১ নভেম্বর থেকে ইবতেদায়ি ও দাখিলের সিলেবাস বাস্তবায়ন শুরু - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা


১ নভেম্বর থেকে ইবতেদায়ি ও দাখিলের সিলেবাস বাস্তবায়ন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক |

আগামী ১ নভেম্বর থেকে মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের সাথেই (৬ষ্ঠ থেকে ৯ম) মাদরাসার ইবতেদায়ি ও দাখিল পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস বাস্তবায়ন শুরু হচ্ছে। এদিন থেকেই শিক্ষার্থীরা অ্যাসাইনমেন্ট সংগ্রহ করে তা জমা দিতে হবে। ডিসেম্বরের মধ্যে ৮ সপ্তাহে পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি সম্পন্ন করতে হবে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) নির্ধারিত সময়ে অ্যাসাইনমেন্টে বিষয়বস্তু জানিয়ে দেবে।

মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এনসিটিবির পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচির আলোকে ১ম থেকে ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন নিশ্চিত করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সব ডিসি, ইউএনও, আঞ্চলিক উপপরিচালক, জেলা-উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের এ বিষয়টি সব মাদরাসাগুলোতে মূল্যায়নের বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। একই সাথে এনসিটিবির পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি আলোকে মূল্যায়ন নির্দেশনাও পাঠানো হয়েছে। 

এনসিটিবির পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি  নির্দেশনায় বলা হয়, কোভিড-১৯ সংক্রামণ রোধে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোয় প্রত্যক্ষ শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। সংগতকারণে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের নির্ধারিত পাঠ্যসূচি পূর্ণাঙ্গভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব হয়নি। এ কারণে চলতি বছরের পাঠ্যসূটি সংক্ষিপ্ত ও সংকোচন করে পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে।

 

শিক্ষার্থীদের শিখন প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখতে সংসদ টিভিতে ধারাবাহিকভাবে ক্লাস প্রচার করা হচ্ছে। শিক্ষকরাও প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করছেন। শিক্ষার্থীরা পরবর্তী শ্রেণিতে শিখন অর্জনে যেন অসমর্থ না হয় এবং শিখন ঘাটতি থাকলে তা পরবর্তী শ্রেণিতে পূরণ করার সুযোগ পায় সে বিবেচনায় পাঠ্যসূচি পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। 

নির্দেশনায় আরও বলা হয়, শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যঝুঁকি ও নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সরকার বার্ষিক পরীক্ষা না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শিক্ষার্থীকে শিক্ষা ব্যবস্থার সাথে সম্পৃক্ত রাভতে বাড়ির কাজ ও অ্যাসাইনমেন্ট নির্ধারণ করা হয়েছে। পাঠ্যসূচি ও মূল্যায়ন টুলস প্রণয়নের ক্ষেত্রে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সপ্তাহ বিবেচনায় ৮টি সপ্তাহ পাওয়া যাবে। পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচিতে কোন সপ্তাগে শিক্ষার্থীর কি মূল্যায়ন করা হবে তা নির্দেশিত আছে। প্রথম সপ্তাহে মূল্যায়নের পর ২য় সপ্তাহের প্রস্তুতি নিতে হবে। এভাবে পর্যায়ক্রমে ৮ সপ্তাহ শেষে শিক্ষার্থী মূল্যায়ন কার্যক্রম শেষ হবে। 

এক্ষেত্রে কিছু বিষয় অনুসরণ করতে বলা হয়েছে। এগুলোর মধ্যে আছে, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে ডিসেম্বর  পর্যন্ত পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি সম্পন্ন করতে হবে। প্রস্তাবিত মূল্যায়ন নির্দেশনা অনুসরণ করে শিক্ষার্থীকে প্রতি সপ্তাহে প্রত্যেক বিষয়ে একটি করে কাজ দিতে হবে। প্রতিটি বিষয়ের ৮ সপ্তাহে প্রস্তাবিত ৮টি কাজ সম্পন্ন করতে হবে। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের বিষয় ভিত্তিক কাজের মূল্যায়ন করবেন। এ কার্যক্রমে প্রতি শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সব মূল্যায়ন রেকর্ড সংরক্ষণ করতে হবে। 

কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষা হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি জানান, ৩০ কার্যদিবসের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস তৈরি করা হচ্ছে। অনলাইনে অথবা শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে সপ্তাহে একটি করে অ্যাসাইনমেন্ট শিক্ষার্থীদের দেয়া হবে। শিক্ষকরা তা মূল্যায়ন করে শিক্ষার্থীর দুর্বলতা চিহ্নিত করবেন। তবে তা ফল মূল্যায়নের জন্য নয়, পরবর্তী শ্রেণিতে ঘাটতি দূর করার জন্য। শিক্ষামন্ত্রী আরও জানান, যেসব বিষয় পরবর্তী শ্রেণির জন্য গুরুত্বপূর্ণ সে বিষয় সিলেবাসে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এর আগে এইচএসসি, জেএসসি পরীক্ষা ও প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষাও বাতিল করা হয়েছে।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন। 




পাঠকের মন্তব্য দেখুন
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের আবেদনে ভুল সংশোধনের সুযোগ - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের আবেদনে ভুল সংশোধনের সুযোগ আসছে বছর থেকেই পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং - dainik shiksha আসছে বছর থেকেই পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন - dainik shiksha ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন ইবতেদায়ি ও দাখিল শিক্ষার্থীদের পঞ্চম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ - dainik shiksha ইবতেদায়ি ও দাখিল শিক্ষার্থীদের পঞ্চম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতনও ইএফটিতে - dainik shiksha প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতনও ইএফটিতে ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার দায়িত্ব মাদরাসা বোর্ডের - dainik shiksha ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার দায়িত্ব মাদরাসা বোর্ডের প্রতি স্কুলের তিন শিক্ষককে করতে হবে কৈশোরকালীন পুষ্টি প্রশিক্ষণ - dainik shiksha প্রতি স্কুলের তিন শিক্ষককে করতে হবে কৈশোরকালীন পুষ্টি প্রশিক্ষণ please click here to view dainikshiksha website