মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

sanaullah arifi, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০
কামিল স্কেল এ কেন?
মোঃ+আমিনুল+হক, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
বর্তমানে 2018 সংশোধিত নীতিমালায় পূর্বের জারিকৃত 2018 নীতিমালার 7 নং পৃষ্ঠার 9 এর (খ) পদ সমন্বিতকরণ প্যারাটি বাদ দেয়া হয়েছে এতে পূর্বে নিয়োগ প্রাপ্ত অনেক শিক্ষক-কর্মচারীই তাদের পদ সমন্বয় থেকে বঞ্চিত হবে এবং বেতন করতে পারবে না ফলে তাদের জীবনটা নষ্ট হয়ে যাবে তাই মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগনের নিকট বিনীত অনুরোধ করছি যেন পূর্বের মত বর্তমান জনবল কাঠামো ও নীতিমালাতেও উক্ত প্যারাটি বহাল রাখার বিষয়ে বিবেচনা করেন। মো: আব্দুস সালাম ঢাকা।
মোঃ+আমিনুল+হক, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
2018 নীতিমালার 7 নং পৃষ্ঠার 9 নং পদ সমন্বিতকরণ প্যারাটি 23 নভেম্বর 2018 সংশোধিত নীতিমালায় বাদ দেয়া হয়েছে যার কারনে পূর্বে নিয়োগপ্রাপ্ত অনেক শিক্ষক-কর্মচারী বিপদে পড়বে তাই মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তগনের নিকট উক্ত প্যারাটি বহাল রাখার বিনীত অনুরোধ করছি। মো: মমিনুল ইসলাম বাঘা রাজশাহী।
sreechail madrasha, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
বিশ বছরেও সহকারী অধ্যাপক হতে পারলাম না।লিখিত পরীক্ষার ব্যবস্থা থাকলে হতে পারতাম।
nazmulhoque, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০
(মাদ্রসা)আঠারো নীতিমালায় পূর্বে আলিম মাদ্রাসায় ( অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর) ছিলো দুইটি, এবং ফাজিল মাদ্রাসায় ছিলো দুইটি। কিন্তু এখন আলিম মাদ্রাসায় করলো একটি এবং ফাজিল মাদ্রাসায় করলো তিনটি। প্রশ্ন হলো ফাজিল মাদ্রাসায় যদি তিনটি পদ হয় তবে আলিম মাদ্রাসায় কি দুটি হওয়া উচিত নয়? দয়া করে এটা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবেন।
nazmulhoque, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০
স্যার,(মাদ্রসা)আঠারো নীতিমালায় পূর্বে আলিম মাদ্রাসায় ( অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর) ছিলো দুইটি, এবং ফাজিল মাদ্রাসায় ছিলো দুইটি। কিন্তু এখন আলিম মাদ্রাসায় করলো একটি এবং ফাজিল মাদ্রাসায় করলো তিনটি। প্রশ্ন হলো ফাজিল মাদ্রাসায় যদি তিনটি পদ হয় তবে আলিম মাদ্রাসায় কি দুটি হওয়া উচিত নয়? দয়া করে এটা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবেন।
sreechail madrasha, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০
পরীক্ষা ছাড়া অনুপাত প্রথার মাধ্যমে যোগ্য শিক্ষকের প্রমোশন হচ্ছে না।
sreechail madrasha, ০১ ডিসেম্বর, ২০২০
পরীক্ষা ছাড়া প্রমোশন দিলে গ্রহণ যোগ্য হবে না। সামর্থ্য না থাকলে ২৫%প্রভাষককে প্রমোশন দিন।লিখিত পরীক্ষা, অভিজ্ঞতা এবং শিক্ষা গত যোগ্যতা বিবেচনা করে পদোন্নতি দিলে গ্রহণ যোগ্য হবে। এতে সবার অধিকার প্রতিষ্ঠা হবে। শুধু আগে যোগদান করলেই যোগ্য বলা যায় না।
md. muslem uddin sarker, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
মাদ্রাসার উচ্চত্তর স্কেলের খবর কি ?
md. muslem uddin sarker, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
মাদ্রাসার উচ্চত্তর স্কেলের খবর কি ?
md. muslem uddin sarker, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
মাদ্রাসার উচ্চত্তর স্কেলের খবর কি ?
