সাড়ে ১২ লাখ টাকায় বিক্রি হলো এক ছাগল - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা


সাড়ে ১২ লাখ টাকায় বিক্রি হলো এক ছাগল

দৈনিক শিক্ষা ডেস্ক |

এবারের কুরবানি ঈদে বিপুল সংখ্যক ছাগল বিক্রি হয়েছে। গরু কেনার সামর্থ্য না জোটায় অনেকে ছাগলে ঝুঁকেছেন।

৮ থেকে ১৫ হাজারে পছন্দসহ ছাগল কিনে একা একাই টেনে নিয়ে গেছেন বাড়িতে। কিন্তু তাই বলে সাড়ে ১২ লাখ টাকায় ছাগল!

এ তো বড় আকারের কয়েকটি গরুর দামের সমান! কুরবানির জন্য একটি ছাগলের দাম উঠল সাড়ে ১২ লাখ টাকা। আর সেই দামে বিক্রিও হয়ে গেল! 

ঘটনাটি অবশ্য ভারতের গুজরাটের সুরতের।

কুরবানি ঈদ উপলক্ষে ছাগলটি সুরতের এক ব্যবসায়ী কিনে নিয়েছেন ভারতীয় মূদ্রায় ১১ লাখ রুপিতে (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১২ লাখ ৫১ হাজার টাকা!)

এত দামে ছাগলটি বিক্রির বিষয়ে এর বিক্রেতা আসফাক জানিয়েছেন, এটি পাঞ্জাবের বিঠল প্রজাতির। নাম তৈমুর। বিঠল প্রজাতির বিশেষত্ব এদের উঁচু নাক হয় আর আকৃতিতে বিশাল। তৈমুর উচ্চতায় ৪৬ ইঞ্চি, ওজন ১৯২ কেজি। ছোট আকারের গরুর মতোই বড় হয় এ প্রজাতির ছাগল।

সুরতের সাগরামপুরার বাসিন্দা আসফাক আরো জানান,দীর্ঘদিন ধরেই ছাগল বিক্রি করে আসছেন তিনি। এবারের ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে কাশ্মীর, কাঠিয়াওয়াড়ি জেটা, কোটা, সিরোনসহ নানা প্রজাতির ছাগল নিয়ে এসেছিলেন বাজারে। সবই ভাল দামে বিক্রি হয়েছে। তবে সবচেয়ে বেশি দাম পেয়েছেন পাঞ্জাবের বিঠল প্রজাতির তৈমুরে। নাকের অদ্ভুত আকৃতির জন্যই ক্রেতাদের কাছে এই প্রজাতির বেশি কদর রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘কুরবানির জন্য প্রতি বছরই এই সময় চড়া দামে ছাগল বিক্রি হয়। এমনকি অনলাইনেও চলে কেনাকাটা। অসুস্থ বা আঘাত পাওয়া ছাগলকে কুরবানি দেওয়া যায় না। স্বাভাবিকভাবেই ভাল ছাগল পেতে ভাল দাম দিয়ে কেনেন ক্রেতারা।’

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
শহীদ মিনার থাকা বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার - dainik shiksha শহীদ মিনার থাকা বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার ..পিস্তল রেখে ঘুমাতাম, ..বাচ্চাকে দেশছাড়া করমু: ভিকারুননিসা অধ্যক্ষ বচনে হইচই - dainik shiksha ..পিস্তল রেখে ঘুমাতাম, ..বাচ্চাকে দেশছাড়া করমু: ভিকারুননিসা অধ্যক্ষ বচনে হইচই ভালোমানের স্কুল এমপিওভুক্তি ও জাতীয়করণের সুপারিশ - dainik shiksha ভালোমানের স্কুল এমপিওভুক্তি ও জাতীয়করণের সুপারিশ মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন - dainik shiksha মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন এবারের এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট এখনও হাতে পায়নি শিক্ষা অধিদপ্তর - dainik shiksha এবারের এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট এখনও হাতে পায়নি শিক্ষা অধিদপ্তর মাদরাসায় গ্রন্থাগার শিক্ষক নিয়োগ : নিবন্ধন সিলেবাস প্রণয়নের নির্দেশ - dainik shiksha মাদরাসায় গ্রন্থাগার শিক্ষক নিয়োগ : নিবন্ধন সিলেবাস প্রণয়নের নির্দেশ দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত - dainik shiksha মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত উচ্চমাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট ফের স্থগিত - dainik shiksha উচ্চমাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট ফের স্থগিত লকডাউনের পর অনলাইনে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ - dainik shiksha লকডাউনের পর অনলাইনে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ please click here to view dainikshiksha website