নির্মাণের ১৪ বছরেই স্কুল ভবন পরিত্যক্ত ঘোষণা - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা


নির্মাণের ১৪ বছরেই স্কুল ভবন পরিত্যক্ত ঘোষণা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি |

নির্মাণের ১৪ বছর পার হতেই লাখাই উপজেলায় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। নিম্নমানের কাজ হওয়ায় ভবনজুড়ে ফাটল ও পিলারগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গেছে।

শিক্ষার্থীদের পাঠদানের জন্য সেখানে একটি টিনের ঘর তৈরি করেছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।


 
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০০৭ সালে প্রায় ৩৮ লাখ টাকা ব্যয়ে লাখাই উপজেলার মোড়াকরি ইউনিয়নের সুবিদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একটি ভবন নির্মাণ করেছিল স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)। ভবনের স্থায়িত্বের মেয়াদ ছিল ৩০ বছর। কিন্তু ১৪ বছর হওয়ার আগেই এর পিলারগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভবনজুড়ে দেখা দিয়েছে ফাটল। যেকোন সময় ভেঙে পড়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।
 
এলাকাবাসী জানিয়েছেন, স্থানীয় ঠিকাদার নজরুল ইসলাম সুবিদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের নির্মাণকাজ করেছিলেন। তিনি পর্যাপ্ত পরিমাণ কাঁচামাল ব্যবহার করেননি। নিম্নমানের কাজ করেছেন। সেজন্য ১৪ বছরেই ভবনটি ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

নির্মাণের ১৪ বছরেই পরিত্যক্ত ঘোষণা সুবিদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন। ছবি : সংগৃহীত

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য্য জানিয়েছেন, ভবন নির্মাণের সময়ও তিনি এখানেই কর্মরত ছিলেন, নিম্নমানের নির্মাণ কাজের প্রতিবাদও করেছিলেন। কিন্তু ঠিকাদার শোনেননি। ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণার পর সেখানে তারা একটি টিনের ঘর নির্মাণ করেছেন। মহামারি করোনার ছুটির পরে স্কুল খুললে টিনের ঘরেই পাঠদান শুরু হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।


 
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) লাখাই উপজেলা প্রকৌশলী মো. শাহ আলম জানিয়েছেন, নিম্নমানের কাজ হওয়ায় ভবনে ফাটল ও পিলারগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আরও ছয় মাস আগেই এটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। বর্তমানে এখানে আরেকটি ভবন নির্মাণের জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে। শিগগির নির্মাণকাজ শুরু হবে।
 
তিনি আরও জানান, এলজিইডির ভবনগুলোর মেয়াদকাল থাকে ৩০ বছর। কিন্তু এ ভবনটি ১৪ বছরেই পরিত্যক্ত হয়ে গেছে। নিম্নমানের কাজ হওয়ার জন্যই এটা হয়েছে। আগামী ২৬ জানুয়ারি এখানে আরেকটি নতুন ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন লাখাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লুসিকান্ত হাজং।


পাঠকের মন্তব্য দেখুন
হল না খোলার শর্তে সাত কলেজের পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি - dainik shiksha হল না খোলার শর্তে সাত কলেজের পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার উসকানিদাতারা দেশের শত্রু: আমু - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার উসকানিদাতারা দেশের শত্রু: আমু রাস্তা ছাড়লেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা, যান চলাচল শুরু - dainik shiksha রাস্তা ছাড়লেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা, যান চলাচল শুরু শিক্ষক নেতা বাশারকে উচ্ছেদে শিক্ষা ভবনের সেই চিঠি, পদবি নিয়েও প্রতারণা - dainik shiksha শিক্ষক নেতা বাশারকে উচ্ছেদে শিক্ষা ভবনের সেই চিঠি, পদবি নিয়েও প্রতারণা যত দ্রুত সম্ভব স্কুল খুলে দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত : প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha যত দ্রুত সম্ভব স্কুল খুলে দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত : প্রতিমন্ত্রী এনসিটিবির ওয়েবসাইট ও ইমেইল হ্যাক করে সব স্কুলে চিঠি - dainik shiksha এনসিটিবির ওয়েবসাইট ও ইমেইল হ্যাক করে সব স্কুলে চিঠি পেছাচ্ছে না ৪০-৪২তম বিসিএস পরীক্ষার সময় - dainik shiksha পেছাচ্ছে না ৪০-৪২তম বিসিএস পরীক্ষার সময় ১৭ মে ঢাবির হল খোলার আগে পরীক্ষার সূচি নয় - dainik shiksha ১৭ মে ঢাবির হল খোলার আগে পরীক্ষার সূচি নয় এমপিওভুক্ত করা হবে আরো ৬৬১ শিক্ষককে - dainik shiksha এমপিওভুক্ত করা হবে আরো ৬৬১ শিক্ষককে please click here to view dainikshiksha website