A.K.M Sujauddawla, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
১। সহকারী গ্রন্থাগারিক ঃ বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড/ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের / ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত মাদ্রাসাসমুহ হতে ফাজিল ও গ্রন্থাগার বিজ্ঞানে ডিপ্লোমা অথবা স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হতে আরবি বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি ও গ্রন্থাগার বিজ্ঞানে ডিপ্লোমা। ২। গ্রন্থাগারিক ঃ বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড অথবা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় / ইসলামী ও আরবী বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত মাদ্রাসা সুমহ হতে কামিল ও গ্রন্থাগার বিজ্ঞানে ডিপ্লোমা। তাহলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বা অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হতে যারা ইসলামি শিক্ষা বিষয়ে অনার্স মাষ্টার্স করেছে তারা কেন আবেদনের জন্য যোগ্য হবেন না। বিষয়টির প্রতি গুরুত্ব আকর্ষন করছি। ইসলামী শিক্ষা কি মাদ্রাসার অন্তর্ভূক্ত বিষয় নয়?
sreechail madrasha, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
অনুপাত প্রথার কারণে যোগ্য লোকের প্রমোশন হচ্ছে না। জাতীয় পর্যায়ে এক ঘন্টা সময়ের জন্য এমসিকিঊ পরীক্ষার মাধ্যমে দক্ষতা যাচাই করে পদোন্নতি দিন।
sreechail madrasha, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
প্রমোশনের ক্ষেত্রে শুধু চাকরিকাল নয়,শিক্ষা গত যোগ্যতা, কম্পিউটার দক্ষতা, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইন ক্লাস বিবেচনা এবং জাতীয় পর্যায়ে লিখিত পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হোক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী -জেষ্ঠ্যতা নয়,মেধার ভিত্তিতে প্রমোশন দিন। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করা হয় না বলেই, করোনা কালীন মহামারির সময়ে সবাই অনলাইন ক্লাস নেয় নি বা চেষ্টা করে নি। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করার জন্য মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তগনের নিকট বিনীত অনুরোধ করছি।
sreechail madrasha, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
প্রমোশনের ক্ষেত্রে শুধু চাকরিকাল নয়,শিক্ষা গত যোগ্যতা, কম্পিউটার দক্ষতা, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইন ক্লাস বিবেচনা এবং জাতীয় পর্যায়ে লিখিত পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হোক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী -জেষ্ঠ্যতা নয়,মেধার ভিত্তিতে প্রমোশন দিন। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করা হয় না বলেই, করোনা কালীন মহামারির সময়ে সবাই অনলাইন ক্লাস নেয় নি বা চেষ্টা করে নি। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করার জন্য মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তগনের নিকট বিনীত অনুরোধ করছি।
sreechail madrasha, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
প্রমোশনের ক্ষেত্রে শুধু চাকরিকাল নয়,শিক্ষা গত যোগ্যতা, কম্পিউটার দক্ষতা, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইন ক্লাস বিবেচনা এবং জাতীয় পর্যায়ে লিখিত পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হোক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী -জেষ্ঠ্যতা নয়,মেধার ভিত্তিতে প্রমোশন দিন। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করা হয় না বলেই, করোনা কালীন মহামারির সময়ে সবাই অনলাইন ক্লাস নেয় নি বা চেষ্টা করে নি। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করার জন্য মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তগনের নিকট বিনীত অনুরোধ করছি।
Hakimur Rahman, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষকদের 50% সিনিয়র পদ দেওয়ার কথা না বলে শুধু প্রভাষক দের নিয়ে এত মাতামাতি কেন বুঝলাম না ভাই।তাদের পদ পদবি আর সন্মান বলে কিছু আছে বলে মনে হয় না!!! please siddikur rahman vai সহকারি শিক্ষক দের জন্য কিছু বলেন। please vai please .
Hakimur Rahman, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষকদের 50% সিনিয়র পদ দেওয়ার কথা না বলে শুধু প্রভাষক দের নিয়ে এত মাতামাতি কেন বুঝলাম না ভাই।তাদের পদ পদবি আর সন্মান বলে কিছু আছে বলে মনে হয় না!!! please siddikur rahman vai সহকারি শিক্ষক দের জন্য কিছু বলেন। please vai please .
