞ্চম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতনও ইএফটিতে - dainik shiksha প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতনও ইএফটিতে ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার দায়িত্ব মাদরাসা বোর্ডের - dainik shiksha ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার দায়িত্ব মাদরাসা বোর্ডের প্রতি স্কুলের তিন শিক্ষককে করতে হবে কৈশোরকালীন পুষ্টি প্রশিক্ষণ - dainik shiksha প্রতি স্কুলের তিন শিক্ষককে করতে হবে কৈশোরকালীন পুষ্টি প্রশিক্ষণ please click here to view dainikshiksha website