শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানের ভার নিয়ে নতুন পরিপত্র

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক |

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক : শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের ভার কে পাবেন আর কে পাবেন না তা নির্ধারণ করে নতুন পরিপত্র জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদ খালি থাকলে সহকারী প্রধান শিক্ষক বা জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক প্রতিষ্ঠান প্রধানের ভার পাবেন। নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধানের পদ শূন্য থাকলে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পাবেন জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক। তবে উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ বা প্রধান শিক্ষক পদে খালি থাকলে ওই পদের দায়িত্ব সহকারী প্রধান শিক্ষককে দেয়া যাবে না। উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হবেন জ্যেষ্ঠ প্রভাষক বা জ্যেষ্ঠ সহকারী অধ্যাপক। উচ্চমাধ্যমিক কলেজের ক্ষেত্রেও একইভাবে জ্যেষ্ঠ প্রভাষক বা সহকারী অধ্যাপক অধ্যক্ষের ভার পাবেন। ডিগ্রি কলেজের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠান প্রধানের ভার দিতে হবে উপাধ্যক্ষকে। তবে ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের পদ একইসঙ্গে  শূন্য থাকলে জ্যেষ্ঠ সহকারী অধ্যাপক অধ্যক্ষ পদের দায়িত্ব পাবেন।

সোমবার এ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ পরিপত্রটি প্রকাশ করে। এর আগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি তারিখে ওই পরিপত্র মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোলেমান খানের স্বাক্ষরে ওই পরিপত্রটি জারি করা হয়।   

ওই পরিপত্রে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ বলছে, প্রতিষ্ঠানটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় অথবা স্নাতক (পাস) কলেজ (ডিগ্রি কলেজ) হলে, সহকারী প্রধান শিক্ষক বা উপাধ্যক্ষ ছাড়া অন্য কোন শিক্ষককে প্রধান শিক্ষক বা অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়া যাবে না। তবে সহকারী প্রধান শিক্ষক বা উপাধ্যক্ষের পদ শূন্য থাকলে কর্মরত শিক্ষকদের মধ্য থেকে জ্যেষ্ঠতম সহকারী শিক্ষক বা জ্যেষ্ঠতম সহকারী অধ্যাপককে প্রধান শিক্ষক বা অধ্যক্ষের দায়িত্ব দিতে হবে।

প্রতিষ্ঠানটি উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয় হলে, সহকারী প্রধান শিক্ষককে (গ্রেড-৮) প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ বা প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বভার অর্পন করা যাবে না। প্রতিষ্ঠানে কর্মরত জ্যেষ্ঠ প্রভাষক বা সহকারী অধ্যাপকদের (গ্রেড-৬) মধ্য থেকে জ্যেষ্ঠতম জ্যেষ্ঠ প্রভাষক বা জ্যেষ্ঠতম সহকারী অধ্যাপককে অধ্যক্ষের দায়িত্ব দিতে হবে।

প্রতিষ্ঠানটি নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয় অথবা উচ্চমাধ্যমিক কলেজ হলে প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সহকারী শিক্ষক বা জ্যেষ্ঠ প্রভাষক ও সহকারী অধ্যাপকদের মধ্য থেকে জ্যেষ্ঠতম সহকারী শিক্ষক অথবা জ্যেষ্ঠতম জ্যেষ্ঠ প্রভাষক বা জ্যেষ্ঠতম সহকারী অধ্যাপককে দায়িত্ব দিতে হবে।

পরিপত্র মন্ত্রণালয় আরো বলছে, জ্যেষ্ঠতম সহকারী শিক্ষক বা জ্যেষ্ঠতম জ্যেষ্ঠ প্রভাষক বা জ্যেষ্ঠতম সহকারী অধ্যাপক নির্বাচনের ক্ষেত্রে প্রথম এমপিওভুক্তির তারিখ, একই তারিখে এমপিওভুক্ত হলে যোগদানের তারিখ এবং যোগদানের তারিখ একই হলে বয়সের দিক থেকে বয়োজ্যেষ্ঠ শিক্ষককে জ্যেষ্ঠতম গণ্য করতে হবে। একইভাবে একই বয়সের দুই জন হলে উচ্চতর শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পন্ন শিক্ষককে জ্যেষ্ঠতম গণ্য করতে হবে।

কোন স্কুল বা কলেজে অধ্যক্ষ বা প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য হলে বা তিনি ছুটিতে গেলে অধ্যক্ষ বা প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে দায়িত্ব অন্য শিক্ষকদের দেয়ার ক্ষেত্রে এ নির্দেশনাগুলো অনুসরণ করতে বলেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। 

শিক্ষাসহ সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলের সঙ্গেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
কওমি মাদরাসা নিয়ে সিদ্দিকুর রহমান খানের অনবদ্য গ্রন্থ - dainik shiksha কওমি মাদরাসা নিয়ে সিদ্দিকুর রহমান খানের অনবদ্য গ্রন্থ ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল - dainik shiksha ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত চায় ইউজিসি - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত চায় ইউজিসি ১৫ শতাংশ ভ্যাট : পূর্ণাঙ্গ রায়ের অপেক্ষায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মালিকরা - dainik shiksha ১৫ শতাংশ ভ্যাট : পূর্ণাঙ্গ রায়ের অপেক্ষায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মালিকরা পরীক্ষা শুরুর আগেই উত্তরপত্রের ছড়াছড়ি, দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ - dainik shiksha পরীক্ষা শুরুর আগেই উত্তরপত্রের ছড়াছড়ি, দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারেনি সুনামগঞ্জের সাড়ে ২৯ হাজার শিক্ষার্থী - dainik shiksha ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারেনি সুনামগঞ্জের সাড়ে ২৯ হাজার শিক্ষার্থী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে ১৫ শতাংশ ট্যাক্স দিতেই হবে: আপিল বিভাগ - dainik shiksha বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে ১৫ শতাংশ ট্যাক্স দিতেই হবে: আপিল বিভাগ ছাত্রকে শাসন করায় প্রধান শিক্ষককে মারধর - dainik shiksha ছাত্রকে শাসন করায় প্রধান শিক্ষককে মারধর দৈনিক শিক্ষাডটকমের ফেসবুক পেজ দেখুন - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষাডটকমের ফেসবুক পেজ দেখুন please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0047390460968018