shohel arman, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
super হতে লাগে সহকারী হিসাবে ৯ বছরের অভি অথচ সহকারী সুপার হতে লাগে ১০ বছরের অভি এটা কেমন গাজাখুরী নীতি ।
Dhillon, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
এখানে ৬,১ গ এর ৯ নং এ আলিম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে গনিত বিষয়ের উল্লেখ নাই। জীব বিজ্ঞান বিষয়কে দুই ভাগে বিভক্ত করে প্রাণি বিজ্ঞান ও উদভিদ বিজ্ঞান দেখানো হয়েছে। আমরা যারা গনিত ও জীব বিজ্ঞানে কর্মরত আছি তাদের সম্পর্কে কি সিদ্বান্ত হবে কতৃপক্ষের নিকট জানতে চাই।
raju, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
এই নীতিমালা বৈষম্যের
sreechail madrasha, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
প্রমোশনের ক্ষেত্রে শুধু চাকরিকাল নয়,শিক্ষা গত যোগ্যতা, কম্পিউটার দক্ষতা, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইন ক্লাস বিবেচনা এবং জাতীয় পর্যায়ে লিখিত পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হোক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী -জেষ্ঠ্যতা নয়,মেধার ভিত্তিতে প্রমোশন দিন। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করা হয় না বলেই, করোনা কালীন মহামারির সময়ে সবাই অনলাইন ক্লাস নেয় নি বা চেষ্টা করে নি। অন্যান্য দক্ষতা বিবেচনা করার জন্য মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তগনের নিকট বিনীত অনুরোধ করছি।
sreechail madrasha, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী মেধার ভিত্তিতে প্রমোশন দেওয়া হচ্ছে না। প্রমোশনের ক্ষেত্রে কম্পিউটার দক্ষতা, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইন ক্লাস নেওয়া লাগে না। কোন দক্ষতা লাগে না, শুধু বয়স হলেই হয়।
sreechail madrasha, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী মেধার ভিত্তিতে প্রমোশন দেওয়া হচ্ছে না। প্রমোশনের ক্ষেত্রে কম্পিউটার দক্ষতা, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইন ক্লাস নেওয়া লাগে না। কোন দক্ষতা লাগে না, শুধু বয়স হলেই হয়।
sreechail madrasha, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী মেধার ভিত্তিতে প্রমোশন দেওয়া হচ্ছে না। প্রমোশনের ক্ষেত্রে কম্পিউটার দক্ষতা, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, অনলাইন ক্লাস নেওয়া লাগে না। কোন দক্ষতা লাগে না, শুধু বয়স হলেই হয়।
Md. Anamul hoque, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
বরাবর, সম্পাদক, দৈনিক শিক্ষা । ১৯৯৫ এর জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা প্রনোয়ন সহ এ যাবৎ যতোগুলো নীতিমালা জারি হয়েছে সবগুলিতেই পদ সমন্বয় করণ কলাম থাকে সেটি নাই এবং বি এড বিহীন সহকারী মৌলভি দের ২০০৬ ইং সনের পূর্বে কামিল পাস শিক্ষকদের বেতন ভাতা ১০ কোডে পাবেন মর্মে ধারায় উল্লেখ ছিল কিন্তু এই নীতিমালায় তাহা উল্লেখ না করে মদরাসার সহকারি মৌলভি শিক্ষকদের হতাশ একেবারেই করেছে! সেই মর্মে নীতিমালা সংশোধন পূর্বক ধারা দুটি এক্ষুনি সন্নিবেশন করা প্রয়োজন । মোঃ এনামুল হক প্রভাসক - আরবি কৈকুড়ীশীতলডাঙ্গাআলিম মাদরাসা পোঃ গোপালপু,সাপাহার, নওগাঁ ।
sreechail madrasha, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
কালো আইন নামে পরিচিত অনুপাত প্রথার কারণে অনেক প্রভাষক, সহকারী অধ্যাপক হতে পারে নি। যে কালো আইন বাতিলের জন্য শিক্ষকরা যুগ যুগ ধরে আন্দোলন করছে সেই একই আইন আবারও বহাল থাকছে। ইতিমধ্যে আরো একটি কালো আইন জারি হইল। সেটা হলো আলিম বা উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের প্রভাষকরা কোন দিন সহকারী অধ্যাপক, উপাধ্যক্ষ ও অধ্যক্ষ হতে পারবে না।এই জঘন্য নিয়ম বাতিলের জন্য আন্দোলন করতে হবে।
sreechail madrasha, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
কালো আইন নামে পরিচিত অনুপাত প্রথার কারণে অনেক প্রভাষক, সহকারী অধ্যাপক হতে পারে নি। যে কালো আইন বাতিলের জন্য শিক্ষকরা যুগ যুগ ধরে আন্দোলন করছে সেই একই আইন আবারও বহাল থাকছে। ইতিমধ্যে আরো একটি কালো আইন জারি হইল। সেটা হলো আলিম বা উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের প্রভাষকরা কোন দিন সহকারী অধ্যাপক, উপাধ্যক্ষ ও অধ্যক্ষ হতে পারবে না।এই জঘন্য নিয়ম বাতিলের জন্য আন্দোলন করতে হবে।
মোঃ সুরুজ্জামান, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
২০১৮ এর নীতিমালায় আলিম মাদ্রাসায় অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর পদসংখ্যা ২টি ছিল। কিন্তু সংশোধনী নীতিমালায় পদসংখ্যা ০১টি দেখাচ্ছে কেন? আবার যারা পূর্বের ২০১৮ এর নীতিমালায় নিয়োগ দিয়েছে তাদের কি হবে এবং যারা ২৩ নভেম্বর ২০২০ এর পূর্বে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে তাদের কি হবে? অনুগ্রহপূর্বক বিষয়টির ব্যাখ্যা যাচ্ছি। আশা করি দৈনিক শিক্ষা থেকে সঠিক উত্তরটি পাব। 01762807641