ঢাবির সাবেক অধ্যাপক সেকুল ইসলাম আর নেই - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা


ঢাবির সাবেক অধ্যাপক সেকুল ইসলাম আর নেই

ঢাবি প্রতিনিধি |

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড. মো. সেকুল ইসলাম মারা গেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। বুধবার (২১ জুলাই) দুপুরে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়।

এদিন সেকুল ইসলামের ভয়াবহ শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের বাসা থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে নেয়া হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সেকুল ইসলামের সঙ্গে থাকা সেমিকন্ডাক্টর টেকনোলজি রিচার্স সেন্টারের ইন্সট্রুমেন্ট ইঞ্জিনিয়ার সাজিদুল হোসেন সরকার গণামাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সেকুল ইসলামের মরদেহ ঈদের দিন সন্ধ্যার দিকে ঢাকা থেকে নিজ বাড়ি চাঁদপুরের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানেই তার দাফন সম্পন্ন হবে।

সাজিদুল সরকার বলেন, স্যারের অ্যাজমার সমস্যা ছিল। তবে কোভিড নেগেটিভ। বুধবার সকালে স্যারের শ্বাসকষ্ট শুরু হলে স্যার আমাকে ফোন দিয়ে ডেকে আনেন। আমি এবং স্যারের মেয়ে ওনাকে হাসপাতালে নেয়ার উদ্দেশে গাড়িতে তুলি। সেসময় স্যারের শ্বাস নিতে এতোই কষ্ট হচ্ছিলো যে, তিনি শ্বাস নেয়ার জন্য উচু হয়ে যাচ্ছিলেন।

ড. সেকুল ইসলামের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান। শোক বার্তায় উপাচার্য বলেন, সেকুল ইসলাম একজন নিষ্ঠাবান শিক্ষক ও গবেষক। তিনি অত্যন্ত সৎ, বিনয়ী, নম্র ও শান্ত প্রকৃতির মানুষ। ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন হিসেবেও তিনি অত্যন্ত সততা ও দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
শহীদ মিনার থাকা বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার - dainik shiksha শহীদ মিনার থাকা বিদ্যালয়ের তালিকা চেয়েছে সরকার ..পিস্তল রেখে ঘুমাতাম, ..বাচ্চাকে দেশছাড়া করমু: ভিকারুননিসা অধ্যক্ষ বচনে হইচই - dainik shiksha ..পিস্তল রেখে ঘুমাতাম, ..বাচ্চাকে দেশছাড়া করমু: ভিকারুননিসা অধ্যক্ষ বচনে হইচই ভালোমানের স্কুল এমপিওভুক্তি ও জাতীয়করণের সুপারিশ - dainik shiksha ভালোমানের স্কুল এমপিওভুক্তি ও জাতীয়করণের সুপারিশ মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন - dainik shiksha মাদরাসার গ্রন্থাগারিকরাও শিক্ষক মর্যাদা পেলেন এবারের এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট এখনও হাতে পায়নি শিক্ষা অধিদপ্তর - dainik shiksha এবারের এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট এখনও হাতে পায়নি শিক্ষা অধিদপ্তর মাদরাসায় গ্রন্থাগার শিক্ষক নিয়োগ : নিবন্ধন সিলেবাস প্রণয়নের নির্দেশ - dainik shiksha মাদরাসায় গ্রন্থাগার শিক্ষক নিয়োগ : নিবন্ধন সিলেবাস প্রণয়নের নির্দেশ দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত - dainik shiksha মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট স্থগিত উচ্চমাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট ফের স্থগিত - dainik shiksha উচ্চমাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট ফের স্থগিত লকডাউনের পর অনলাইনে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ - dainik shiksha লকডাউনের পর অনলাইনে এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ please click here to view dainikshiksha website